কালিয়াকৈর উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
কালিয়াকৈর
উপজেলা
কালিয়াকৈর বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
কালিয়াকৈর
কালিয়াকৈর
বাংলাদেশে কালিয়াকৈর উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°৪′৩৪″ উত্তর ৯০°১২′৫১″ পূর্ব / ২৪.০৭৬১১° উত্তর ৯০.২১৪১৭° পূর্ব / 24.07611; 90.21417স্থানাঙ্ক: ২৪°৪′৩৪″ উত্তর ৯০°১২′৫১″ পূর্ব / ২৪.০৭৬১১° উত্তর ৯০.২১৪১৭° পূর্ব / 24.07611; 90.21417 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ  বাংলাদেশ
বিভাগ ঢাকা বিভাগ
জেলা গাজীপুর জেলা
আয়তন
 • মোট ৩১৪.১৪ কিমি (১২১.২৯ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (1991)
 • মোট ২,৩২,৯১৫
 • ঘনত্ব ৭৪০/কিমি (১৯০০/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চল বিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড ১৭৫০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইট প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

কালিয়াকৈর উপজেলা বাংলাদেশের গাজীপুর জেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা।

অবস্থান[সম্পাদনা]

গাজীপুর সদর উপজেলার পশ্চিমে ২৪.৪ ডিগ্রি উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯০.১৪ ডিগ্রি পূর্ব দ্রাঘিমা অংশে কালিয়াকৈর উপজেলা অবস্থিত। এই উপজেলার উত্তরে শ্রীপুর উপজেলা, ও সখিপুর উপজেলা,,পূর্বে গাজীপুর সদর উপজেলা,দক্ষিণে সাভার উপজেলা এবং ধামরাই উপজেলা অবস্থিত।

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

এ উপজেলায় ১ টি পৌরসভা ও ৯ টি ইউনিয়ন রয়েছে; এগুলো হলো:

  • কালিয়াকৈর পৌরসভা;
  • ফুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন;
  • চাপাইর ইউনিয়ন;
  • বোয়ালী ইউনিয়ন;
  • মৌচাক ইউনিয়ন;
  • শ্রীফলতলী ইউনিয়ন ;
  • সূত্রাপুর ইউনিয়ন;
  • আটাবহ ইউনিয়ন;
  • মধ্যপাড়া ইউনিয়ন;
  • ঢালজোড়া ইউনিয়ন।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

ভাষা ও সংষ্কৃতি[সম্পাদনা]

শ্রীপুর উপজেলার ভূ-প্রকৃতি ও ভৌগলিক অবস্থান এই উপজেলার মানুষের ভাষা ও সংস্কৃতি গঠনে ভূমিকা রেখেছে। এখানে ভাষার মূল বৈশিষ্ট্য বাংলাদেশের অন্যান্য উপজেলার মতই, তবুও কিছুটা বৈচিত্র্য খুঁজে পাওয়া যায়। যেমন কথ্য ভাষায় মহাপ্রাণধ্বনি অনেকাংশে অনুপস্থিত, অর্থাৎ ভাষা সহজীকরণের প্রবণতা রয়েছে। উপজেলা উপজেলার আঞ্চলিক ভাষার সাথে সন্নিহিত ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইলও ঢাকার ভাষার অনেকটা সাযুজ্য রয়েছে। শ্রতলক্ষা নদীর গতিপ্রকৃতি পাদদেশে শ্রীপুর, মানুষের আচার-আচরণ, খাদ্যাভ্যাস, ভাষা, সংস্কৃতিতে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।

এই এলাকার ইতিহাস পর্যালোচনায় দেখা যায় যে শ্রীপুর সভ্যতা বহুপ্রাচীন। এই এলা[১]কায় প্রাপ্ত প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন প্রাচীন সভ্যতার বাহক হিসেবে দেদীপ্যমান। সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে শ্রীপুর অবদানও অনস্বীকার্য।  প্রমুখ শিল্প সাহিত্য ভুবনবিখ্যাত সংগীতজ্ঞদের স্মৃতি বিজড়িত শ্রীপুর।

মুক্তিযুদ্ধ[সম্পাদনা]

খেলাধুলা ও বিনোদন[সম্পাদনা]

প্রাচীনকাল থেকেই  কালিয়াকৈর উপজেলা জনেগাষ্ঠী ক্রীড়ামোদী। এখানে প্রতিবছরই বিভিন্ন টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়। এখানকার জনপ্রিয় খেলার মধ্যে বর্তমানে ক্রিকেট ও ফুটবলের আধিপত্য দেখা গেলেও অন্যান্য খেলাও পিছিয়ে নেই। কালিয়াকৈরে বেশ কয়েকটি খেলার মাঠ রয়েছে।  প্রতি বছর নিম্নলিখিত ফুটবল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়ঃ

(ক) গোল্ডকাপ ফুটবল

(খ) প্রিমিয়ার ফুটবল লীগ

(গ) ১ম বিভাগ ফুটবল লীগ

(ঘ) বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ।

(ঙ) বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ।

বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট খেলায় গত [২]২০১২সালে বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।

ফুটবল, ক্রিকেট, ভরিবল, ব্যাটমিন্টন, ০২টি সিনেমাহল এবং নন্দনপার্ক

দর্শনীয় এবং গুরুত্বপুর্ণ স্থানসমূহ[সম্পাদনা]

এছাড়াও মৌচাক ইউনিয়নের বাঁশতলী গ্রামে সাম্প্রতিককালে ৩০০ বছরের পুরানো একটি সাদা পাকুড় গাছ আবিস্কৃত হয়েছে যা এ পর্যন্ত বাংলাদেশের আর কোথাও দেখা যায় নি। গাছটিকে ঘিরে পর্যটনশিল্প গড়ে উঠার সম্ভাবনা রয়েছে।[৩]

নদ-নদী[সম্পাদনা]

তুরাগনদী, বংশাই নদী,

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • মেঘনাদ সাহা।[৪]

বিবিধ[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "কালিয়াকৈর উপজেলা | গাজীপুর প্রেস"গাজীপুর প্রেস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৮-০৭ 
  2. "কালিয়াকৈর উপজেলা | গাজীপুর প্রেস"গাজীপুর প্রেস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৮-০৭ 
  3. ৩০০ বছর পর নামকরণ - দৈনিক কালের কন্ঠ (২৩ মে ২০১৫)
  4. "Saha, Meghnad - Banglapedia"en.banglapedia.org (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৭-১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]