ঘাটাইল গন পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ঘাটাইল সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়
Ghatail Govt Pilot High School
ঠিকানা
মেইন রোড, ঘাটাইল
টাঙ্গাইল
 বাংলাদেশ
তথ্য
নীতিবাক্যজ্ঞানই শক্তি
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৩৯
কার্যক্রম শুরু১৯৩৯
প্রতিষ্ঠাতাব্রিটিশ সরকার
কর্মকর্তা৬০
শিক্ষকমণ্ডলী৫০
শ্রেণী৬ষ্ঠ - ১০ম শ্রণী
লিঙ্গসহশিক্ষা কার্যক্রম
বয়সসীমা১১-১৮
শিক্ষার্থী সংখ্যা২,৫০০
ভাষার মাধ্যমবাংলা
বিদ্যালয়ের কার্যসময়৮ ঘণ্টা
ক্যাম্পাসের আকার০.৫ একর (২,০০০ মি)
ক্যাম্পাসের ধরনউপশহর
ক্রীড়াফুটবল, ক্রিকেট, ভলিবল, ব্যাডমিন্টন
শিক্ষা বোর্ডঢাকা শিক্ষা বোর্ড

ঘাটাইল গণ পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয় বাংলাদেশের টাঙ্গাইল জেলার একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।[১] সহশিক্ষা পদ্ধতিতে শিক্ষা দানকারী এই প্রতিষ্ঠানটিতে ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণী পর্যন্ত পাঠদান করা হয়।

অবস্থান[সম্পাদনা]

এই বিদ্যালয়টি ঢাকা বিভাগের টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইল উপজেলায় অবস্থিত।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

এই বিদ্যালয়টি ১৯৩৯ সালে স্থাপিত হয়েছ।

ভর্তি প্রক্রিয়া[সম্পাদনা]

লিখিত এবং মৌখিক পরীক্ষার ভিত্তিতে ৬ষ্ঠ, ৯ম শ্রেণীতে ছাত্র ভর্তি করা হয়ে থাকে। প্রায় ২৫০০ জন শিক্ষার্থী এই বিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করে থাকে।

পাঠ্যক্রম[সম্পাদনা]

জাতীয় শিক্ষাক্রমের অধীনে বাংলা মাধ্যমে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান করা হয়। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণীতে বিজ্ঞান, মানবিক, বাণিজ্য এবং কারিগরি শাখায় শিক্ষার্জনের সুযোগ রয়েছে।

পাঠদান পদ্ধতি[সম্পাদনা]

শিক্ষার্থীদেরকে হাতে-কলমে যত্নসহকারে পাঠদান করা হয়। পর্বশেষ পরীক্ষা ছাড়াও প্রতি পর্বে দু'টি করে শ্রেণী-পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়। জুনিয়র বৃত্তি ও এসএসসি জন্য ছাত্রদেরকে সুপরিকল্পিতভাবে প্রস্ততি গ্রহণে সহায়তা করা হয়। শ্রেণী শিক্ষকের মাধ্যমে ছাত্রদের পাঠন্নতি নিয়মিতভাবে পর্যবেক্ষণ হয়।

সহ পাঠ্যক্রম ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদেরকে দৈহিক ও মানসিক সুষম উৎকর্ষ সাধনের লক্ষ্যে সহ-পাঠ্যক্রম কর্মসূচির ব্যবস্থা রয়েছে। এখানে আবাসিক ছাত্রদের জন্য প্রাতঃকালীন শরীর-চর্চা ও বৈকালিক খেলাধুলা বাধ্যতামূলক। ফুটবল, ক্রিকেট, ভলিবল, ব্যাডমিন্টন নিয়মিত খেলা হয়। এছাড়া আন্তঃকক্ষ খেলাধুলা ও প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা রয়েছে। ছাত্রদের মধ্যে সাংস্কৃতিক চেতনা উজ্জীবিত করার লক্ষ্যে বার্ষিক সাংস্কৃতিক সপ্তাহের আয়োজন করা হয়; এতে হামদ-নাত, ক্বিরাত, বক্তৃতা, বিতর্ক, আবৃতি, অভিনয়, কৌতুক, ছড়াগান, গল্প বলা, নাট্যানুষ্ঠান, সংগীতানুষ্ঠান, চিত্রাংকন ইত্যাদি প্রতিযোগিতার ব্যবস্থা করা হয়। ডাক টিকেট সংগ্রহ, চিত্রাংকন, ছবি তোলা, বাগান করা, মাটির কাজ, সঙ্গীত চর্চা, স্কাউটিং, নাট্যচর্চা, বিজ্ঞান ক্লাব, ব্যাণ্ড শিক্ষা, জুনিয়র ক্যাডেট কোর প্রভৃতিম কার্যক্রমও এর আওতাভুক্ত। শিক্ষার্থীরা জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিভিন্ন শিক্ষা সহায়ক কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে থাকে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ঘাটাইলে শেখ রাসেল শিশু কিশোর পরিষদের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত"ঘাটাইল ডট কম | Ghatail.com | Online Newspaper। ২০১৮-০৬-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৮-০৯