বাহরাইন জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাহরাইন
দলের লোগো
ডাকনামمحاربي ديلمون (দিলমুনের যোদ্ধা)
غواصين اللؤلؤ (মুক্তা ডুবুরি)
الأحمر (লাল)
অ্যাসোসিয়েশনবাহরাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনএএফসি (এশিয়া)
প্রধান কোচএলিও সুসা
অধিনায়কসাঈদ মুহাম্মদ জাফর
সর্বাধিক ম্যাচসালমান ইসা (১৫৬)[১]
শীর্ষ গোলদাতাইসমাইল আব্দুললতিফ (৪২)[১]
মাঠবাহরাইন জাতীয় স্টেডিয়াম
ফিফা কোডBHR
ওয়েবসাইটbfa.bh
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৯১ বৃদ্ধি ৩ (১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১)[২]
সর্বোচ্চ৪৪ (সেপ্টেম্বর ২০০৪)
সর্বনিম্ন১৩৯ (মার্চ ২০০০)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৬৯ বৃদ্ধি ৪ (১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১)[৩]
সর্বোচ্চ৪৯ (সেপ্টেম্বর ২০০০)
সর্বনিম্ন১৩৮ (মার্চ ১৯৭৯)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 বাহরাইন ৪–৪ কুয়েত 
(বাগদাদ, ইরাক; ২ এপ্রিল ১৯৬৬)
বৃহত্তম জয়
 বাহরাইন ১০–০ ইন্দোনেশিয়া 
(রিফফা, বাহরাইন; ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০১২)
বৃহত্তম পরাজয়
 ইরাক ১০–১ বাহরাইন 
(বাগদাদ, ইরাক; ৫ এপ্রিল ১৯৬৬)
এএফসি এশিয়ান কাপ
অংশগ্রহণ৬ (১৯৮৮-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যচতুর্থ স্থান (২০০৪)
ডাব্লিউএএফএফ চ্যাম্পিয়নশিপ
অংশগ্রহণ৪ (২০১০-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যচ্যাম্পিয়ন (২০১৯)

বাহরাইন জাতীয় ফুটবল দল (আরবি: منتخب البحرين لكرة القدم‎‎, ইংরেজি: Bahrain national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে বাহরাইনের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম বাহরাইনের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাহরাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৬৮ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৫৭ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য হিসেবে রয়েছে। ১৯৬৬ সালের ২রা এপ্রিল তারিখে, বাহরাইন প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; ইরাকের বাগদাদে অনুষ্ঠিত বাহরাইন এবং কুয়েতের মধ্যকার উক্ত ম্যাচটি ৪–৪ গোলে ড্র হয়েছে। বাহরাইন হচ্ছে ডাব্লিউএএফএফ চ্যাম্পিয়নশিপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন, যারা ২০১৯ সালে ইরাককে ১–০ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছে।

২৪,০০০ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট বাহরাইন জাতীয় স্টেডিয়ামে মুহরবি দিলমুন নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় বাহরাইনের রাজধানী মানামায় অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন এলিও সুসা এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন আল মুহররকের মধ্যমাঠের খেলোয়াড় সাঈদ মুহাম্মদ জাফর

বাহরাইন এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। অন্যদিকে, এএফসি এশিয়ান কাপে বাহরাইন এপর্যন্ত ৬ বার অংশগ্রহণ করেছে, যার মধ্যে সেরা সাফল্য হচ্ছে ২০০৪ এএফসি এশিয়ান কাপের চতুর্থ স্থান অর্জন করা, যেখানে তারা ইরানের কাছে ৪–২ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

সাঈদ মুহাম্মদ আব্বাস, মুহাম্মদ হুসাইন, ইসমাইল আব্দুললতিফ, ফাউজি আইশ এবং মুহাম্মদ আল রোমাইহির মতো খেলোয়াড়গণ বাহরাইনের জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০০৪ সালের সেপ্টেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে বাহরাইন তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (৪৪তম) অর্জন করে এবং ২০০০ সালের মার্চ মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১৩৯তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে বাহরাইনের সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ৪৯ম (যা তারা ২০০০ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১৩৮। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৮৯ হ্রাস  আর্মেনিয়া ১২৬২.৪
৯০ হ্রাস  বেলারুশ ১২৫৪.৮১
৯১ বৃদ্ধি  বাহরাইন ১২৫১.৩১
৯২ বৃদ্ধি  কঙ্গো ১২৪৭.৮১
৯৩ বৃদ্ধি  জর্ডান ১২৪৫.৬৪
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[৩]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৬৭ হ্রাস  ক্যামেরুন ১৫৬৪
৬৮ বৃদ্ধি ২২  আর্মেনিয়া ১৫৬৩
৬৯ বৃদ্ধি  বাহরাইন ১৫৫৭
৭০ হ্রাস ২৬  আইসল্যান্ড ১৫৫৫
৭১ বৃদ্ধি  মালি ১৫৫৩

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ অংশগ্রহণ করেনি অংশগ্রহণ করেনি
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ উত্তীর্ণ হয়নি
স্পেন ১৯৮২
মেক্সিকো ১৯৮৬
ইতালি ১৯৯০ প্রত্যাহার প্রত্যাহার
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ উত্তীর্ণ হয়নি
ফ্রান্স ১৯৯৮
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ১৪ ১৭ ১৩
জার্মানি ২০০৬ ১৬ ২১ ১৪
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ ২০ ১৯ ১৭
ব্রাজিল ২০১৪ ১৩
রাশিয়া ২০১৮
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট ০/২১ ৮৬ ৩০ ২৫ ৩১ ১০২ ৯৩

অর্জন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Mamrud, Roberto; Stokkermans, Karel। "Players with 100+ Caps and 30+ International Goals"। RSSSF। ২৮ জুন ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১১ 
  2. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ 
  3. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]