ফিফা ফুটসাল বিশ্বকাপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ফিফা ফুটসাল বিশ্বকাপ
প্রতিষ্ঠিত১৯৮৯; ৩৩ বছর আগে (1989)
অঞ্চলআন্তর্জাতিক (ফিফা)
দলের সংখ্যা২৪ (ফাইনাল পর্ব)
বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল (১ম শিরোপা)
সবচেয়ে সফল দল ব্রাজিল (৫টি শিরোপা)
ওয়েবসাইটফুটসাল বিশ্বকাপ
২০২১ ফিফা ফুটসাল বিশ্বকাপ

ফিফা ফুটসাল বিশ্বকাপ হলো ফিফা কর্তৃক আয়োজিত পুরুষদের সর্বোচ্চ ফুটসাল প্রতিযোগিতা। ১৯৮৯ সালে সর্বপ্রথম অনুষ্ঠিত হয়েছিল নেদারল্যান্ডসে। ১৯৯২ সালে থেকে প্রতি চার বছর অন্তর এই প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতি দুটি ফুটবল বিশ্বকাপের মাঝের বছরে অনুষ্ঠিত হয়। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল।

ফলাফল[সম্পাদনা]

নং বছর আয়োজক চ্যাম্পিয়ন ফলাফল রানার-আপ তৃতীয় স্থান ফলাফল চতুর্থ স্থান দলসংখ্যা
১৯৮৯  নেদারল্যান্ডস  ব্রাজিল ২–১  নেদারল্যান্ডস  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ৩–২ (অ.স.প.)  বেলজিয়াম ১৬
১৯৯২  হংকং  ব্রাজিল ৪–১  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র  স্পেন ৯–৬  ইরান ১৬
১৯৯৬  স্পেন  ব্রাজিল ৬–৪  স্পেন  রাশিয়া ৩–২  ইউক্রেন ১৬
২০০০  গুয়াতেমালা  স্পেন ৪–৩  ব্রাজিল  পর্তুগাল ৪–২  রাশিয়া ১৬
২০০৪  তাইওয়ান  স্পেন ২–১  ইতালি  ব্রাজিল ৭–৪  আর্জেন্টিনা ১৬
২০০৮  ব্রাজিল  ব্রাজিল ২–২ (অ.স.প.)
৪–৩ (পেনাল্টি)
 স্পেন  ইতালি ২–১  রাশিয়া ২০
২০১২  থাইল্যান্ড  ব্রাজিল ৩–২ (অ.স.প.)  স্পেন  ইতালি ৩–০  কলম্বিয়া ২৪
২০১৬  কলম্বিয়া  আর্জেন্টিনা ৫–৪  রাশিয়া  ইরান ২–২
৪–৩ (পেনাল্টি)
 পর্তুগাল ২৪
২০২১[ক]
বিস্তারিত
 লিথুয়ানিয়া  পর্তুগাল ২–১  আর্জেন্টিনা  ব্রাজিল ৪–২  কাজাখস্তান ২৪
১০ ২০২৪ অনির্ধারিত অনির্ধারিত অনির্ধারিত

অংশগ্রহণকারী দেশ[সম্পাদনা]

দেশগুলির সেরা ফলাফল

সর্বকালের পয়েন্ট তালিকা[সম্পাদনা]

অব. দল অংশগ্রহণ খে ড্র হা স্বগো বিগো গোপা পয়েন্ট
 ব্রাজিল ৬৭ ৫৭ ৪২৮ ১০১ +৩২৭ ১৭৭
 স্পেন ৬১ ৪৮ ২৬০ ১১৮ +১৪২ ১৪৯
 আর্জেন্টিনা ৫৫ ৩০ ১৮ ১৬৩ ১২৪ +৩৯ ৯৭
 রাশিয়া[RFU] ৪৫ ২৭ ১৩ ২৪১ ১১৪ +১২৭ ৮৬
 ইতালি ৪৩ ২৭ ১৩ ১৫৩ ৯৬ +৫৭ ৮৪
 পর্তুগাল ৩৭ ২২ ১২৬ ৭৬ +৫০ ৭২
 ইরান ৪০ ১৯ ১৫ ১৩৭ ১৩৩ +৪ ৬৩
 ইউক্রেন ৩০ ১৪ ১১ ১০৫ ৮১ +২৪ ৪৭
 নেদারল্যান্ডস ২৬ ১২ ৭৬ ৭৬ ৪১
১০  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ৩২ ১২ ১৬ ৯১ ১০৮ -১৭ ৪০
১১  প্যারাগুয়ে ২৮ ১০ ১৩ ৯৩ ৮৮ +৫ ৩৫
১২  বেলজিয়াম ২০ ১০ ৫৬ ৫১ +৫ ৩২
১৩  মিশর ২৮ ১০ ১৮ ৯৭ ১১৫ −১৮ ৩০
১৪  কাজাখস্তান ১৪ ৪৭ ৪১ +৬ ২০
১৫  চেক প্রজাতন্ত্র ১৮ ১০ ৩৭ ৫৩ −১৬ ২০
১৬  থাইল্যান্ড ২২ ১৫ ৫৬ ১০২ −৪৬ ১৯
১৭  কলম্বিয়া ১১ ২৭ ২৫ +২ ১৫
১৮  গুয়াতেমালা ১৬ ১১ ৪৮ ৮৮ −৪০ ১৫
১৯  জাপান ১৭ ১২ ৪৭ ৭৭ −৩০ ১৪
২০  উরুগুয়ে ১৩ ৩০ ৩৯ −৯ ১৩
২১  কোস্টা রিকা 5 16 4 1 11 39 73 −34 13
22  অস্ট্রেলিয়া 7 21 4 1 16 34 118 −84 13
23  সার্বিয়া 2 8 3 1 4 27 18 +9 10
24  ক্রোয়েশিয়া 1 6 3 0 3 18 15 +3 9
25  হাঙ্গেরি 1 6 2 2 2 23 17 +6 8
26  মরক্কো 3 11 2 2 7 24 36 −12 8
27  আজারবাইজান 1 5 2 1 2 25 18 +7 7
28  ভেনেজুয়েলা 1 4 2 1 1 6 5 +1 7
29  ভিয়েতনাম 2 8 2 1 5 12 33 −21 7
30  পোল্যান্ড 1 6 2 0 4 15 22 −7 6
31  পানামা 3 10 2 0 8 24 58 −34 6
32  ডেনমার্ক 1 3 1 1 1 12 10 +2 4
33  উজবেকিস্তান 2 7 1 1 5 21 30 -9 4
34  কানাডা 1 3 1 0 2 7 7 0 3
35  হংকং 1 3 1 0 2 7 7 0 3
36  কুয়েত 1 3 1 0 2 8 13 −5 3
37  কিউবা 5 13 1 0 12 24 91 −67 3
38  সলোমন দ্বীপপুঞ্জ 4 13 1 0 12 22 142 −120 3
39  লিবিয়া 2 7 0 1 6 10 36 −26 1
40  চীন 3 10 0 0 10 15 66 −51 0
41  নাইজেরিয়া 1 3 0 0 3 7 15 −8 0
42  লিথুয়ানিয়া 1 3 0 0 3 3 11 -8 0
43  মেক্সিকো 1 3 0 0 3 4 13 −9 0
44  অ্যাঙ্গোলা 1 3 0 0 3 6 16 -10 0
45  জিম্বাবুয়ে 1 3 0 0 3 3 14 −11 0
46  আলজেরিয়া 1 3 0 0 3 5 17 −12 0
47  মোজাম্বিক 1 3 0 0 3 7 22 −15 0
48  মালয়েশিয়া 1 3 0 0 3 4 24 −20 0
49  সৌদি আরব 1 3 0 0 3 4 27 −23 0
50  চীনা তাইপেই 1 3 0 0 3 2 29 −27 0

সর্বাধিক গোলদাতা[সম্পাদনা]

সর্বকালের[সম্পাদনা]

অব. খেলোয়াড় গোল ম্যাচ গোল/ম্যাচ প্রতিযোগিতাসমূহ
ব্রাজিল ফালকাও ৪৮ ৩৩ ১.৪৫ ২০০০, ২০০৪, ২০০৮, ২০১২, ২০১৬
ব্রাজিল ম্যানুয়াল টোবিয়াস ৪৩ ৩২ ১.৩৪ ১৯৯২, ১৯৯৬, ২০০০, ২০০৪
রাশিয়া কনস্ট্যান্টিন এরেমেঙ্কো ২৮ ১৮ ১.৫৬ ১৯৯২, ১৯৯৬‌, ২০০০

প্রতি প্রতিযোগিতার[সম্পাদনা]

সাল খেলোয়াড় গোল
১৯৮৯ হাঙ্গেরি লাজলো জাদানি
১৯৯২ ইরান সৈয়দ রাজাবি ১৭
১৯৯৬ ব্রাজিল ম্যানুয়াল টোবিয়াস ১৪
২০০০ ১৯
২০০৪ ব্রাজিল ফালকাও ১৩
২০০৮ রাশিয়া পুলা ১৬
২০১২ রাশিয়া এডের লিমা
২০১৬ পর্তুগাল রিকার্ডিনহো ১২
২০২১ ব্রাজিল ফেরাও

পুরস্কার[সম্পাদনা]

সোনার গ্লাভস[সম্পাদনা]

প্রতিযোগিতার সেরা গোলকিপারকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়।

সাল খেলোয়াড়
২০০৮ ব্রাজিল টিয়াগো
২০১২ ইতালি স্টিফানো মাম্মারেল্লা
২০১৬ আর্জেন্টিনা নিকোলাস সার্মিয়েন্টো
২০২১

প্রতিযোগিতার সেরা গোল[সম্পাদনা]

প্রতিযোগিতার সবচেয়ে সেরা গোল যেটি হয়েছে তার গোলদাতাকে এই পুরস্কার দেওয়া হয়।

সাল খেলোয়াড়
২০০৮ গুয়াতেমালা ইয়োসে রাফায়েল গঞ্জালেজ
২০১২ থাইল্যান্ড সুফায়ুত থুয়েআংক্লাং
২০১৬
২০২১ ভিয়েতনাম নগুয়েন ভ্যান হিউ

ফেয়ার প্লে পুরস্কার[সম্পাদনা]

বছর বিজয়ী
২০০৮  স্পেন
২০১২  আর্জেন্টিনা
২০১৬  ভিয়েতনাম
২০২১  কাজাখস্তান

ফিফা চ্যাম্পিয়ন্স ব্যাজ[সম্পাদনা]

২০১২-র বিশ্বকাপ জয়ী ব্রাজিলকে সর্বপ্রথম এই পুরস্কারে ভূষিত করা হয়।[১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]

  1. কোভিড-১৯এর জন্য একবছর পিছিয়ে যায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "FIFA World Champions Badge honours Real Madrid's impeccable year"ফিফা (ইংরেজি ভাষায়)। ২০ অক্টোবর ২০১৪। ডিসেম্বর ২২, ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০১৯The badge is also worn by the Japanese women’s national team following their triumph at the FIFA Women’s World Cup 2011™, while the most recent edition of the FIFA Futsal World Cup in 2012 saw the Brazilian national team take the title, along with the first FIFA World Champions Badge to be handed over for that particular competition.