জ্যামাইকা জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জ্যামাইকা
দলের লোগো
ডাকনামরেগে বয়েজ (বেগে বালক)
অ্যাসোসিয়েশনজ্যামাইকা ফুটবল ফেডারেশন
কনফেডারেশনকনকাকাফ (উত্তর আমেরিকা)
প্রধান কোচথিওডোর ওয়াইটমোর
অধিনায়কআন্দ্রে ব্লেক
সর্বাধিক ম্যাচইয়ান গুডিসন (১২৮)
শীর্ষ গোলদাতালুটন শেল্টন (৩৫)
মাঠজ্যামাইকা স্বাধীনতা স্টেডিয়াম
ফিফা কোডJAM
ওয়েবসাইটwww.jff.live
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৬৪ হ্রাস ২ (৩১ মার্চ ২০২২)[১]
সর্বোচ্চ২৭ (আগস্ট ১৯৯৮)
সর্বনিম্ন১১৬ (অক্টোবর ২০০৮)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৭৫ হ্রাস ১০ (৩০ এপ্রিল ২০২২)[২]
সর্বোচ্চ৩৮ (ফেব্রুয়ারি ১৯৯৮)
সর্বনিম্ন১২৬ (এপ্রিল ১৯৮৪)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 হাইতি ১–২ জ্যামাইকা 
(পর্তোপ্রাঁস, হাইতি;[৩] ২২ মার্চ ১৯২৫)
বৃহত্তম জয়
 জ্যামাইকা ১২–০ ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ 
(গ্র্যান্ড কেইম্যান, কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ; ৪ মার্চ ১৯৯৪)
 জ্যামাইকা ১২–০ সেন্ট মার্টিন 
(কিংস্টন, জ্যামাইকা; ২৪ নভেম্বর ২০০৪)
বৃহত্তম পরাজয়
 কোস্টা রিকা ৯–০ জ্যামাইকা 
(স্যান হোসে, কোস্টা রিকা; ২৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৯)
বিশ্বকাপ
অংশগ্রহণ১ (১৯৯৮-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যগ্রুপ পর্ব (১৯৯৮)
কনকাকাফ গোল্ড কাপ
অংশগ্রহণ১৩ (১৯৬৩-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যরানার-আপ (২০১৫, ২০১৭)
কোপা আমেরিকা
অংশগ্রহণ২ (২০১৫-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যগ্রুপ পর্ব (২০১৫, ২০১৬)

জ্যামাইকা জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Jamaica national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে জ্যামাইকার প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম জ্যামাইকার ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা জ্যামাইকা ফুটবল ফেডারেশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৬২ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৬৩ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা কনকাকাফের সদস্য হিসেবে রয়েছে।[৪] ১৯২৫ সালের ২২শে মার্চ তারিখে, জ্যামাইকা প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; হাইতির পর্তোপ্রাঁসে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে জ্যামাইকা হাইতিকে ২–১ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছিল।

৩৫,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট জ্যামাইকা স্বাধীনতা স্টেডিয়ামে রেগে বয়েজ নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় জ্যামাইকার রাজধানী কিংস্টনে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন থিওডোর ওয়াইটমোর এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন ফিলাডেলফিয়া ইউনিয়নের গোলরক্ষক আন্দ্রে ব্লেক

জ্যামাইকা এপর্যন্ত মাত্র ১ বার ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেছে, যেখানে তাদের সাফল্য হচ্ছে ১৯৯৮ ফিফা বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণ করা। অন্যদিকে, কনকাকাফ গোল্ড কাপে জ্যামাইকা এপর্যন্ত ১৩ বার অংশগ্রহণ করেছে, যার মধ্যে সেরা সাফল্য হচ্ছে ২০১৫ এবং ২০১৭ কনকাকাফ গোল্ড কাপের ফাইনালে পৌঁছানো।

ইয়ান গুডিসন, রিকার্ডো গার্ডনার, থিওডোর ওয়াইটমোর, লুটন শেল্টন এবং ড্যারেন ম্যাটকসের মতো খেলোয়াড়গণ জ্যামাইকার জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ১৯৯৮ সালের আগস্ট মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে জ্যামাইকা তাদের ইতিহাসে সর্বপ্রথম সর্বোচ্চ অবস্থান (২৭তম) অর্জন করে এবং ২০০৮ সালের অক্টোবর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১১৬তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে জ্যামাইকার সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ৩৮তম (যা তারা ১৯৯৮ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১২৬। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
৩১ মার্চ ২০২২ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৬২ বৃদ্ধি  উত্তর মেসিডোনিয়া ১৩৮১.০৭
৬৩ হ্রাস  আইসল্যান্ড ১৩৮০.৮৫
৬৪ হ্রাস  জ্যামাইকা ১৩৭৮.৭৫
৬৫ হ্রাস  স্লোভেনিয়া ১৩৭৮.২৩
৬৬ হ্রাস  আলবেনিয়া ১৩৭১.৮৬
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
৩০ এপ্রিল ২০২২ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৭৪ হ্রাস ১৬  আইসল্যান্ড ১৫৪০
৭৫ হ্রাস ১০  জ্যামাইকা ১৫৩৫
৭৬ হ্রাস  মন্টিনিগ্রো ১৫১৮
৭৭ বৃদ্ধি ১৯  সংযুক্ত আরব আমিরাত ১৫১৫
৭৭ হ্রাস ১০  হাইতি ১৫১৫

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি প্রত্যাখ্যান
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬ উত্তীর্ণ হয়নি ১১
মেক্সিকো ১৯৭০ ১১
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪ প্রত্যাহার প্রত্যাহার
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ উত্তীর্ণ হয়নি
স্পেন ১৯৮২ অংশগ্রহণ করেনি প্রত্যাখ্যান
মেক্সিকো ১৯৮৬ প্রত্যাহার প্রত্যাহার
ইতালি ১৯৯০ উত্তীর্ণ হয়নি
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ ১১
ফ্রান্স ১৯৯৮ গ্রুপ পর্ব ২২তম ২০ ১১ ২৪ ১৫
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ উত্তীর্ণ হয়নি ১৬ ১৪ ১৮
জার্মানি ২০০৬ ১১
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ ১৯
ব্রাজিল ২০১৪ ১৬ ১৪ ১৯
রাশিয়া ২০১৮ ২১
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট গ্রুপ পর্ব ১/২১ ১০২ ৩৫ ২৮ ৩৯ ১১২ ১৩৯

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ৩১ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০২২ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ৩০ এপ্রিল ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০২২ 
  3. Courtney, Barrie, সম্পাদক (৫ নভেম্বর ২০১৪)। "Caribbean Tour Matches 1925–1969"। RSSSF। ২৩ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ নভেম্বর ২০১৮ 
  4. "Abrahams, Hill off to soccer meet today"Kingston Gleaner in newspaperarchive.com। ১৫ মার্চ ১৯৬৩। 
    "Jamaica under the sponsorship of Haiti and the Antilles gained membership last month."

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]