কুক দ্বীপপুঞ্জ জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কুক দ্বীপপুঞ্জ
দলের লোগো
ডাকনামসোকা কুকি আইরানি
অ্যাসোসিয়েশনকুক দ্বীপপুঞ্জ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনওএফসি (ওশেনিয়া)
প্রধান কোচকেভিন ফ্যালোন
অধিনায়কজেসন স্টুয়ার্ট
সর্বাধিক ম্যাচটনি জ্যামিসন (২০)
শীর্ষ গোলদাতাটেইলর সাঘাবি (৬)
মাঠআভারুয়া তেরেওরা স্টেডিয়াম
ফিফা কোডCOK
ওয়েবসাইটwww.cookislandsfootball.com
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ১৯০ নতুন প্রবেশ (৩১ মার্চ ২০২২)[১]
সর্বোচ্চ১৬৬ (অক্টোবর ২০১৫)
সর্বনিম্ন২০৭ (এপ্রিল–জুলাই ২০১৫)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ২২০ বৃদ্ধি ২ (৩০ এপ্রিল ২০২২)[২]
সর্বোচ্চ১৭০ (১৯৭১)
সর্বনিম্ন২২৪ (২০১৫)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
ফ্রান্স তাহিতি ৩০–০ কুক দ্বীপপুঞ্জ 
(পাপেতে, তাহিতি; ২ সেপ্টেম্বর ১৯৭১)
বৃহত্তম জয়
 কুক দ্বীপপুঞ্জ ৩–০ মার্কিন সামোয়া 
(পাপেতে, তাহিতি; ১২ জুন ২০০০)
 কুক দ্বীপপুঞ্জ ৪–১ টুভালু 
(আপিয়া, সামোয়া; ১ সেপ্টেম্বর ২০০৭)
 কুক দ্বীপপুঞ্জ ৩–০ কিরিবাস 
(বুলারি, নতুন ক্যালিডোনিয়া; ১ সেপ্টেম্বর ২০১১)
 টোঙ্গা ০–৩ কুক দ্বীপপুঞ্জ 
(নুকু'আলোফা, টোঙ্গা; ৩১ আগস্ট ২০১৫)
বৃহত্তম পরাজয়
ফ্রান্স তাহিতি ৩০–০ কুক দ্বীপপুঞ্জ 
(পাপেতে, তাহিতি; ২ সেপ্টেম্বর ১৯৭১)
ওএফসি নেশন্স কাপ
অংশগ্রহণ২ (১৯৯৮-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যগ্রুপ পর্ব (১৯৯৮, ২০০০)

কুক দ্বীপপুঞ্জ জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Cook Islands national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে কুক দ্বীপপুঞ্জের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম কুক দ্বীপপুঞ্জের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা কুক দ্বীপপুঞ্জ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়।[৩] এই দলটি ১৯৯৪ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং একই বছর হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা ওশেনিয়া ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯৭১ সালের ২রা সেপ্টেম্বর তারিখে, কুক দ্বীপপুঞ্জ প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; তাহিতির পাপেতেতে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে কুক দ্বীপপুঞ্জ তাহিতির কাছে ৩০–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

৫,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট আভারুয়া তেরেওরা স্টেডিয়ামে সোকা কুকি আইরানি নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় কুক দ্বীপপুঞ্জের রারোটোঙ্গায় অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন কেভিন ফ্যালোন এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন তুপাপা মারায়েরেঙ্গার রক্ষণভাগের খেলোয়াড় জেসন স্টুয়ার্ট

কুক দ্বীপপুঞ্জ এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, ওএফসি নেশন্স কাপে কুক দ্বীপপুঞ্জ এপর্যন্ত ২ বার অংশগ্রহণ করেছে, যার প্রত্যেক বার তারা শুধুমাত্র গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণ করেছে।

টনি জ্যামিসন, জন পারেয়াঙ্গা, নিকি তে-মিহা, টেইলর সাঘাবি এবং ক্যাম্পবেল বেস্টের মতো খেলোয়াড়গণ কুক দ্বীপপুঞ্জের জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে কুক দ্বীপপুঞ্জ তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (১৬৬তম) অর্জন করে এবং ২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ২০৭তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে কুক দ্বীপপুঞ্জের সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ১৭০তম (যা তারা ১৯৭১ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ২২৪। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
৩০ এপ্রিল ২০২২ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
২১৮ অপরিবর্তিত  মাকাও ৬৯৬
২১৯ বৃদ্ধি   ভ্যাটিকান সিটি ৬৯২
২২০ বৃদ্ধি  কুক দ্বীপপুঞ্জ ৬৮৩
২২১ বৃদ্ধি  সামোয়া ৬৭৯
২২২ বৃদ্ধি  শ্রীলঙ্কা ৬৭৭
২২২ বৃদ্ধি  সাঁ পিয়ের ও মিক‌লোঁ ৬৭৭

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮
স্পেন ১৯৮২
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪
ফ্রান্স ১৯৯৮ উত্তীর্ণ হয়নি
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ২৫
জার্মানি ২০০৬ ১৭
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০
ব্রাজিল ২০১৪
রাশিয়া ২০১৮
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ২০ ১৬ ১৬ ৬৩

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ৩১ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০২২ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ৩০ এপ্রিল ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০২২ 
  3. "About Cook Islands Football Association"। CIFA। ২৭ জুলাই ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুন ২০১৪ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]