গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে ফুটবল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে ফুটবল
সংস্থাপিত ১৯০০
অঞ্চল আন্তর্জাতিক (ফিফা)
দলের সংখ্যা ১৬ (৬টি কনফেডারেশন থেকে)
বর্তমান চ্যাম্পিয়ন  মেক্সিকো পুরুষ
(১ম শিরোপা)
 মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মহিলা
(৪ শিরোপা)
সর্বাধিক সফল দল(সমূহ)  গ্রেট ব্রিটেন পুরুষ
(৩ শিরোপা)
 হাঙ্গেরি পুরুষ
(৩ শিরোপা)
 মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মহিলা
(৪ শিরোপা)
গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে ফুটবল
নিয়ন্ত্রক সংস্থা FIFA
বিভাগ ২ (পুরুষ: ১; নারী: ১)
খেলা
  • ১৮৯৬
  • ১৯০০
  • ১৯০৪
  • 1908
  • 1912
  • 1920
  • 1924
  • 1928
  • 1932
  • 1936
  • 1948
  • 1952
  • 1956
  • 1960
  • 1964
  • ১৯৬৮
  • ১৯৭২
  • ১৯৭৬
  • ১৯৮০
  • ১৯৮৪
  • ১৯৮৮
  • ১৯৯২
  • ১৯৯৬
  • ২০০০
  • ২০০৪
  • ২০০৮
  • ২০১২
  • ২০১৬

গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকে ফুটবল (ইংরেজি ভাষায়: Football at the Summer Olympics) প্রতি চার বৎসর অন্তর অনুষ্ঠিত গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক গেম্‌সে পুরুষদের অন্যতম ক্রীড়া বিষয়রূপে চিহ্নিত। কেবলমাত্র ১৮৯৬১৯৩২ সালের অলিম্পিক গেমসে এ খেলাটির অন্তর্ভুক্তি ছিল না। মহিলাদের ফুটবল খেলাটি আনুষ্ঠানিকভাবে ১৯৯৬ সালের আটলান্টা অলিম্পিকে প্রথমবারের মতো যুক্ত করা হয়। দলগত খেলা হিসেবে স্বীকৃত অলিম্পিকে ফুটবলের পুরুষ বিভাগে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হিসেবে রয়েছে মেক্সিকো ও প্রমিলাদের বিভাগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

ইতিহাস[সম্পাদনা]

আধুনিক অলিম্পিক ক্রীড়ার বিষয়সূচী হিসেবে উদ্বোধনী আসরে ফুটবল অন্তর্ভুক্ত ছিল না। তারপরও কিছু সূত্র থেকে দাবী করা হয় যে, অনানুষ্ঠানিকভাবে প্রথম প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। পূর্ণাঙ্গ তালিকা হারিয়ে যাবার ফলে অনুমিত করা হয় যে মাত্র দু'টো খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এথেন্স একাদশ অটোম্যান সাম্রাজ্য থেকে আগত স্মাইরনা (ইজমির) দলকে হারিয়েছিল।[১] কিন্তু, আদৌ এ ধরনের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছিল কি-না তা অস্পষ্ট রয়ে গেছে। অলিম্পিক সম্পর্কীয় ইতিহাসবিদ বিল ম্যালন লিখেছেন যে,[২]

ডেনমার্কের একটি দল স্মাইরনাকে ১৫-০ গোলে হারিয়েছিল। ১৯০০১৯০৪ সালের অলিম্পিকে প্রদর্শনী ক্রীড়ারূপে ফুটবল ঠাঁই পায়। এছাড়াও ১৯০৬ সালের স্বীকৃতিবিহীন অলিম্পিক গেমসে অনেকগুলো ক্লাব দল অংশ নেয় যা আনুষ্ঠানিকভাবে অলিম্পিক ক্রীড়া বিষয় হিসেবে বিবেচিত হয়নি। গ্রেট ব্রিটেন, জার্মানি, অস্ট্রিয়া, নেদারল্যান্ডস এবং ফ্রান্স ১৯০৬ সালের অলিম্পিক ফুটবল বর্জন করে। ডেনমার্ক, স্মাইরনা, এথেন্স এবং থেসালোনিকি মিউজিক ক্লাব প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। চূড়ান্ত খেলায় ডেনমার্ক ৯-০ ব্যবধানে এথেন্সকে হারায়।

পুরুষদের প্রতিযোগিতা[সম্পাদনা]

অলিম্পিকে অংশগ্রহণের জন্যে বিশ্বকাপ ফুটবলের ন্যায় মহাদেশীয় পর্যায়ে বাছাই পর্বের খেলা অনুষ্ঠিত হয়। অধিকাংশ মহাদেশীয় কনফেডারেশন অনূর্ধ্ব-২৩ প্রতিযোগিতার ন্যায় বিশেষ প্রতিযোগিতা আয়োজন করে। তারপরও ইউরোপীয় পর্যায়ে উয়েফা অনূর্ধ্ব-২১ চ্যাম্পিয়নশীপ এবং দক্ষিণ আমেরিকা থেকে অনূর্ধ্ব-২০ দক্ষিণ আমেরিকান যুব চ্যাম্পিয়নশীপ প্রতিযোগিতা থেকে দল বাছাই করে। ২০১২ সালের অলিম্পিক ক্রীড়ায় মহাদেশীয় পর্যায়ে দলের সংখ্যা নিম্নবর্ণিত হারে নির্ধারণ করা হয়েছে:

মহিলাদের প্রতিযোগিতা[সম্পাদনা]

নারীদের প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায়ের পূর্ণাঙ্গ দল অংশগ্রহণ করে। এতে কোন বয়সের বাধাধরা নিয়ম নেই। স্বাগতিক দেশের জন্য একটি স্থান বরাদ্দ রাখা হয়। বিশ্বকাপ ফুটবল প্রতিযোগিতার ন্যায় প্রত্যেক মহাদেশীয় অঞ্চল থেকে নির্দিষ্টসংখ্যক দল বরাদ্দ রাখা হয়েছে। উয়েফায় পূর্ববর্তী বছরের বিশ্বকাপের সফলতম দলগুলোকে নির্বাচিত করা হয়। অন্যদিকে অপরাপর মহাদেশে যোগ্যতা নির্ধারণী প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

১৯৯৬ সালের গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের মাধ্যমে প্রথমবারের মতো মহিলাদের ফুটবল ক্রীড়া বিষয়রূপে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্বর্ণপদক২০০০ সালে নরওয়ের কাছে হেরে রৌপ্যপদক লাভ করে। পরবর্তীকালে ২০০৪, ২০০৮২০১২ সালে দলটি একাধিক্রমে স্বর্ণপদক লাভে পারঙ্গমতা প্রদর্শন করে। ২০১২ সালের অলিম্পিকে মহাদেশীয় পর্যায়ে নিম্নরূপ দল বণ্টন করা হয়:

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Goldblatt, David। The Ball Is Round : A Global History of Football। Penguin Books। পৃ: ২৪৩। আইএসবিএন 978-0-14-101582-8 
  2. Mallon, Bill; & Widlund, Ture (১৯৯৮)। The 1896 Olympic Games. Results for All Competitors in All Events, with Commentary। Jefferson: McFarland। পৃ: 118। আইএসবিএন 0-7864-0379-9 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


টেমপ্লেট:Football at the Summer Olympics টেমপ্লেট:Olympics Men's Football Winners টেমপ্লেট:Olympic top scorers

টেমপ্লেট:Olympic Games Football

টেমপ্লেট:Worldfootball