সাগরদিঘী ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

সাগরদিঘী বাংলাদেশের টাংগাইল জেলার ঘাটাইল উপজেলা সদর থেকে প্রায় ৩০ কি.মি. পূর্বে সাগরদীঘি নামক একটি স্থান রয়েছে,এটি ঘাটাইল উপজেলার একটি উনিয়ন। এখানে ১২.৮০ একর জমির উপর একটি বিখ্যাত দীঘি আছে। দীঘিটি খনন করেন স্থানীয় পাল বংশীয় সাগর রাজা।

অবস্থান[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের টাংগাইল জেলার ঘাটাইল উপজেলা সদর থেকে প্রায় ৩০ কি.মি. পূর্বে সাগরদীঘি নামক স্থানটি অবস্থিত,সাগরদিঘী এটি বিশাল বাজার যার আয়তন ৭/৮ বর্গ কিলোমিটার প্রায়,এখানে রয়েছে একটি কলেজ, একটি উচ্চ বিদ্যালয়, একটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,একটি দাখিল মাদ্রাসা,একটি সরকারী প্রা:বিদ্যালয়, ৭ টি মসজিদ, ৩ টি মন্দির, ১ টি পশু হাসপাতাল,১ ভূমি রেজিস্টারি অফিস,১ বিট অফিস,৩ টি দিঘী,১ টি ইউনিয়ন পরিষদ অফিস, ১টি পুলিশ ইনভেস্ট্রীকেশন কেন্দ্র।

সাগরদিঘীর নিকটতম উল্লেখযোগ্য গ্রামসমূহ,আকন্দের বাইদ, ইন্দ্রাবাইদ,বেইলা,হাতিমারা,শুলাকুড়া,জালালপুর,পাহাড়ীয়া পাড়া,পাগারিয়া পাড়া,তালতলা,মনতলা,সুকতা,হারংচালা।

এলাকার উল্লেখযোগ্য কৃষি কাজ:- কলা,পেঁপে,আম, বেগুন,আনারস, করলা,হলুদ,কচু,ধান,কাঁঠাল,পিয়ারা, এবং লেয়ার মুরগি ও ব্রয়েলার মুরগি ফার্ম সহ আরো অন্যান্য সবজি প্রচুর পরিমাণে চাষ হয়ে থাকে যা এলাকার চাহিদা মিটিয়ে দেশ ও বিদেশে রপ্তানি করা হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

দীঘিটি খনন করেন স্থানীয় পাল বংশীয় সাগর রাজা। এই দিঘির পশ্চিমপাড়ে শান বাঁধানো ঘাটলার ধ্বংসাবশেষ এখনও লক্ষ করা যায় যা সাগর রাজার বাসস্থান বলে ধারণা করা হয়। এখানকার পূর্ব নাম ছিলো লোহানী। সাগরদীঘি থেকে সামান্য দক্ষিণে এর চেয়েও প্রকান্ড এক দীঘি আছে যার আয়তন হবে ২৫ একর জার নাম বইন্যদীঘি। সাগর রাজার পুত্র বনরাজ পাল এটি খনন করেছিলেন।

বইন্যদীঘি

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]