বার্বাডোস জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বার্বাডোস
ডাকনামবাজান ট্রাইডেন্টস
অ্যাসোসিয়েশনবার্বাডোস ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনকনকাকাফ (উত্তর আমেরিকা)
প্রধান কোচরাসেল লাতাপি[১]
অধিনায়করাশাদ জুলস
সর্বাধিক ম্যাচনরম্যান ফোর্ড (৭০)
শীর্ষ গোলদাতালেওয়েলিন রাইলি (২৩)[২]
মাঠবার্বাডোস জাতীয় স্টেডিয়াম
ফিফা কোডBRB
ওয়েবসাইটwww.barbadosfa.com
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৬২ অপরিবর্তিত (১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১)[৩]
সর্বোচ্চ৯২ (অক্টোবর ২০০৯)
সর্বনিম্ন১৮১ (জুলাই ২০১৭)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৮১ হ্রাস ১ (১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১)[৪]
সর্বোচ্চ১০৬ (জুলাই ২০০০)
সর্বনিম্ন১৮১ (নভেম্বর ২০১৯)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 বার্বাডোস ৩–০ ত্রিনিদাদ ও টোবাগো 
(বার্বাডোস; ২০ এপ্রিল ১৯২৯)
বৃহত্তম জয়
 বার্বাডোস ৭–১ অ্যাঙ্গুইলা 
(সেন্ট জন'স, অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা; ২৪ সেপ্টেম্বর ২০০৬)
বৃহত্তম পরাজয়
 ব্রিটিশ গায়ানা ৯–০ বার্বাডোস 
(ব্রিটিশ গায়ানা; মার্চ ১৯৩১)

বার্বাডোস জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Barbados national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে বার্বাডোসের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম বার্বাডোসের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বার্বাডোস ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৬৮ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৬৭ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা কনকাকাফের সদস্য হিসেবে রয়েছে।[৫][৬] ১৯২৯ সালের ২০শে এপ্রিল তারিখে, বার্বাডোস প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; বার্বাডোসে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে বার্বাডোস ত্রিনিদাদ ও টোবাগোকে ৩–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছে।

১৫,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট বার্বাডোস জাতীয় স্টেডিয়ামে বাজান ট্রাইডেন্টস নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় বার্বাডোসের রাজধানী ব্রিজটাউনে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন রাসেল লাতাপি এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন কেমি সিটির মধ্যমাঠের খেলোয়াড় রাশাদ জুলস

বার্বাডোস এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, কনকাকাফ গোল্ড কাপেও বার্বাডোস এপর্যন্ত একবারও অংশগ্রহণ করতে সক্ষম হয়নি।

নরম্যান ফোর্ড, জন প্যারিস, মারিও হার্তে, জেফ উইলিয়ামস এবং লেওয়েলিন রাইলির মতো খেলোয়াড়গণ বার্বাডোসের জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০০৯ সালের অক্টোবর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে বার্বাডোস তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (৯২তম) অর্জন করে এবং ২০১৭ সালের জুলাই মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১৮১তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে বার্বাডোসের সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ১০৬তম (যা তারা ২০০০ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১৮১। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[৩]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৬০ অপরিবর্তিত  সিঙ্গাপুর ১০০০.৩৫
১৬১ অপরিবর্তিত  ফিজি ৯৯৬.২৭
১৬২ অপরিবর্তিত  বার্বাডোস ৯৯৫.৯৪
১৬৩ অপরিবর্তিত  ভানুয়াতু ৯৯৫.৬২
১৬৪ অপরিবর্তিত  পাপুয়া নিউগিনি ৯৯০.৫৫
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[৪]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
১৭৯ অপরিবর্তিত  ইন্দোনেশিয়া ১১০০
১৮০ বৃদ্ধি  দক্ষিণ সুদান ১০৮২
১৮১ হ্রাস  বার্বাডোস ১০৮০
১৮২ বৃদ্ধি  জিব্রাল্টার ১০৭৬
১৮৩ হ্রাস  সাঁউ তুমি ও প্রিন্সিপি ১০৬৭

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অংশ ছিল ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের অংশ ছিল
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ উত্তীর্ণ হয়নি
স্পেন ১৯৮২ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
মেক্সিকো ১৯৮৬ প্রত্যাহার প্রত্যাহার
ইতালি ১৯৯০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ উত্তীর্ণ হয়নি
ফ্রান্স ১৯৯৮
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ১২ ১৭ ২৭
জার্মানি ২০০৬
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ ১০
ব্রাজিল ২০১৪ ১৪
রাশিয়া ২০১৮ অযোগ্য ঘোষিত[৭]
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ৩৭ ১০ ২৩ ৩৪ ৭৩

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Barbados - Association Information"FIFA.com। Fédération Internationale de Football Association। সংগ্রহের তারিখ ৩ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  2. "Llewellyn Riley"www.soccer-db.info। সংগ্রহের তারিখ ২০ আগস্ট ২০১৮ 
  3. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  4. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  5. March 2, 1967: the additions of federations from Bermuda and Barbados as full members of CONCACAF. "This Week in CONCACAF History: March 1–5"। CONCACAF.com (2011)। ৯ মার্চ ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ আগস্ট ২০১৬ 
  6. "5000 dólares de multa y un año de suspensión a Costa Rica acordó el congreso de CONCACAF"La Nación (Google News Archive)। ৪ মার্চ ১৯৬৭। 
  7. "Barbados sanctioned for fielding ineligible player"। FIFA। ২৯ জুন ২০১৫। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]