২০২১ ফিফা আরব কাপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
২০২১ ফিফা আরব কাপ
২০২১ ফিফা আরব কাপের লোগো.svg
বিবরণ
স্বাগতিক দেশ কাতার
তারিখ৩০ নভেম্বর – ১৮ ডিসেম্বর ২০২১
দল১৬ (২টি কনফেডারেশন থেকে)
মাঠ৬ (৪টি আয়োজক শহরে)
চূড়ান্ত অবস্থান
চ্যাম্পিয়ন আলজেরিয়া (১ম শিরোপা)
রানার-আপ তিউনিসিয়া
তৃতীয় স্থান কাতার
চতুর্থ স্থান মিশর
পরিসংখ্যান
ম্যাচ৩২
গোল সংখ্যা৮৩ (ম্যাচ প্রতি ২.৫৯টি)
দর্শক সংখ্যা৫,৭১,৬০৫ (ম্যাচ প্রতি ১৭,৮৬৩ জন)
শীর্ষ গোলদাতাতিউনিসিয়া সাইফুদ্দিন জাজিরি
(৪টি গোল)
সেরা খেলোয়াড় ইয়াসিন ব্রাহিমি
সেরা গোলরক্ষক রইস ম'বোলহি
ফেয়ার প্লে পুরষ্কার মরক্কো
২০১২ (আরব কাপ)
সর্বশেষ হালনাগাদ: ১১ ডিসেম্বর ২০২১

২০২১ ফিফা আরব কাপ (আরবি: كأس العرب ٢٠٢١‎, প্রতিবর্ণী. কা'স আল-আরব ২০২১‎, ইংরেজি: 2021 FIFA Arab Cup) হলো ফিফা দ্বারা আয়োজিত আন্তর্জাতিক ফুটবল প্রতিযোগিতা ফিফা আরব কাপের দশম[১] এবং ফিফা আরব কাপ নামে পরিবর্তন করার পর প্রথম আসর,[২] যেখানে আরব বিশ্বের[টীকা ১] ১৬টি জাতীয় ফুটবল দল (পুরুষ) প্রতিযোগিতা করছে।[৩][৪] এই আসরটি ২০২১ সালের ৩০শে নভেম্বর হতে ১৮ই ডিসেম্বর পর্যন্ত কাতারের ৪টি শহরের ৬টি মাঠে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।[৪]

মরক্কো ফিফা আরব কাপের পূর্ববর্তী আসরের চ্যাম্পিয়ন, যারা ২০১২ সালের ফাইনালের অতিরিক্ত সময় শেষে ১–১ গোলে ড্র করার পর পেনাল্টি শুট-আউটে ৩–১ গোলের ব্যবধানে লিবিয়াকে পরাজিত করে প্রথমবারের মতো শিরোপা জয়লাভ করেছে।[৫]

দল[সম্পাদনা]

  ২০২১ ফিফা আরব কাপে সরাসরি উত্তীর্ণ দল
  বাছাইপর্বের মাধ্যমে ২০২১ ফিফা আরব কাপে উত্তীর্ণ দল
  বাছাইপর্বের পর ২০২১ ফিফা আরব কাপে অনুত্তীর্ণ দল
  ইউএএফএ-এর সদস্য নয় এমন দল

ফিফা আরব কাপের এই আসরে স্বাগতিক দেশ কাতারের পাশাপাশি ২০২১ সালের এপ্রিল মাসে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের ভিত্তিতে শীর্ষ ৯টি দল সরাসরি গ্রুপ পর্বে খেলার জন্য উত্তীর্ণ হয়েছে,[৬] যার ফলস্বরূপ আসরের জন্য বিদ্যমান অবশিষ্ট ৭টি অবস্থানের ১৪টি জাতীয় দল সাতটি একক-লেগের ম্যাচে অংশগ্রহণ করেছে, যার মধ্য হতে বিজয়ী সাতটি দল গ্রুপ পর্বের খেলার জন্য উত্তীর্ণ হয়েছে।[৭]

২০২১ সালের এপ্রিল মাসে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের উপর ভিত্তি করে বাছাইপর্বের ১৪টি দলের প্রতিদ্বন্দ্বী নির্ধারণ করা হয়েছিল;[৮] বাছাইপর্বের পূর্বে ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে সর্বোচ্চ অবস্থান অধিকারী দল ওমান সর্বনিম্ন অবস্থান অধিকারী দল সোমালিয়ার মুখোমুখি হয়েছে।[৯] ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ অবস্থান অধিকারী দল লেবানন দ্বিতীয় সর্বনিম্ন অবস্থান অধিকারী দল জিবুতির মুখোমুখি হয়েছে।[৯] যে দলগুলো বাছাইপর্বের প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ম্যাচে জয়লাভ করেছে, তারা পাত্র ৩-এ দ্বিতীয়, তৃতীয় এবং চতুর্থ স্থান দখল করেছে এবং অবশিষ্ট দলগুলোকে পাত্র ৪-এ স্থান দেওয়া হয়েছে।[৮] দক্ষিণ সুদানে মধ্যে কোভিড-১৯ এর মহামারীতে রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে দক্ষিণ সুদান এই আসরের বাছাইপর্বের তাদের ম্যাচটি স্বেচ্ছায় ত্যাগ করেছে।[১০]

দ্রষ্টব্য: বন্ধনীতে এই আসরের ড্রয়ের সময় ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে দলের অবস্থান নির্দেশিত।[১১]

২০২১ সালের এপ্রিল মাস অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১১]
গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণ
(১ম হতে ৯ম স্থান অধিকারী)
বাছাইপর্বে অংশগ্রহণ
(১০ম হতে ২৩তম স্থান অধিকারী)
  1.  কাতার (৫৮) (স্বাগতিক)
  2.  তিউনিসিয়া (২৬)
  3.  আলজেরিয়া (৩৩)
  4.  মরক্কো (৩৪)
  5.  মিশর (৪৬)
  6.  সৌদি আরব (৬৫)
  7.  ইরাক (৬৮)
  8.  সংযুক্ত আরব আমিরাত (৭৩)
  9.  সিরিয়া (৭৯)

ড্র[সম্পাদনা]

২০২১ সালের ২৭শে এপ্রিল তারিখে, কাতারের দোহার কাতারা অপেরা হাউসে ২১:০০টায় (এএসটি) এই আসরের গ্রুপ পর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে।[৬][৯] এই ড্রটি পরিচালনা করেছেন ফিফার প্রতিযোগিতা পরিচালক মানোলো জুবিরিয়া এবং চারজন সাবেক খেলোয়াড়: ওয়ায়েল গোমা (মিশর), নাওয়াফ আল-তিমিয়াত (সৌদি আরব), হাইসাম মুস্তফা (সুদান) এবং ইউনুস মাহমুদ (ইরাক)।[১২]

এই আসরে অংশগ্রহণকারী ১৬টি দলের মধ্যে ১০টি দল এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য এবং অবশিষ্ট ৬টি দল আফ্রিকান ফুটবল কনফেডারেশনের সদস্য। গ্রুপ পর্বে রাউন্ড-রবিন পদ্ধতিতে ১৬টি দল চারটি করে দল নিয়ে চার গ্রুপে বিভক্ত হয়ে প্রতিযোগিতা করছে। ড্রটি পাত্র ১-এর মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছিল এবং পাত্র ৪-এর মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হয়েছিল, যেখানে প্রত্যেক পাত্র হতে একটি দল নিয়ে গ্রুপের উপলব্ধ অবস্থানে স্থান দেওয়া হয়েছে (যেমন: পাত্র ১-এর জন্য প্রথম অবস্থান)। স্বাগতিক কাতার স্বয়ংক্রিয়ভাবে পাত্র ১-এ স্থান পেয়েছিল এবং এ১ হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিল। অন্যদিকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে উত্তীর্ণ অবশিষ্ট দলগুলো ২০২১ সালের এপ্রিল মাসে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের উপর ভিত্তি করে পাত্রে স্থান দেওয়া হয়েছে (যা নিচে বন্ধনীতে উল্লেখ করা হয়েছে)। স্বয়ংক্রিয়ভাবে উত্তীর্ণ দলগুলোর মধ্যে সর্বনিম্ন অবস্থান অধিকারী দল সিরিয়া পাত্র ৩-এ স্থান পেয়েছিল, যেখানে তাদের সাথে বাছাইপর্বের প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ম্যাচে বিজয়ী দল স্থান পেয়েছিল, অন্যদিকে পাত্র ৪-এ বাছাইপর্বের চতুর্থ, পঞ্চম, ষষ্ঠ এবং সপ্তম ম্যাচে বিজয়ী দল স্থান পেয়েছিল। ২০১৯ আফ্রিকা কাপ অব নেশন্সের চ্যাম্পিয়ন হিসেবে আলজেরিয়াকে ডি১ হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছিল।[৮]

পাত্র ১
দল অব
 কাতার ৫৮
 তিউনিসিয়া ২৬
 আলজেরিয়া ৩৩
 মরক্কো ৩৪
পাত্র ২
দল অব
 মিশর ৪৬
 সৌদি আরব ৬৫
 ইরাক ৬৮
 সংযুক্ত আরব আমিরাত ৭৩
পাত্র ৩
দল অব
 সিরিয়া ৭৯
বাছাইপর্ব ১-এর বিজয়ী প্রযোজ্য নয়
বাছাইপর্ব ২-এর বিজয়ী
বাছাইপর্ব ৩-এর বিজয়ী
পাত্র ৪
দল অব
বাছাইপর্ব ৪-এর বিজয়ী প্রযোজ্য নয়
বাছাইপর্ব ৫-এর বিজয়ী
বাছাইপর্ব ৬-এর বিজয়ী
বাছাইপর্ব ৭-এর বিজয়ী
ড্রয়ের ফলাফল এবং গ্রুপে অবস্থান

ড্রয়ের ফলে অংশগ্রহণকারী দলগুলো নিম্নলিখিতভাবে গ্রুপে বিভক্ত হয়েছে (বাঁকা দ্বারা বাছাইপর্বে বিজয়ী দলগুলো নির্দেশিত):

গ্রুপ এ
অব দল
এ১  কাতার
এ২  ইরাক
এ৩  ওমান
এ৪  বাহরাইন
গ্রুপ বি
অব দল
বি১  তিউনিসিয়া
বি২  সংযুক্ত আরব আমিরাত
বি৩  সিরিয়া
বি৪  মৌরিতানিয়া
গ্রুপ সি
অব দল
সি১  মরক্কো
সি২  সৌদি আরব
সি৩  জর্ডান
সি৪  ফিলিস্তিন
গ্রুপ ডি
অব দল
ডি১  আলজেরিয়া
ডি২  মিশর
ডি৩  লেবানন
ডি৪  সুদান

রেফারি[সম্পাদনা]

২০২১ সালে ফিফা এই আসরের জন্য সর্বমোট ১২ জন রেফারি, ২৪ জন সহকারী রেফারি, ১৬ জন ভিডিও সহকারী রেফারির নাম ঘোষণা করা হয়েছিল।[১৩]

কনফেডারেশন রেফারি সহকারী রেফারি ভিডিও সহকারী রেফারি
এএফসি আলিরেজা ফাগানি (ইরান) মুহাম্মদ রেজা মনসুরি (ইরান)
মুহাম্মদ রেজা আবুল ফজলি (ইরান)
শন ইভান্স (অস্ট্রেলিয়া)
আব্দুল্লাহ আল মাররি (কাতার)
হিরোয়ুকি কিমুরা (জাপান)
রিয়ুজি সাতো (জাপান) হিরোশি ইয়ামাগুচি (জাপান)
জুন মিহারা (জাপান)
ক্যাফ বাকারি গাসামা (গাম্বিয়া) জিব্রিল কামারা (সেনেগাল)
এলভিস নুপুয়ে (ক্যামেরুন)
রেদুয়ানে জিয়েদ (মরক্কো)
ইব্রাহিম নুর আল দ্বীন (মিশর)
হানি সিকাজুয়ে (জাম্বিয়া) জাখেলে সিওয়েলা (দক্ষিণ আফ্রিকা)
জেরসন দোস সান্তোস (অ্যাঙ্গোলা)
কনকাকাফ সাইদ মার্তিনেস (হন্ডুরাস) ওয়ালতের লোপেস (হন্ডুরাস)
ক্রিস্তিয়ান রামিরেস (হন্ডুরাস)
আদোনাই এস্কোবেদো (মেক্সিকো)
ফের্নান্দো গেরেরো (মেক্সিকো)
জাইর মারুফো (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র)
ফের্নান্দো এর্নান্দেস গোমেস (মেক্সিকো) মাইকেল বারওয়েগেন (কানাডা)
কারেন দিয়াস মেরিনা (মেক্সিকো)
কনমেবল আন্দ্রেস মাতোন্তে (উরুগুয়ে) মার্তিন সোপ্পি (উরুগুয়ে)
কার্লোস বারেইরো (উরুগুয়ে)
এবের আকিনো (প্যারাগুয়ে)
লেওদান গোনসালেস (উরুগুয়ে)
রাফায়েল ত্রাসি (ব্রাজিল)
হুয়ান সোতো (ভেনেজুয়েলা)
উইলতন সাম্পাইয়ো (ব্রাজিল) দানিলো মানিস (ব্রাজিল)
ব্রুনো পিরেস (ব্রাজিল)
ফাকুন্দো তেয়ো (আর্জেন্টিনা) এজেকিয়েল ব্রাইলোভস্কি (আর্জেন্টিনা)
গাব্রিয়েল চাদে (আর্জেন্টিনা)
ওএফসি ম্যাথু কঙ্গার (নিউজিল্যান্ড) তেভিতা মাকাসিনি (টোঙ্গা)
বের্নার মুতুকেরা (সলোমন দ্বীপপুঞ্জ)
উয়েফা শিমন মারচিনিয়াক (পোল্যান্ড) পাভেউ সকোলনিৎস্কি (পোল্যান্ড)
তমাশ লিস্তকিয়েভিচ (পোল্যান্ড)
তমাশ কোয়াইয়াতকোভস্কি (পোল্যান্ড)
গিয়ের্মো কুয়াদ্রা ফের্নান্দেস (স্পেন)
খ্রিস্টিয়ান ডিনগার্ট (জার্মানি)
ফাবিও মারেস্কা (ইতালি)
ডানিয়েল সিবার্ট (জার্মানি) রাফায়েল ফল্টিন (জার্মানি)
খ্রিস্টিয়ান গিটেলমান (জার্মানি)

মাঠ[সম্পাদনা]

২০২১ সালে এই আসরের ম্যাচ আয়োজনের জন্য কাতারের আল খুর, আল ওয়াক্রাহ, দোহা এবং আল রাইয়ানের সর্বমোট ৭টি মাঠের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। ১৮ই ডিসেম্বর তারিখে আল খুরের আল বাইত স্টেডিয়ামে এই আসরের ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে, যা পরবর্তীতে ২০২২ ফিফা বিশ্বকাপের ম্যাচও আয়োজন করবে।[১৪]

কাতারের আয়োজক শহর আল খুর আল ওয়াক্রাহ
আল বাইত স্টেডিয়াম আল জানুব স্টেডিয়াম
ধারণক্ষমতা: ৬০,০০০[১৫] ধারণক্ষমতা: ৪০,০০০[১৬]
Al Bayt Stadium 02 crop.jpg Visita ao estádio de futebol Al Janoub.jpg
দোহার স্টেডিয়াম দোহা
রাস আবু আবুদ স্টেডিয়াম আল সুমামাহ স্টেডিয়াম
ধারণক্ষমতা: ৪০,০০০[১৭] ধারণক্ষমতা: ৪০,০০০[১৮]
আল রাইয়ান (দোহা)
এডুকেশন সিটি স্টেডিয়াম খলিফা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম আহমেদ বিন আলী স্টেডিয়াম
ধারণক্ষমতা: ৪৫,৩৫০[১৯] ধারণক্ষমতা: ৪৫,৪১৬[২০] ধারণক্ষমতা: ৪৪,৭৪০[২১]
Aerial view of Education City Stadium and Oxygen Park in Al Rayyan (Education City Stadium) crop.jpg 2009 Emir of Qatar Cup Final - Opening Ceremony (3581762046).jpg Al-Rayan-Stadium (9).jpg

বাছাইপর্ব[সম্পাদনা]

২০২১ সালের ১৯শে জুন তারিখে, লিবিয়া এবং সুদানের মধ্যকার ম্যাচের মধ্য দিয়ে এই আসরের বাছাইপর্ব শুরু হয়েছিল। প্রতিদিন একটি করে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হওয়ার পর ২৫শে জুন তারিখে বাহরাইন এবং কুয়েতের মধ্যকার ম্যাচের মধ্য দিয়ে বাছাইপর্বের ম্যাচ শেষ হয়েছে। বাছাইপর্বে বিজয়ী সাতটি দল এই আসরের গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণের জন্য উত্তীর্ণ হয়েছে।

দল ১  ফলাফল  দল ২
লিবিয়া  ০–১  সুদান
ওমান  ২–১  সোমালিয়া
জর্ডান  ৩–০ (পুরস্কৃত)  দক্ষিণ সুদান
মৌরিতানিয়া  ২–০  ইয়েমেন
লেবানন  ১–০  জিবুতি
ফিলিস্তিন  ৫–১  কোমোরোস
বাহরাইন  ২–০  কুয়েত
বাছাইপর্বের ম্যাচ ৭
লিবিয়া ০–১ সুদান
প্রতিবেদন


বাছাইপর্বের ম্যাচ ৩
জর্ডান ৩–০ (পুরস্কৃত)[টীকা ২] দক্ষিণ সুদান
প্রতিবেদন

বাছাইপর্বের ম্যাচ ৫
মৌরিতানিয়া ২–০ ইয়েমেন
প্রতিবেদন
রেফারি: মাউরিৎসিয়ো মারিয়ানি (ইতালি)


বাছাইপর্বের ম্যাচ ৬
ফিলিস্তিন ৫–১ কোমোরোস
প্রতিবেদন
রেফারি: দানিয়েলে দোভেরি (ইতালি)

বাছাইপর্বের ম্যাচ ৪
বাহরাইন ২–০ কুয়েত
প্রতিবেদন

গ্রুপ পর্ব[সম্পাদনা]

২০২১ সালে, ফিফা এই আসরের চূড়ান্ত পর্বের সময়সূচী ঘোষণা করেছে। চূড়ান্ত ড্রয়ের সময় গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণকারী ১৬টি দলের মধ্যে ৯টি নিশ্চিত দলের নাম জানা ছিল; বাকি ৭টি দল ড্রয়ের পর অনুষ্ঠিত বাছাইপর্বের মাধ্যমে নির্ধারিত হয়েছে। প্রতিটি গ্রুপের শীর্ষ দুই দল নকআউট পর্বের জন্য উত্তীর্ণ হয়েছে।[১] অতঃপর উত্তীর্ণ দলগুলো কোয়ার্টার-ফাইনাল, সেমি-ফাইনাল, তৃতীয় স্থান নির্ধারণী এবং ফাইনালে অংশগ্রহণ করবে।[৮]

ম্যাচদিন অনুযায়ী গ্রুপ পর্বের সময়সূচী হলো:[২২]

গ্রুপ পর্বের সময়সূচী
ম্যাচদিন তারিখ ম্যাচ
ম্যাচদিন ১ ৩০ নভেম্বর – ১ ডিসেম্বর দল ১ বনাম দল ৪
দল ২ বনাম দল ৩
ম্যাচদিন ২ ৩–৪ ডিসেম্বর দল ৪ বনাম দল ২
দল ৩ বনাম দল ১
ম্যাচদিন ৩ ৬–৭ ডিসেম্বর দল ৩ বনাম দল ৪
দল ১ বনাম দল ২

টাইব্রেকার[সম্পাদনা]

প্রত্যেক দলের পয়েন্টের ওপর ভিত্তি করে দলের অবস্থান নির্ণয় করা হয় (জয়ের জন্য ৩ পয়েন্ট, ড্রয়ের জন্য ১ পয়েন্ট, হারের জন্য ০ পয়েন্ট), এবং যদি পয়েন্টের সমতা হয় তবে গ্রুপ পর্বের সবগুলো খেলা শেষে নিম্নে বর্ণিত মানদণ্ডের উপর ভিত্তি করে শীর্ষ দুই দল নির্ণয় করা হবে:[২৩]

  1. যেসকল দলের পয়েন্ট সমান, তাদের ম্যাচে পয়েন্ট;
  2. যেসকল দলের পয়েন্ট সমান, তাদের গোল পার্থক্য;
  3. যেসকল দলের পয়েন্ট সমান, তাদের গোল সংখ্যা;
  4. যেসকল দলের পয়েন্ট সমান, তাদের হেড-টু-হেড ম্যাচে পয়েন্ট;
  5. যেসকল দলের পয়েন্ট সমান, তাদের হেড-টু-হেড গোল পার্থক্য;
  6. যেসকল দলের পয়েন্ট সমান, তাদের হেড-টু-হেড গোল সংখ্যা;
  7. গ্রুপ পর্বের সকল ম্যাচে সর্বনিম্ন শাস্তিমূলক পয়েন্ট (একটি নির্দিষ্ট ম্যাচে একজন খেলোয়াড়ের জন্য শুধুমাত্র একটি নিয়ম প্রয়োগ করা হবে):
    1. হলুদ কার্ড = −১ পয়েন্ট;
    2. এক ম্যাচে দুটি হলুদ কার্ডের জন্য বহিষ্কার = −৩ পয়েন্ট;
    3. লাল কার্ড = −৪ পয়েন্ট;
    4. হলুদ কার্ডের পর সরাসরি লাল কার্ড = −৫ পয়েন্ট;
  8. আয়োজক কমিটি কর্তৃক দৈব লটারি।

গ্রুপ এ[সম্পাদনা]

অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 কাতার (H) +৫ নকআউট পর্বে উত্তীর্ণ
 ওমান +২
 ইরাক −৩
 বাহরাইন −৪
উৎস: ফিফা
(H) স্বাগতিক।
ইরাক ১–১ ওমান
প্রতিবেদন
কাতার ১–০ বাহরাইন
প্রতিবেদন

বাহরাইন ০–০ ইরাক
প্রতিবেদন
ওমান ১–২ কাতার
প্রতিবেদন

ওমান ৩–০ বাহরাইন
প্রতিবেদন
কাতার ৩–০ ইরাক
প্রতিবেদন

গ্রুপ বি[সম্পাদনা]

অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 তিউনিসিয়া +৩ নকআউট পর্বে উত্তীর্ণ
 সংযুক্ত আরব আমিরাত +১
 সিরিয়া
 মৌরিতানিয়া −৪
উৎস: ফিফা
তিউনিসিয়া ৫–১ মৌরিতানিয়া
প্রতিবেদন


সিরিয়া ১–২ মৌরিতানিয়া
প্রতিবেদন

গ্রুপ সি[সম্পাদনা]

অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 মরক্কো +৯ নকআউট পর্বে উত্তীর্ণ
 জর্ডান +১
 সৌদি আরব −২
 ফিলিস্তিন ১০ −৮
উৎস: ফিফা
মরক্কো ৪–০ ফিলিস্তিন
প্রতিবেদন
সৌদি আরব ০–১ জর্ডান
প্রতিবেদন

জর্ডান ০–৪ মরক্কো
প্রতিবেদন
ফিলিস্তিন ১–১ সৌদি আরব
প্রতিবেদন

মরক্কো ১–০ সৌদি আরব
প্রতিবেদন
জর্ডান ৫–১ ফিলিস্তিন
প্রতিবেদন

গ্রুপ ডি[সম্পাদনা]

অব দল ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট যোগ্যতা অর্জন
 মিশর +৬ [ক] নকআউট পর্বে উত্তীর্ণ
 আলজেরিয়া +৬ [ক]
 লেবানন −২
 সুদান ১০ −১০
উৎস: ফিফা
টীকা:
  1. ফেয়ার-প্লে পয়েন্ট: মিশর –৬, আলজেরিয়া –১১।
আলজেরিয়া ৪–০ সুদান
প্রতিবেদন
মিশর ১–০ লেবানন
প্রতিবেদন

সুদান ০–৫ মিশর
প্রতিবেদন

আলজেরিয়া ১–১ মিশর
প্রতিবেদন

নকআউট পর্ব[সম্পাদনা]

নকআউট পর্বে, একটি ম্যাচের ফলাফল যদি পূর্ণ ৯০ মিনিট পর সমতায় থাকে তবে অতিরিক্ত সময়ের খেলা অনুষ্ঠিত হবে (১৫ মিনিট করে দুই অর্ধে ৩০ মিনিট)। যদি অতিরিক্ত সময়ের পরেও খেলার ফলাফল সমতায় থাকে, তবে খেলার ফলাফল পেনাল্টি শুট-আউটের মাধ্যমে নির্ধারণ করা হবে।[২৩]

নিম্নে তালিকাভুক্ত সকল ম্যাচের সময় আরব মান সময় অনুসারে উল্লেখ করা হয়েছে (ইউটিসি+৩)।

বন্ধনী[সম্পাদনা]

 
কোয়ার্টার-ফাইনালসেমি-ফাইনালফাইনাল
 
          
 
১০ ডিসেম্বর – আল রাইয়ান (এডুকেশন)
 
 
 তিউনিসিয়া
 
১৫ ডিসেম্বর – দোহা (সুমামাহ)
 
 ওমান
 
 তিউনিসিয়া
 
১১ ডিসেম্বর – আল ওয়াক্রাহ
 
 মিশর
 
 মিশর (অ.স.প.)
 
১৮ ডিসেম্বর – আল খুর
 
 জর্ডান
 
 তিউনিসিয়া
 
১০ ডিসেম্বর – আল খুর
 
 আলজেরিয়া (অ.স.প.)
 
 কাতার
 
১৫ ডিসেম্বর – দোহা (আবু আবুদ)
 
 সংযুক্ত আরব আমিরাত
 
 কাতার
 
১১ ডিসেম্বর – দোহা (সুমামাহ)
 
 আলজেরিয়া তৃতীয় স্থান নির্ধারণী
 
 মরক্কো ২ (৩)
 
১৮ ডিসেম্বর – দোহা (আবু আবুদ)
 
 আলজেরিয়া (পেনাল্টি) ২ (৫)
 
 মিশর ০(৪)
 
 
 কাতার (পেনাল্টি) ০(৫)
 

কোয়ার্টার-ফাইনাল[সম্পাদনা]

তিউনিসিয়া ২–১ ওমান
প্রতিবেদন

কাতার ৫–০ সংযুক্ত আরব আমিরাত
প্রতিবেদন

মিশর ৩–১ (অ.স.প.) জর্ডান
প্রতিবেদন

সেমি-ফাইনাল[সম্পাদনা]

তিউনিসিয়া ১–০ মিশর
প্রতিবেদন

কাতার ১–২ আলজেরিয়া
প্রতিবেদন

তৃতীয় স্থান নির্ধারণী[সম্পাদনা]

 মিশর০–০ কাতার
প্রতিবেদন

ফাইনাল[সম্পাদনা]

 তিউনিসিয়া০–২ (অ.স.প.) আলজেরিয়া
প্রতিবেদন
রেফারি: ড্যানিয়েল সিবারট (জার্মানি)

টীকা[সম্পাদনা]

  1. দক্ষিণ সুদান আরব বিশ্বের দেশ না হওয়া সত্ত্বেও তারা এই আসরের বাছাইপর্বে অংশগ্রহণ করেছিল।
  2. কাতারে আসার পরে একাধিক খেলোয়াড় এবং কর্মকর্তার কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফলাফল ইতিবাচক আসার ফলে বাছাইপর্বের তৃতীয় ম্যাচে দক্ষিণ সুদান অংশগ্রহণ না করার ফলে জর্ডানকে এই ম্যাচটি পুরস্কৃত করা হয়েছিল।[১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "FIFA President confirms 22 national teams will participate in FIFA Arab Cup 2021 in Qatar"FIFA.com। Fédération Internationale de Football Association। ২৪ নভেম্বর ২০২০। ২৫ নভেম্বর ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ নভেম্বর ২০২০ 
  2. "FIFA Arab Cup 2021 – Teams – Lebanon"FIFA.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০২১ 
  3. "الاتحاد العربي" يعلن عن مسابقاته للموسم القادم [The "Arab Union" announces its competitions for the next season]। UAFA (আরবি ভাষায়)। ২৫ এপ্রিল ২০২১। ২৯ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০২১ 
  4. "Libya receives invitation to participate in FIFA-backed pan-Arab tournament 2021 in Qatar"www.libyaobserver.ly। ২৫ জুলাই ২০২০। ২৬ জুলাই ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০২১ 
  5. "Morocco wins Arab Cup 2012 title"alarabiya.net। ৭ জুলাই ২০১২। ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০২১ 
  6. "Qatar to host FIFA Arab Cup 2021 draw on 27 April"FIFA.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২৩ এপ্রিল ২০২১। ২৩ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ এপ্রিল ২০২১ 
  7. Abou Diab, Rami (২৭ নভেম্বর ২০২০)। "New FIFA Ranking revealed"FA Lebanon (ইংরেজি ভাষায়)। ২৬ জানুয়ারি ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ নভেম্বর ২০২০ 
  8. "FIFA Arab Cup Qatar 2021: Draw procedures" (PDF)FIFA। ২৬ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০২১ 
  9. Harby, Ahmed (২৬ এপ্রিল ২০২১)। منتخب مصر بالمستوى الثانى فى تصنيف قرعة كأس العرب 2021 [The Egyptian national team is ranked second in the 2021 Arab Cup draw]। youm7.com (আরবি ভাষায়)। ২৬ নভেম্বর ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০২১ 
  10. "FIFA Arab Cup 2021 qualification match between Jordan and South Sudan forfeited"FIFA.com। ২১ জুন ২০২১। ২২ জুন ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০২১ 
  11. "FIFA Men's Ranking – April 2021 (AFC)"। FIFA.com। ৭ এপ্রিল ২০২১। ১২ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  12. "Excitement mounts ahead of FIFA Arab Cup Qatar 2021 draw"FIFA। ২৬ এপ্রিল ২০২১। ২৬ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ এপ্রিল ২০২১ 
  13. "List of appointed Match Officials" (PDF)FIFA.com। Fédération Internationale de Football Association। ১০ ডিসেম্বর ২০২১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৬ নভেম্বর ২০২১ 
  14. "Draw sets the stage for an exciting FIFA Arab Cup Qatar 2021"FIFA.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ এপ্রিল ২০২১। ২৭ এপ্রিল ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০২১ 
  15. "Al Bayt Stadium: A uniquely Qatari stadium, to rival the best in the world"। ৮ জানুয়ারি ২০১৮। ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০২১ 
  16. "Tradition and innovation come together as striking Al Janoub Stadium in Al Wakrah City is opened"। ১৬ মে ২০১৯। ১১ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০২১ 
  17. "Qatar Foundation Stadium: An amazing experience for fans & a bright future for football"। ৮ জানুয়ারি ২০১৮। ৮ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ জানুয়ারি ২০১৮ 
  18. "Al Thuymama Stadium: A tribute to our region"। ৮ জানুয়ারি ২০১৮। ৩১ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০২১ 
  19. "Ras Abu Aboud Stadium: A legacy for the community"। ৮ জানুয়ারি ২০১৮। ৩১ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০২১ 
  20. "Khalifa International Stadium: Qatar's most historic stadium & a crucial player for 2022"। ৮ জানুয়ারি ২০১৮। ১৭ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০২১ 
  21. "Al Rayyan Stadium: The gateway to the desert opens its doors to the world"। ৮ জানুয়ারি ২০১৮। ৩১ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ আগস্ট ২০২১ 
  22. "FIFA Arab Cup Qatar 2021: Match schedule" (PDF)FIFA। ২ আগস্ট ২০২১। ২ আগস্ট ২০২১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০২১ 
  23. "FIFA Arab Cup Qatar 2021 Regulations" (PDF)FIFA। ৩ আগস্ট ২০২১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ আগস্ট ২০২১