জিম্বাবুয়ে জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জিম্বাবুয়ে
দলের লোগো
ডাকনামযোদ্ধা
অ্যাসোসিয়েশনজিম্বাবুয়ে ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনক্যাফ (আফ্রিকা)
প্রধান কোচজ্রাভকো লোগারুশিচ
অধিনায়কনলেজ মুসোনা
সর্বাধিক ম্যাচপিটার এনদলোভু (১০০)
শীর্ষ গোলদাতাপিটার এনদলোভু (৩৭)
মাঠবিভিন্ন
ফিফা কোডZIM
ওয়েবসাইটzifa.org.zw
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১০৭ অপরিবর্তিত (২৭ মে ২০২১)[১]
সর্বোচ্চ৪০ (এপ্রিল ১৯৯৫)
সর্বনিম্ন১৩১ (অক্টোবর ২০০৯, ফেব্রুয়ারি–মার্চ ২০১৬)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১০২ বৃদ্ধি(২ জুন ২০২১)[২]
সর্বোচ্চ৫৬ (এপ্রিল ১৯৯৫)
সর্বনিম্ন১২৮ (মার্চ ২০১১)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
দক্ষিণ রোডেশিয়া দক্ষিণ রোডেশিয়া ০–৪ ইংল্যান্ড ইংল্যান্ড
(সালিসবারি, রোডেশিয়া; ২৬ জুন ১৯২৯)
বৃহত্তম জয়
 বতসোয়ানা ০–৭ জিম্বাবুয়ে
(গাবোরনি, বতসোয়ানা; ২৬ আগস্ট ১৯৯০)
বৃহত্তম পরাজয়
 দক্ষিণ আফ্রিকা ৭–০ রোডেশিয়া রোডেশিয়া
(দক্ষিণা আফ্রিকা; ৯ এপ্রিল ১৯৭৭)
আফ্রিকা কাপ অফ নেশন্স
অংশগ্রহণ৪ (২০০৪-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যগ্রুপ পর্ব (২০০৪, ২০০৬, ২০১৭, ২০১৯)

জিম্বাবুয়ে জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Zimbabwe national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে জিম্বাবুয়ের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম জিম্বাবুয়ের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা জিম্বাবুয়ে ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৬৫ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৮০ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা আফ্রিকান ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯২৯ সালের ২৬শে জুন তারিখে, জিম্বাবুয়ে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; রোডেশিয়ার সালিসবারিতে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে জিম্বাবুয়ে দক্ষিণ রোডেশিয়া হিসেবে ইংল্যান্ডের কাছে ৪–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

যোদ্ধা নামে পরিচিত এই দলটি বেশ কয়েকটি স্টেডিয়ামে তাদের হোম ম্যাচগুলো আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় জিম্বাবুয়ের রাজধানী হারারেতে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন জ্রাভকো লোগারুশিচ এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন ইউপেনে আক্রমণভাগের খেলোয়াড় নলেজ মুসোনা

জিম্বাবুয়ে এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, আফ্রিকা কাপ অফ নেশন্সে জিম্বাবুয়ে এপর্যন্ত ৪ বার অংশগ্রহণ করেছে, যেখানে প্রত্যেকবার তারা শুধুমাত্র গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণ করতে সক্ষম হয়েছে।

পিটার এনদলোভু, নরমান মাপেজা, তিনাশে নেঙ্গোমাশা, নলেজ মুসোনা এবং খামা বিল্লিয়াতের মতো খেলোয়াড়গণ জিম্বাবুয়ের জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ১৯৯৫ সালের এপ্রিল মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে জিম্বাবুয়ে তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (৪০তম) অর্জন করে এবং ২০০৯ সালের অক্টোবর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১৩১তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে জিম্বাবুয়ের সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ৫৬তম (যা তারা ১৯৯৫ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১২৮। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
২৭ মে ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১০৫ অপরিবর্তিত  ভারত ১১৮৪.৩৬
১০৬ অপরিবর্তিত  থাইল্যান্ড ১১৭৮.০৭
১০৭ অপরিবর্তিত  জিম্বাবুয়ে ১১৭৫.৫
১০৮ অপরিবর্তিত  গিনি-বিসাউ ১১৭১.১৯
১০৯ অপরিবর্তিত  উত্তর কোরিয়া ১১৬৯.৯৬
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
২ জুন ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১০০ বৃদ্ধি  ফিলিস্তিন ১৪১১
১০১ বৃদ্ধি  ভিয়েতনাম ১৪১০
১০২ বৃদ্ধি  জিম্বাবুয়ে ১৪০৪
১০৩ বৃদ্ধি  কেনিয়া ১৩৯১
১০৩ বৃদ্ধি ১৯  লুক্সেমবুর্গ ১৩৯১

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০ উত্তীর্ণ হয়নি উত্তীর্ণ হয়নি
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
স্পেন ১৯৮২ উত্তীর্ণ হয়নি
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০ ১০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ ১০ ১১ ১০
ফ্রান্স ১৯৯৮ ১০ ১০
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ১১
জার্মানি ২০০৬ ১২ ১৭ ১৬
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০
ব্রাজিল ২০১৪
রাশিয়া ২০১৮ বহিষ্কার[৩] বহিষ্কার
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ৫৮ ২১ ১৬ ২৩ ৬০ ৭১

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ২৭ মে ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২১ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ২ জুন ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২১ 
  3. "Zimbabwe expelled from the preliminary competition of the 2018 FIFA World Cup Russia"। FIFA.com। ১২ মার্চ ২০১৫। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]