গায়ানা জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গায়ানা
ডাকনামসোনালি জাগুয়ার
অ্যাসোসিয়েশনগায়ানা ফুটবল ফেডারেশন
কনফেডারেশনকনকাকাফ (উত্তর আমেরিকা)
প্রধান কোচমার্সিও মাক্সিমো
অধিনায়কসামুয়েল পিটার কক্স
সর্বাধিক ম্যাচচার্লস পোলার্ড (৮০)
শীর্ষ গোলদাতাগ্রেগরি রিচার্ডসন (১৮)
মাঠপ্রভিডেন্স স্টেডিয়াম
ফিফা কোডGUY
ওয়েবসাইটwww.guyanafootball.org
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৬৫ অপরিবর্তিত (২৭ মে ২০২১)[১]
সর্বোচ্চ৮৬ (নভেম্বর ২০১০)
সর্বনিম্ন১৮৫ (ফেব্রুয়ারি ২০০৪)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৫৭ হ্রাস(২ জুন ২০২১)[২]
সর্বোচ্চ৮৬ (এপ্রিল ১৯৮০)
সর্বনিম্ন১৮৩ (এপ্রিল ১৯৯৬)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 ব্রিটিশ গায়ানা ১–৪ ত্রিনিদাদ ও টোবাগো 
(ব্রিটিশ গায়ানা; ২১ জুলাই ১৯০৫)[৩]
বৃহত্তম জয়
 গায়ানা ১৪–০ অ্যাঙ্গুইলা 
(সেন্ট জন'স, অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা; ১৬ এপ্রিল ১৯৯৮)
বৃহত্তম পরাজয়
 মেক্সিকো ৯–০ গায়ানা 
(স্যান্টা অ্যানা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র; ২ ডিসেম্বর ১৯৮৭)
কনকাকাফ গোল্ড কাপ
অংশগ্রহণ১ (২০১৯-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যগ্রুপ পর্ব (২০১৯)

গায়ানা জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Guyana national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে গায়ানার প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম গায়ানার ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা গায়ানা ফুটবল ফেডারেশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৭০ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৬১ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা কনকাকাফের সদস্য হিসেবে রয়েছে।[৪] ১৯০৫ সালের ২১শে জুলাই তারিখে, গায়ানা প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; ব্রিটিশ গায়ানায় অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে গায়ানা ত্রিনিদাদ ও টোবাগোর কাছে ৪–১ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

১৫,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে সোনালি জাগুয়ার নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় গায়ানার রাজধানী জর্জটাউনে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন মার্সিও মাক্সিমো এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন হ্যাম্পটন অ্যান্ড রিচমন্ড বরোর রক্ষণভাগের খেলোয়াড় সামুয়েল পিটার কক্স

গায়ানা এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, কনকাকাফ গোল্ড কাপে গায়ানা এপর্যন্ত মাত্র ১ বার অংশগ্রহণ করেছে, যেখানে তারা শুধুমাত্র গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণ করতে সক্ষম হয়েছে।

ওয়াল্টার মুর, অ্যান্থনি অ্যাব্রামস, চার্লস পোলার্ড, গ্রেগরি রিচার্ডসন এবং নাইজেল কড্রিংটনের মতো খেলোয়াড়গণ গায়ানার জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০১০ সালের নভেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে গায়ানা তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (৮৬তম) অর্জন করে এবং ২০০৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১৮৫তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে গায়ানার সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ৮৬তম (যা তারা ১৯৮০ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১৮৩। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
২৭ মে ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৬৩ অপরিবর্তিত  ফিজি ৯৯৬.২৭
১৬৪ অপরিবর্তিত  ভানুয়াতু ৯৯৫.৬২
১৬৫ অপরিবর্তিত  গায়ানা ৯৯০.৬৫
১৬৬ অপরিবর্তিত  পাপুয়া নিউগিনি ৯৯০.৫৫
১৬৭ অপরিবর্তিত  সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন দ্বীপপুঞ্জ ৯৮৯.৩২
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
২ জুন ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৫৫ বৃদ্ধি  নিকারাগুয়া ১২১৬
১৫৬ হ্রাস  গুয়াদলুপ ১২০৯
১৫৭ হ্রাস ১০  মলদোভা ১২০৮
১৫৭ হ্রাস  গায়ানা ১২০৮
১৫৯ হ্রাস  গ্রেনাডা ১২০৭
১৫৯ হ্রাস  ইয়েমেন ১২০৭

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ ফিফার সদস্য ছিল না ফিফার সদস্য ছিল না
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ উত্তীর্ণ হয়নি
স্পেন ১৯৮২ ১৩
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪
ফ্রান্স ১৯৯৮
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ফিফা দ্বারা বহিষ্কৃত ফিফা দ্বারা বহিষ্কৃত
জার্মানি ২০০৬ উত্তীর্ণ হয়নি
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০
ব্রাজিল ২০১৪ ১২ ১৪ ৩০
রাশিয়া ২০১৮
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ৩৪ ২১ ৩৬ ৮১

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ২৭ মে ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মে ২০২১ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ২ জুন ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২১ 
  3. "Trinidad and Tobago – List of International Matches"Rsssf.com 
  4. "GUYANA"। সংগ্রহের তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]