হন্ডুরাস জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
হন্ডুরাস
দলের লোগো
ডাকনামলস কাত্রাচোস
লা বিকলর
লা হ
অ্যাসোসিয়েশনহন্ডুরাস ফুটবল ফেডারেশন
কনফেডারেশনকনকাকাফ (উত্তর আমেরিকা)
প্রধান কোচফাবিয়ান কোইতো
অধিনায়কমায়নোর ফিগুয়েরোয়া
সর্বাধিক ম্যাচমায়নোর ফিগুয়েরোয়া (১৬৩)
শীর্ষ গোলদাতাকার্লোস পাবোন (৫৭)
মাঠঅলিম্পিক মহানগর স্টেডিয়াম
ফিফা কোডHON
ওয়েবসাইটfenafuth.org.hn
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
তৃতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৮২ হ্রাস ৪ (৩১ মার্চ ২০২২)[১]
সর্বোচ্চ২০ (সেপ্টেম্বর ২০০১)
সর্বনিম্ন১০১ (ডিসেম্বর ২০১৫)
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৯৫ হ্রাস ৩৮ (৩০ এপ্রিল ২০২২)[২]
সর্বোচ্চ২০ (সেপ্টেম্বর ২০০১)
সর্বনিম্ন১০৪ (নভেম্বর ১৯৭১)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 গুয়াতেমালা ১০–১ হন্ডুরাস 
(গুয়াতেমালা সিটি, গুয়াতেমালা; ১৪ সেপ্টেম্বর ১৯২১)
বৃহত্তম জয়
 হন্ডুরাস ১০–১ নিকারাগুয়া 
(স্যান হোসে, কোস্টা রিকা; ১৩ মার্চ ১৯৪৬)
বৃহত্তম পরাজয়
 গুয়াতেমালা ১০–১ হন্ডুরাস 
(গুয়াতেমালা সিটি, গুয়াতেমালা; ১৪ সেপ্টেম্বর ১৯২১)
বিশ্বকাপ
অংশগ্রহণ৩ (১৯৮২-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যগ্রুপ পর্ব (১৯৮২, ২০১০, ২০১৪)
কনকাকাফ গোল্ড কাপ
অংশগ্রহণ২০ (১৯৬৩-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যচ্যাম্পিয়ন (১৯৮১)
কোপা আমেরিকা
অংশগ্রহণ১ (২০০১-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যতৃতীয় স্থান (২০০১)

হন্ডুরাস জাতীয় ফুটবল দল (স্পেনীয়: Selección de fútbol de Honduras, ইংরেজি: Honduras national football team) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে হন্ডুরাসের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম হন্ডুরাসের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা হন্ডুরাস ফুটবল ফেডারেশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি ১৯৪৬ সাল হতে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং ১৯৬১ সাল হতে তাদের আঞ্চলিক সংস্থা কনকাকাফের সদস্য হিসেবে রয়েছে।[৩] ১৯২১ সালের ১৪ই সেপ্টেম্বর তারিখে, হন্ডুরাস প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; গুয়াতেমালার গুয়াতেমালা সিটিতে অনুষ্ঠিত উক্ত ম্যাচে হন্ডুরাস গুয়াতেমালার কাছে ১০–১ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে।

৩৭,৩২৫ ধারণক্ষমতাবিশিষ্ট অলিম্পিক মহানগর স্টেডিয়ামে লস কাত্রাচোস নামে পরিচিত এই দলটি তাদের সকল হোম ম্যাচ আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় হন্ডুরাসের রাজধানী তেগুসিগালপায় অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন ফাবিয়ান কোইতো এবং অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করছেন রক্ষণভাগের খেলোয়াড় মায়নোর ফিগুয়েরোয়া

হন্ডুরাস এপর্যন্ত ৩ বার ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেছে, যার মধ্যে সেরা সাফল্য হচ্ছে ১৯৮২, ২০১০, ২০১৪ ফিফা বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে অংশগ্রহণ করা। অন্যদিকে, কনকাকাফ গোল্ড কাপে হন্ডুরাস অন্যতম সফল দল, যেখানে তারা ১টি (১৯৮১) শিরোপা জয়লাভ করেছে।

মায়নোর ফিগুয়েরোয়া, আমাদো গুয়েবারা, নোয়েল বায়াদারেস, কার্লোস পাবোন এবং কার্লো কোস্তলির মতো খেলোয়াড়গণ হন্ডুরাসের জার্সি গায়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে, ২০০১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে হন্ডুরাস তাদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ অবস্থান (২০তম) অর্জন করে এবং ২০১৫ সালের ডিসেম্বর মাসে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে তারা ১০১তম স্থান অধিকার করে, যা তাদের ইতিহাসে সর্বনিম্ন। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে হন্ডুরাসের সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ২০তম (যা তারা ২০০১ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১০৪। নিম্নে বর্তমানে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং এবং বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং
৩১ মার্চ ২০২২ অনুযায়ী ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং[১]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৮০ বৃদ্ধি  গিনি ১২৯৩.২১
৮১ বৃদ্ধি  গ্যাবন ১২৯০.৬৫
৮২ হ্রাস  হন্ডুরাস ১২৮৯.৪৭
৮৩ বৃদ্ধি  উজবেকিস্তান ১২৮৬.৫৫
৮৪ হ্রাস  বেনিন ১২৮৪.১৩
বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
৩০ এপ্রিল ২০২২ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৯৩ বৃদ্ধি ২২  গাম্বিয়া ১৪৩৯
৯৪ বৃদ্ধি ২৮  বিষুবীয় গিনি ১৪৩৮
৯৫ হ্রাস ৩৮  হন্ডুরাস ১৪৩৫
৯৬ হ্রাস  উগান্ডা ১৪৩৩
৯৭ বৃদ্ধি  কুর্দিস্তান অঞ্চল ১৪২৪

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
উরুগুয়ে ১৯৩০ ফিফার সদস্য ছিল না ফিফার সদস্য ছিল না
ইতালি ১৯৩৪
ফ্রান্স ১৯৩৮
ব্রাজিল ১৯৫০ প্রত্যাখ্যান প্রত্যাখ্যান
সুইজারল্যান্ড ১৯৫৪
সুইডেন ১৯৫৮
চিলি ১৯৬২ উত্তীর্ণ হয়নি
ইংল্যান্ড ১৯৬৬
মেক্সিকো ১৯৭০ ১০
পশ্চিম জার্মানি ১৯৭৪ ১১ ১০
আর্জেন্টিনা ১৯৭৮ প্রত্যাহার প্রত্যাহার
স্পেন ১৯৮২ গ্রুপ পর্ব ১৮তম ১৩ ২৩
মেক্সিকো ১৯৮৬ উত্তীর্ণ হয়নি ১০ ১৫
ইতালি ১৯৯০
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৯৪ ১৪ ২৩ ২০
ফ্রান্স ১৯৯৮ ১৮ ১১
দক্ষিণ কোরিয়া জাপান ২০০২ ২২ ১৪ ৫৬ ২৫
জার্মানি ২০০৬ ১৫
দক্ষিণ আফ্রিকা ২০১০ গ্রুপ পর্ব ৩০তম ১৮ ১০ ৩২ ১৮
ব্রাজিল ২০১৪ গ্রুপ পর্ব ৩১তম ১৬ ২৫ ১৫
রাশিয়া ২০১৮ উত্তীর্ণ হয়নি ১৮ ২০ ২৮
কাতার ২০২২ অনির্ধারিত অনির্ধারিত
মোট গ্রুপ পর্ব ৩/২১ ১৪ ১৫০ ৬৯ ৪০ ৪১ ২৫৫ ১৭৬

অর্জন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ৩১ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩১ মার্চ ২০২২ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ৩০ এপ্রিল ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৩০ এপ্রিল ২০২২ 
  3. "Ramón Coll, electo Presidente de la Confederación de Futbol de América del Norte, América Central y el Caribe"La Nación (Google News Archive)। ২৩ সেপ্টেম্বর ১৯৬১। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]