জর্জিয়া জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জর্জিয়া
দলের লোগো
ডাকনামჯვაროსნები (ক্রুসেড)
অ্যাসোসিয়েশনজর্জীয় ফুটবল ফেডারেশন
কনফেডারেশনউয়েফা (ইউরোপ)
প্রধান কোচশোতা আর্ভেলাদজে
অধিনায়কজাবা কাঙ্কাভা
সর্বাধিক ম্যাচলেভান কোভবিয়াশভিলি (১০০)
শীর্ষ গোলদাতাশোতা আর্ভেলাদজে (২৬)
মাঠবরিস পাইচাদজে দিনামো এরিনা
ফিফা কোডGEO
ওয়েবসাইটwww.gff.ge
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৯১ হ্রাস(৭ এপ্রিল ২০২১)[১]
সর্বোচ্চ৪২ (সেপ্টেম্বর ১৯৯৮)
সর্বনিম্ন১৫৬ (মার্চ ১৯৯৪)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৭৬ হ্রাস(২৪ এপ্রিল ২০২১)[২]
সর্বোচ্চ৪৯ (অক্টোবর ১৯৯৫)
সর্বনিম্ন১০৮ (মার্চ ২০১৬)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 জর্জিয়া ২–২ লিথুয়ানিয়া 
(তিবি‌লিসি, জর্জিয়া; ২৭ মে ১৯৯০)
বৃহত্তম জয়
 জর্জিয়া ৭–০ আর্মেনিয়া 
(তিবি‌লিসি, জর্জিয়া; ৩০ মার্চ ১৯৯৭)
বৃহত্তম পরাজয়
 রোমানিয়া ৫–০ জর্জিয়া 
(বুখারেস্ট, রোমানিয়া; ২৪ এপ্রিল ১৯৯৬)
 ডেনমার্ক ৬–১ জর্জিয়া 
(কোপেনহেগেন, ডেনমার্ক; ৭ সেপ্টেম্বর ২০০৫)

জর্জিয়া জাতীয় ফুটবল দল (জর্জীয়: საქართველოს ეროვნული საფეხბურთო ნაკრები, ইংরেজি: Georgia national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে জর্জিয়ার প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম জর্জিয়ার ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা জর্জীয় ফুটবল ফেডারেশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৯২ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং একই সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা উয়েফার সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯৯০ সালের ২৭শে মে তারিখে, জর্জিয়া প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; জর্জিয়ার তিবি‌লিসিতে অনুষ্ঠিত জর্জিয়া এবং লিথুয়ানিয়ার মধ্যকার উক্ত ম্যাচটি ২–২ গোলে ড্র হয়েছে।

৫৪,২০২ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট বরিস পাইচাদজে দিনামো এরিনাে জভারোসনেবি নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় জর্জিয়ার রাজধানী তিবিলিসিতে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন শোতা আর্ভেলাদজে এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন তোবোলের মধ্যমাঠের খেলোয়াড় জাবা কাঙ্কাভা

জর্জিয়া এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, উয়েফা ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপেও জর্জিয়া এপর্যন্ত একবারও অংশগ্রহণ করতে সক্ষম হয়নি।

লেভান কোভবিয়াশভিলি, জুরাব খিজানিশভিলি, জাবা কাঙ্কাভা, শোতা আর্ভেলাদজে এবং তেমুর কেতসবাইয়ার মতো খেলোয়াড়গণ জর্জিয়ার জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ১৯৯৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে জর্জিয়া তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (৪২তম) অর্জন করে এবং ১৯৯৪ সালের মার্চ মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১৫৬তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে জর্জিয়ার সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ৪৯তম (যা তারা ১৯৯৫ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১০৮। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
৭ এপ্রিল ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৮৯ হ্রাস  বেলারুশ ১২৭৬.৭৯
৯০ বৃদ্ধি  আর্মেনিয়া ১২৭৩.২৮
৯১ হ্রাস  জর্জিয়া ১২৫৯.৫১
৯২ বৃদ্ধি  ভিয়েতনাম ১২৫৮.০৬
৯৩ হ্রাস  লেবানন ১২৫৬.০৮
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
২৪ এপ্রিল ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৭৪ বৃদ্ধি  পানামা ১৫৪৪
৭৫ বৃদ্ধি  মন্টিনিগ্রো ১৫৩০
৭৬ হ্রাস  জর্জিয়া ১৫১৩
৭৭ বৃদ্ধি  বেলারুশ ১৫০৭
৭৮ হ্রাস ১২  বুলগেরিয়া ১৪৯৯

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ সোভিয়েত ইউনিয়নের অংশ ছিল সোভিয়েত ইউনিয়নের অংশ ছিল
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮
স্পেন ১৯৮২
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ফ্রান্স ১৯৯৮ উত্তীর্ণ হয়নি
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ১২ ১২
জার্মানি ২০০৬ ১২ ১৪ ২৫
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ ১০ ১৯
ব্রাজিল ২০১৪ ১০
রাশিয়া ২০১৮ ১০ ১৪
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/৮ ৫৬ ১৬ ৩১ ৫১ ৮৯

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ৭ এপ্রিল ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ৭ এপ্রিল ২০২১ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ২৪ এপ্রিল ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২৪ এপ্রিল ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]