জাম্বিয়া জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
জাম্বিয়া
দলের লোগো
ডাকনামচিপোলোপোলো (কপারের বুলেট)
অ্যাসোসিয়েশনজাম্বিয়া ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনক্যাফ (আফ্রিকা)
প্রধান কোচমিলুতিন স্রেদোয়েভিচ
অধিনায়কআউগুস্তিন মালেঙ্গা
সর্বাধিক ম্যাচকেনেডি মুয়িনি (১২১)
শীর্ষ গোলদাতাগডফ্রি চিতালু (৭৯)
মাঠজাতীয় হিরোজ স্টেডিয়াম
ফিফা কোডZAM
ওয়েবসাইটwww.fazfootball.com
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
তৃতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৮৭ বৃদ্ধি ১ (৩১ মার্চ ২০২২)[১]
সর্বোচ্চ১৫ (ফেব্রুয়ারি – মে ১৯৯৬, আগস্ট ১৯৯৬)
সর্বনিম্ন১০২ (ফেব্রুয়ারি ২০১১)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৯৮ হ্রাস ১৭ (৩০ এপ্রিল ২০২২)[২]
সর্বোচ্চ২৭ (এপ্রিল ১৯৯৪)
সর্বনিম্ন১০৬ (অক্টোবর ২০০৯)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 দক্ষিণ রোডেশিয়া ০–৪ উত্তর রোডেশিয়া উত্তর রোডেসিয়া
(দক্ষিণ রোডেশিয়া; ১৯৪৬)
বৃহত্তম জয়
 জাম্বিয়া ১১–২ সোয়াজিল্যান্ড 
(লুসাকা, জাম্বিয়া; ৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৮)
 জাম্বিয়া ৯–০ কেনিয়া 
(লিলঙ্গোয়ে, মালাউই; ১৩ নভেম্বর ১৯৭৮)
 জাম্বিয়া ৯–০ লেসোথো 
(৮ আগস্ট ১৯৮৮)
বৃহত্তম পরাজয়
 গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র ১০–১ জাম্বিয়া 
(গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র; ২২ নভেম্বর ১৯৬৯)
 বেলজিয়াম ৯–০ জাম্বিয়া 
(ব্রাসেল্‌স, বেলজিয়াম; ৩ জুন ১৯৯৪)
আফ্রিকা কাপ অফ নেশন্স
অংশগ্রহণ১৭ (১৯৭৪-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যচ্যাম্পিয়ন (২০১২)

জাম্বিয়া জাতীয় ফুটবল দল (ইংরেজি: Zambia national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে জাম্বিয়ার প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম জাম্বিয়ার ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা জাম্বিয়া ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৬৪ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং একই সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা আফ্রিকান ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯৪৬ সালে, জাম্বিয়া প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; দক্ষিণ রোডেশিয়ায় অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে জাম্বিয়া উত্তর রোডেশিয়া হিসেবে দক্ষিণ রোডেশিয়াকে ৪–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছে।

৬০,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট জাতীয় হিরোজ স্টেডিয়ামে চিপোলোপোলো নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় জাম্বিয়ার রাজধানী লুসাকায় অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন মিলুতিন স্রেদোয়েভিচ এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন আমাজুলুর আক্রমণভাগের খেলোয়াড় আউগুস্তিন মালেঙ্গা

জাম্বিয়া এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, আফ্রিকা কাপ অফ নেশন্সে জাম্বিয়া অন্যতম সফল দল, যেখানে তারা ১টি (২০১২) শিরোপা জয়লাভ করেছে।

কেনেডি মুয়িনি, রেইনফোর্ড কালাবা, ডেভিড চাবালা, ক্রিস্টোফার কাটোঙ্গো এবং গডফ্রি চিতালুর মতো খেলোয়াড়গণ জাম্বিয়ার জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ১৯৯৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে জাম্বিয়া তাদের ইতিহাসে সর্বপ্রথম সর্বোচ্চ অবস্থান (১৫তম) অর্জন করে এবং ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১০২তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে জাম্বিয়ার সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ২৭তম (যা তারা ১৯৯৪ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১০৬। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
৩১ মার্চ ২০২২ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৮৫ বৃদ্ধি  জর্জিয়া ১২৭৬.৩১
৮৬ হ্রাস  উগান্ডা ১২৭৫.৫
৮৭ বৃদ্ধি  জাম্বিয়া ১২৬৭.০৪
৮৮ বৃদ্ধি  সিরিয়া ১২৬৫.০৩
৮৯ অপরিবর্তিত  বাহরাইন ১২৬২.৫৫
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
৩০ এপ্রিল ২০২২ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৯৬ হ্রাস  উগান্ডা ১৪৩৩
৯৭ বৃদ্ধি  কুর্দিস্তান অঞ্চল ১৪২৪
৯৮ হ্রাস ১৭  জাম্বিয়া ১৪২০
৯৯ হ্রাস  কুরাসাও ১৪০৬
১০০ বৃদ্ধি  ফিলিস্তিন ১৪০১

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০ উত্তীর্ণ হয়নি
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪ ১০ ১৯ ১১
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮
স্পেন ১৯৮২
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ ১৭
ফ্রান্স ১৯৯৮ ১০
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ১০ ১৬ ১১
জার্মানি ২০০৬ ১৩ ২১ ১১
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ ১০
ব্রাজিল ২০১৪ ১১
রাশিয়া ২০১৮ ১১
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ৯৭ ৪৫ ২২ ৩০ ১৪৫ ৮৮

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ৩১ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০২২ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ৩০ এপ্রিল ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০২২ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]