সামোয়া জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সামোয়া
ডাকনামমানুমেয়া
অ্যাসোসিয়েশনসামোয়া ফুটবল ফেডারেশন
কনফেডারেশনওএফসি (ওশেনিয়া)
প্রধান কোচস্কট ইস্টহোপ
অধিনায়কঅ্যান্ড্রু স্টেফানো
সর্বাধিক ম্যাচদেসমঁদ ফাইয়াসো (২০)
শীর্ষ গোলদাতাদেসমঁদ ফাইয়াসো (৯)
মাঠআপিয়া জাতীয় ফুটবল স্টেডিয়াম
ফিফা কোডSAM
ওয়েবসাইটwww.footballsamoa.ws
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৯৪ অপরিবর্তিত (১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১)[১]
সর্বোচ্চ১৪৬ (ডিসেম্বর ২০০৭)
সর্বনিম্ন২০৪ (নভেম্বর ২০১১)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ২২৩ অপরিবর্তিত (১ এপ্রিল ২০২১)[২]
সর্বোচ্চ১৮২ (১৯৭৯)
সর্বনিম্ন২২৪ (সেপ্টেম্বর ২০১৫)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 সলোমন দ্বীপপুঞ্জ ১২–০ পশ্চিম সামোয়া 
(ফিজি; ৩১ আগস্ট ১৯৭৯)
বৃহত্তম জয়
 সামোয়া ৮–০ মার্কিন সামোয়া 
(কফস হার্বার, অস্ট্রেলিয়া; ৯ এপ্রিল ২০০১)
বৃহত্তম পরাজয়
 তাহিতি ১৩–০ পশ্চিম সামোয়া 
(সলোমন দ্বীপপুঞ্জ; ১৩ জুলাই ১৯৮১)
ওএফসি নেশন্স কাপ
অংশগ্রহণ২ (২০১২-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যগ্রুপ পর্ব (২০১২, ২০১৬)

সামোয়া জাতীয় ফুটবল দল (সামোয়ান: Sāmoa soka au, ইংরেজি: Samoa national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে সামোয়ার প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম সামোয়ার ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা সামোয়া ফুটবল ফেডারেশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৮৬ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং একই বছর হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা ওশেনিয়া ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯৭৯ সালের ৩১শে আগস্ট তারিখে, সামোয়া প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; ফিজিতে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে সামোয়া সলোমন দ্বীপপুঞ্জের কাছে ১২–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

৩,৫০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট আপিয়া জাতীয় ফুটবল স্টেডিয়ামে মানুমেয়া নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় সামোয়ার রাজধানী আপিয়ায় অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন স্কট ইস্টহোপ এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন কুপে ও লে সোয়াঙ্গার রক্ষণভাগের খেলোয়াড় অ্যান্ড্রু স্টেফানো

সামোয়া এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, ওএফসি নেশন্স কাপে সামোয়া এপর্যন্ত ২ বার অংশগ্রহণ করেছে, যার প্রত্যেক বার তারা শুধুমাত্র গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণ করেছে।

দেসমঁদ ফাইয়াসো, লিওনেল টেইলর, অ্যান্ড্রু স্টেফানো, জুনিয়র মাইকেল এবং ভিতো লালোয়াতার মতো খেলোয়াড়গণ সামোয়ার জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০০৭ সালের ডিসেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে সামোয়া তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (১৪৬তম) অর্জন করে এবং ২০১১ সালের নভেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ২০৪তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে সামোয়ার সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ১৮২তম (যা তারা ১৯৭৯ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ২২৪। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৯২ অপরিবর্তিত  মার্কিন সামোয়া ৯০০
১৯৩ অপরিবর্তিত  কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ ৮৯৭
১৯৪ অপরিবর্তিত  সামোয়া ৮৯৪
১৯৫ অপরিবর্তিত  জিব্রাল্টার ৮৮৮
১৯৬ অপরিবর্তিত  বাহামা দ্বীপপুঞ্জ ৮৮০
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
১ এপ্রিল ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
২২১ অপরিবর্তিত  লাওস ৬৯০
২২২ অপরিবর্তিত  কুক দ্বীপপুঞ্জ ৬৮৭
২২৩ অপরিবর্তিত  সামোয়া ৬৮০
২২৪ অপরিবর্তিত  সাঁ পিয়ের ও মিক‌লোঁ ৬৭৭
২২৫ অপরিবর্তিত  শ্রীলঙ্কা ৬৫৮

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮
স্পেন ১৯৮২
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ প্রত্যাহার প্রত্যাহার
ফ্রান্স ১৯৯৮ উত্তীর্ণ হয়নি
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ১৮
জার্মানি ২০০৬ ১১
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০
ব্রাজিল ২০১৪ ২৭
রাশিয়া ২০১৮ ২২
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ২৬ ১৬ ৩৭ ৮৮

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ১ এপ্রিল ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১ এপ্রিল ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]