বাংলাপিডিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বাংলাপিডিয়া
বাংলাপিডিয়া.jpg
বাংলাদেশ জাতীয় জ্ঞানকোষ
লেখক অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম (মুখ্য সম্পাদক)
দেশ  বাংলাদেশ
ভাষা ইংরেজী, বাংলা
ধরণ বিশ্বকোষ
প্রকাশক বাংলাপিডিয়া ট্রাস্ট, বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি
প্রকাশনার তারিখ
জানুয়ারি ২০০৩
মিডিয়া ধরণ প্রিন্ট , সিডি-রোম, অনলাইন
পাতা ১০ খণ্ড
আইএসবিএন ISBN 984-32-0576-6
মূল পাঠ্য
bn.banglapedia.org অনলাইনে
অনুবাদ en.banglapedia.org বাংলাপিডিয়া অনলাইনে

বাংলাপিডিয়া বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি কর্তৃক প্রকাশিত বাংলাদেশের প্রথম জাতীয় জ্ঞানকোষ।[১] এই বিশ্বকোষ বাংলাইংরেজি দুই ভাষাতে[২] মুদ্রিত সংস্করণ, ইলেকট্রনিক সংস্করণ ও সিডি-রম আকারে উপলব্ধ।[৩] প্রতি দুই বছর অন্তর হালনাগাদ করার পরিকল্পনা নিয়ে[৪]

বাংলাপিডিয়া ২০০৩ খ্রিস্টাব্দে ১০ খণ্ডে প্রকাশিত হয়।[৫] ২০০৯ সালে বাংলাপিডিয়ার দ্বিতীয় সংস্করণ প্রকাশের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিলো এবং ২০১২ সালে তা প্রকাশ করা হয় ।[৬]

এই বিশ্বকোষের প্রধান সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম[৭] বাংলাদেশ ও বিদেশের ১৪৫০ জন লেখকের লেখা বাংলাপিডিয়ায় স্থান পেয়েছে।[৫][৪] এই বিশ্বকোষের ছয়টি সম্পাদকীয় বিভাগে মোট ৫,৭০০ ভুক্তি রয়েছে।[৩] প্রতি বিভাগ একজন সম্পাদকের তত্ত্বাবধানে রয়েছে।[৫][৪][৮] বাংলাদেশ সরকার ছাড়াও ইউনেস্কো, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিগত মালিকানার সংগঠন এই বিশ্বকোষ নির্মাণে অর্থ সাহায্য করে থাকেন।[৫][৯] এই প্রকল্পের জন্য আট লক্ষ বাংলাদেশী টাকা ধার্য্য করা হলেও বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি এই প্রকল্পে আট কোটি বাংলাদেশী টাকা ব্যয় করে।[৫][১]

বাংলাপিডিয়া একটি সাধারণ বিশ্বকোষ নয়, এটি প্রধানতঃ বাংলাদেশ বিষয়ক বিশ্বকোষ।[৯] বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ বিষয়ক নিবন্ধগুলি সম্বন্ধে বিতর্ক থাকলেও বাংলাইংরেজি ভাষার এই বিশ্বকোষ প্রকাশের পরে জনপ্রিয়তা লাভ করে।[৪]

বাংলা ভাষার বিশ্বকোষের ইতিহাস[সম্পাদনা]

বাংলায় বিশ্বকোষ রচনার পথিকৃৎ উইলিয়াম কেরির পুত্র ফেলিক্স কেরি (১৭৮৬-১৮২২)। তিনি এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকার পঞ্চম সংস্করণ অনুসরণ করে কাজ শুরু করেছিলেন। এই দুর্গম পথে আরও কাজ করেছেন মহারাজা কালিকৃষ্ণ দেব (সদবিদ্যাবলি), কৃষ্ণমোহন ব্যানার্জি (বিদ্যাকল্পদ্রুম), রাজকৃষ্ণ রায় ও শরৎচন্দ্র দেব (ভারতকোষ) এবং রঙ্গলাল মুখোপাধ্যায়, ত্রৈলোক্যনাথ মুখোপাধ্যায় ও নগেন্দ্রনাথ বসু (বিশ্বকোষ)। শেষেরটি সবচেয়ে পূর্ণাঙ্গ। এর ২২ খণ্ডের কাজ শেষ করতে ২২ বছর লেগেছিল। পরবর্তীকালে প্রকাশিত শিক্ষাকোষ-এর জন্য অমূল্যচরণ বিদ্যাভূষণ ৩৮ বছর ধরে তথ্য-উপাত্ত-রসদ সংগ্রহ করেছিলেন। ভারত বিভাগের পর ১৯৫৯ সালে বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদ প্রকাশ করে পাঁচ খণ্ডের ভারতকোষ। এসব প্রাথমিক প্রচেষ্টার অধিকাংশ অসম্পূর্ণতা দূর করে বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি পাঠকের হাতে পৌঁছে দিয়েছিল বাংলাপিডিয়া।[১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ "Banglapedia"Bangladesh। Asia Pacific Cultural Centre for UNESCO। ৭ জুন ২০০৭-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত ২০০৭-০৬-০৭ 
  2. Iqbal, Iftekhar (২০০৬-১১-১৬)। "The case for Bangladesh Studies"। The Daily Star। সংগৃহীত ২০০৭-০৬-০৭ 
  3. ৩.০ ৩.১ Staff Correspondent (২০০৪-০১-০২)। "Banglapedia on CD-Rom to hit market by February"। The New Age। আসল থেকে ২০০৫-০২-০৭-এ আর্কাইভ করা। সংগৃহীত ২০০৭-০৭-২৩ 
  4. ৪.০ ৪.১ ৪.২ ৪.৩ Akkas, Abu Jar M (২০০৪-০৫-২৩)। "Banglapedia edition every 2 years"। The Weekly Holiday। আসল থেকে ২০০৫-১২-১৩-এ আর্কাইভ করা। সংগৃহীত ২০০৭-০৬-০৭ 
  5. ৫.০ ৫.১ ৫.২ ৫.৩ ৫.৪ UNB (২০০৩-০৩-২৪)। "Compilation of Banglapedia completed"General news। Sustainable Development Networking Programme (SDNP)। সংগৃহীত ২০০৮-০১-১৯ 
  6. Sirajul Islam and Ahmed A. Jamal, সম্পাদক (২০১২), "Welcome to Banglapedia", Banglapedia: National Encyclopedia of Bangladesh (Second সংস্করণ), Asiatic Society of Bangladesh 
  7. Khan, Mubin S (২০০৬-০১-০১)। "Professor Sirajul Islam: Making history"New Age New Year Special 2006 (The New Age)। আসল থেকে ২০০৭-০৫-১১-এ আর্কাইভ করা। সংগৃহীত ২০০৭-০৬-০৭ 
  8. Islam, Sirajul (জানুয়ারি ২০০৩)। Banglapedia: National Encyclopedia of Bangladesh। Dhaka, Bangladesh: Asiatic Society of Bangladesh। আইএসবিএন 978-984-32-0576-6 
  9. ৯.০ ৯.১ Zaman, Mustafa; Ahsan, Shamim (২০০৩-০৯-০২)। "The Banglapedia and its Making"Star Magazine (The Daily Star)। সংগৃহীত ২০১৫-০৫-১২ 
  10. স্বাধীন বাংলাদেশের অন্যতম গৌরবসৌধ

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]