বিষয়বস্তুতে চলুন

গুয়াতেমালা জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গুয়াতেমালা
দলের লোগো
ডাকনামলস চাপিনেস
লা বিকলর
লা ফুরিয়া আসুল
অ্যাসোসিয়েশনগুয়াতেমালা জাতীয় ফুটবল ফেডারেশন
কনফেডারেশনকনকাকাফ (উত্তর আমেরিকা)
প্রধান কোচআমারিনি বিয়াতোরো[১]
অধিনায়করিকার্দো হেরেস জুনিয়র
সর্বাধিক ম্যাচকার্লোস রুইস (১৩৩)[২]
শীর্ষ গোলদাতাকার্লোস রুইস (৬৮)
মাঠদোরোতেও গুয়ামুচ ফ্লোরেস স্টেডিয়াম
ফিফা কোডGUA
ওয়েবসাইটwww.fedefutguate.org
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১০৮ অপরিবর্তিত (২১ ডিসেম্বর ২০২৩)[৩]
সর্বোচ্চ৫০ (আগস্ট ২০০৬)
সর্বনিম্ন১৬৩ (নভেম্বর ১৯৯৫)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৮০ বৃদ্ধি ১০ (১২ জানুয়ারি ২০২৪)[৪]
সর্বোচ্চ৪০ (এপ্রিল ১৯৭২)
সর্বনিম্ন১০৫ (ফেব্রুয়ারি ২০১০)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 গুয়াতেমালা ১০–১ হন্ডুরাস 
(গুয়াতেমালা সিটি, গুয়াতেমালা; ১৪ সেপ্টেম্বর ১৯২১)
বৃহত্তম জয়
 গুয়াতেমালা ১০–০ অ্যাঙ্গুইলা 
(গুয়াতেমালা সিটি, গুয়াতেমালা; ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯)
বৃহত্তম পরাজয়
 কোস্টা রিকা ৯–১ গুয়াতেমালা 
(সান হোসে, কোস্টা রিকা; ২৪ জুলাই ১৯৫৫)
কনকাকাফ গোল্ড কাপ
অংশগ্রহণ১৮ (১৯৬৩-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যচ্যাম্পিয়ন (১৯৬৭)

গুয়াতেমালা জাতীয় ফুটবল দল (স্পেনীয়: Selección de fútbol de Guatemala) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে গুয়াতেমালার প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম গুয়াতেমালার ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা গুয়াতেমালা জাতীয় ফুটবল ফেডারেশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৪৬ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৬১ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা কনকাকাফের সদস্য হিসেবে রয়েছে।[৫] ১৯২১ সালের ১৪ই সেপ্টেম্বর তারিখে, গুয়াতেমালা প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; গুয়াতেমালার গুয়াতেমালা সিটিতে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে গুয়াতেমালা হন্ডুরাসকে ১০–১ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছে।

২৬,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট দোরোতেও গুয়ামুচ ফ্লোরেস স্টেডিয়ামে লস চাপিনেস নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় গুয়াতেমালার রাজধানী গুয়াতেমালা সিটিতে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন আমারিনি বিয়াতোরো এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন আলিয়ান্সা পেত্রোলেরার গোলরক্ষক রিকার্দো হেরেস জুনিয়র

গুয়াতেমালা এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, কনকাকাফ গোল্ড কাপে গুয়াতেমালা অন্যতম সফল দল, যেখানে তারা ১টি (১৯৬৭) শিরোপা জয়লাভ করেছে।

কার্লোস রুইস, গুইয়ের্মো রামিরেস, গুস্তাবো আদোলফো কাব্রেরা, হুয়ান কার্লোস প্লাতা এবং ফ্রেদি গার্সিয়ার মতো খেলোয়াড়গণ গুয়াতেমালার জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০০৬ সালের আগস্ট মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে গুয়াতেমালা তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (৫০তম) অর্জন করে এবং ১৯৯৫ সালের নভেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১৬৩তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে গুয়াতেমালার সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ৪০তম (যা তারা ১৯৭২ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১০৫। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
২১ ডিসেম্বর ২০২৩ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[৩]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১০৬ অপরিবর্তিত  তাজিকিস্তান ১১৯৫.০৭
১০৭ অপরিবর্তিত  লেবানন ১১৯২.৫৮
১০৮ অপরিবর্তিত  গুয়াতেমালা ১১৮৯.৯৮
১০৯ অপরিবর্তিত  মাদাগাস্কার ১১৮৭.৬৩
১১০ অপরিবর্তিত  কেনিয়া ১১৮১.৯২
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
১২ জানুয়ারি ২০২৪ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[৪]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৭৮ বৃদ্ধি ২০  আজারবাইজান ১৪৯৮
৭৯ হ্রাস  হাইতি ১৪৯৭
৮০ বৃদ্ধি  জাম্বিয়া ১৪৯৪
৮০ বৃদ্ধি ১০  গুয়াতেমালা ১৪৯৪
৮২ হ্রাস ১০  উত্তর আয়ারল্যান্ড ১৪৯১

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ ফিফার সদস্য ছিল না ফিফার সদস্য ছিল না
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮ উত্তীর্ণ হয়নি ১২
চিলি ১৯৬২ ১০
ইংল্যান্ড ১৯৬৬ প্রত্যাখ্যান প্রত্যাখ্যান
মেক্সিকো ১৯৭০ উত্তীর্ণ হয়নি
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ ১১ ২৩ ১৬
স্পেন ১৯৮২ ১০
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০ ১০ ১০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪
ফ্রান্স ১৯৯৮
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ১৩ ২৩ ১৫
জার্মানি ২০০৬ ১৮ ২৭ ২৯
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ ১৫
ব্রাজিল ২০১৪ ১২ ২৮ ১১
রাশিয়া ২০১৮ ১০ ২১ ১২
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ১২২ ৪৯ ৩১ ৪২ ১৯১ ১৪৮

অর্জন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Guatemala - Association Information"FIFA.com। Fédération Internationale de Football Association। ১৩ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ নভেম্বর ২০১৮ 
  2. Guatemala – Record International Players RSSSF
  3. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ২১ ডিসেম্বর ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০২৩ 
  4. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ১২ জানুয়ারি ২০২৪। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০২৪ 
  5. "Ramón Coll, electo Presidente de la Confederación de Futbol de América del Norte, América Central y el Caribe"La Nación (Google News Archive)। ২৩ সেপ্টেম্বর ১৯৬১। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]