নারান্দিয়া ইউনিয়ন, কালিহাতী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নারান্দিয়া
ইউনিয়ন
নারান্দিয়া ঢাকা বিভাগ-এ অবস্থিত
নারান্দিয়া
নারান্দিয়া
নারান্দিয়া বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
নারান্দিয়া
নারান্দিয়া
বাংলাদেশে নারান্দিয়া ইউনিয়ন, কালিহাতীর অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৪°২৪′১৭″ উত্তর ৮৯°৫৪′৫২″ পূর্ব / ২৪.৪০৪৭২° উত্তর ৮৯.৯১৪৪৪° পূর্ব / 24.40472; 89.91444স্থানাঙ্ক: ২৪°২৪′১৭″ উত্তর ৮৯°৫৪′৫২″ পূর্ব / ২৪.৪০৪৭২° উত্তর ৮৯.৯১৪৪৪° পূর্ব / 24.40472; 89.91444 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগঢাকা বিভাগ
জেলাটাঙ্গাইল জেলা
উপজেলাকালিহাতী উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
মানচিত্র

নারান্দিয়া ইউনিয়ন বাংলাদেশের টাঙ্গাইল জেলার অন্তর্গত কালিহাতি উপজেলার একটি ইউনিয়ন ।[১]

আয়তন[সম্পাদনা]

এই ইউনিয়নের আয়তন ৩৮৯৫ একর (১৫,.৭৬বর্গ কিলোমিটার) বা ৩৮.৮৫ বর্গমাইল ।

ভৌগলিক উপাত্ত[সম্পাদনা]

অবস্থান[সম্পাদনা]

পূর্বে বাংড়া ইউনিয়ন ও ঘাটাইল উপজেলা, পশ্চিমে সল্লা ইউনিয়ন, দক্ষিণে বাংড়া ও এলেঙ্গা পৌরসভা, উত্তরে ভূঞাপুর ও ঘাটাইল উপজেলা।

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

মোট ৩১৮৮১ জন- পুরুষ ১৬,২০০ জন, মহিলা: ১৫,৬৮১ জন।

শিক্ষা[সম্পাদনা]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

সরকারী প্রা: বিদ্যালয় : ১৬ টি, উচ্চ বিদ্যালয় : ৬ টি, স্কুল এন্ড কলেজ : ২ টি, আলীয়া মাদ্রাসা : ১ টি, বিএম কলেজ : ১ টি, কৃষি প্রশিক্ষনায়তন ও কলেজ : ১ টি

এম কে জামান প্রিপারেটরি স্কুল, নারান্দিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নারান্দিয়া টিআরকেএন উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় এন্ড কলেজ, নগরবাড়ী কৃষি কলেজ, কারিগরি কলেজ

ইতিহাস[সম্পাদনা]

হাট ও বাজার[সম্পাদনা]

নারান্দিয়া বাজার, সয়া হাট, পালিমা বাজার।

গ্রাম এবং মৌজা[সম্পাদনা]

মৌজার সংখ্যা : ২৭ টি, গ্রামের সংখ্যা : ৪৩ টি, খানার সংখ্যা : ৭২৯৬ টি

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

বিবিধ[সম্পাদনা]

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র : ১ টি, উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র : ১টি, মসজিদের সংখ্যা : ৪৭ টি,

মন্দিরের সংখ্যা : ১২ টি, ডাকঘর: ২ টি, এনজিও : ১৫ টি, ভূমি অফিস : ১ টি, ব্যাংক : ৩ টি, ক্লাবের সংখ্যা : ২৩টি (রেজিষ্টিকৃত ৩টি), পাঠাগারের সংখ্যা : ১২ টি

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

১. নারান্দিয়া

  1. "Designated Officers"। ৪ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯