ঘাটাইল উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ঘাটাইল
উপজেলা
ঘাটাইল বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
ঘাটাইল
ঘাটাইল
বাংলাদেশে ঘাটাইল উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°২৮′ উত্তর ৮৯°৫৮′ পূর্ব / ২৪.৪৬৭° উত্তর ৮৯.৯৬৭° পূর্ব / 24.467; 89.967স্থানাঙ্ক: ২৪°২৮′ উত্তর ৮৯°৫৮′ পূর্ব / ২৪.৪৬৭° উত্তর ৮৯.৯৬৭° পূর্ব / 24.467; 89.967 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ  বাংলাদেশ
বিভাগ ঢাকা বিভাগ
জেলা টাঙ্গাইল জেলা
আয়তন
 • মোট ৪৬৯.০০ কিমি (১৮১.০৮ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)[১]
 • মোট ৪,৩৪,৩০০
 • ঘনত্ব ৯৩০/কিমি (২৪০০/বর্গমাইল)
স্বাক্ষরতার হার
 • মোট ৪৪%
সময় অঞ্চল বিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইট অফিসিয়াল ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

ঘাটাইল উপজেলা বাংলাদেশের টাঙ্গাইল জেলার অধিভুক্ত একটি প্রশাসনিক এলাকা। বাংলাদেশের আধুনিকতম সেনানিবাসটি উপজেলা সদরের অদূরে অবস্থিত। এটি একটি কৃষিপ্রধান এলাকা। বর্তমানে এখানে গার্মেন্টস কারখানাসহ বেশ কয়েকটি কারখানা গড়ে ওঠছে।

অবস্থান ও আয়তন[সম্পাদনা]

এই উপজেলার অবস্থান ২৪°২৩´ থেকে ২৪°৩৪´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৯°৫৩´ থেকে ৯০°১৫´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ। এবং আয়তন: ৪৫১.৭১ বর্গ কিলোমিটার। এর উত্তরে গোপালপুরমধুপুর উপজেলা, দক্ষিণে কালিহাতিসখিপুর উপজেলা, পূর্বে ফুলবাড়িয়াভালুকা উপজেলা, পশ্চিমে ভুঞাপুরগোপালপুর উপজেলা

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ঘাটাইল নামের জনপদটি যে ভূমির উপর গড়ে ওঠেছে তা ‘মধুপুর কর্দম’ নামক আদিম প্রস্তর দ্বারা গঠিত। তবে সবটুকু নয়। উত্তর-দক্ষিণে বিস্তৃত গেরুয়া বর্ণের টিলাভূমিটি এ প্রাগৈতিহাসিক যুগের স্বাক্ষ্য বহন করে। এই অংশটুকু ধলাপাড়া, রসুলপুর, সন্ধানপুর ও দেওপাড়া ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত। এর বিস্তিৃতি উত্তরে দেওজানা থেকে দক্ষিণে দেওপাড়া পর্যন্ত। পূর্বপ্রান্তে রাধাকৃষ্ণের স্মৃতি বিজড়িত গুপ্তবৃন্দাবন এই টিলাভূমিতেই অবস্থিত। টিলাটি ক্রমশ নিচু হয়ে ঘাটাইল উপজেলা সদর থেকে দুই কিলোমিটার পূবে ঝড়কা বাজারের কাছে এসে উত্তর দক্ষিণে পলল বিস্তৃত ভূমিতে মিশে গেছে। এই পলল ভূমি তুলনামূলকভাবে নবীন। অনুমান করা হয় বয়স দুই হাজার বছরের কম হবে। এখানে ১৮৬১ সালে গোপালপুর থানার অধীনে পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপিত হয়ে ১৯০৬ সালে ঘাটাইল থানায় উন্নীত হয়।

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

এখানে গ্রাম ৪২৭টি, ইউনিয়ন ১৪টি, পৌরসভা ১টি ও মৌজা ৩০৬টি। ঘাটাইল উপজেলায় ১৪টি ইউনিয়ন হচ্ছেঃ দেউলাবাড়ী, ঘাটাইল, জামুরিয়া, দিগড়, দিঘলকান্দি, আনেহলা, দেওপাড়া, ধলাপাড়া, সন্ধানপুর, লোকেরপাড়া রসুলপুর,এবং নতুন ইউনিয়ন ৩ টি সংগ্রামপুর ইউনিয়ন,সাগরদিঘী ইউনিয়ন, লক্ষিন্দর ইউনিয়ন।

জনসংখ্যা উপাত্ত[সম্পাদনা]

উপজেলার মোট জনসংখ্যা ৪,৩৪,৩০০ জন। এর মধ্যে পুরুষ ২,১৩,৫২৬ জন এবং মহিলা ২,২০,৮০৪ জন। মোট জনসংখ্যার ৯৫.৪% মুসলিম, ৩.৪% হিন্দু এবং ১.২% অন্যান্য ধর্মালম্বী। উপজেলায় মোট ভোটার ২,৮৬,২০৭ জন। পুরুষ ভোটার ১,৪১,৬২৪ এবং মহিলা ভোটার ১,৪৪,৫৮৩ জন। উপজেলায় মো ১,০৪,০৩০ টি পরিবার রয়েছে।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

উপজেলার মানুষদের সাক্ষরতার হার ৪৪%।

  • কলেজের সংখ্যা: ০৭ টি (মহিলা কলেজ ০১ টি)
  • ফাজিল মাদ্রাসা: ০৫ টি
  • দাখিল মাদ্রাসাঃ ২৭ টি,
  • এবতেদিয়া মাদ্রাস (স্বতন্ত্র ও এমপিও ভূক্ত): ১২ টি,
  • সরকারি প্রাথ্যমিক বিদ্যালয়: ১৫৯ টি,
  • উচ্চ মাধ্যমিক সংলগ্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়: ০৪ টি,
  • রেজিষ্টার প্রাথ্যমিক বিদ্যালয়: ১৭ টি,
  • নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়: ০৬ টি,
  • উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় (বালক): ৩৬ টি,
  • উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় (বালিকা): ০৭ টি।

এখানকার উল্লেখযোগ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হচ্ছেঃ

কৃষি[সম্পাদনা]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

  • নন্দনগাতি পুরাতন হিন্দু মন্দির (স্থাপিত 1700)
  • সাধূর গলগন্ডা পূর্বচড়া দিঘি( আয়তন 40 একর)
  • ধলাপাড়া চৌধুরী বাড়ি,
  • ধলাপাড়া বাজার জামে মসজিদ,
  • সাগরদীঘি,
  • গুপ্তবৃন্ধাবন, সাগরদীঘি,
  • অনিকনগর পার্ক,তালতলা-সাগরদিঘী
  • আলাদিনস্ পার্ক, সাগরদীঘি,
  • ঝরোকা,
  • শহীদ সালাহ্ উদ্দিন সেনানিবাস,
  • সৎসঙ্গ আশ্রম,পাকুটিয়া,
  • ফয়তারপাড়া ব্রিজ,
  • পাঁচটিকড়ী পুরাতন ঠাকুর বাড়ী,
  • মাকেশ্বর নদী,
  • শালিয়াবহ গজারী এবং সেগুন বাগান, রসুলপুর,
  • সন্ধানপুর বনাঞ্চল,
  • দেওপাড়া অম্রকানন ও বনাঞ্চল,
  • সাইট শৈলা জামে মসজিদ

বিবিধ[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন, ২০১৪)। "এক নজরে ঘাটাইল"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। সংগৃহীত ১০ জুলাই, ২০১৫ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]