টেস্ট ক্রিকেটে হ্যাট্রিকের তালিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

ক্রিকেট খেলায় যখন একজন বোলার ধারাবাহিকভাবে তিনটি বল ছুড়ে তিনজন ভিন্ন ভিন্ন ব্যাটসম্যানকে আউট করার মাধ্যমে তিনটি উইকেট লাভ করেন, তখন ক্রিকেটের পরিভাষায় তা হ্যাট্রিক নামে পরিচিত পায়। টেস্ট ক্রিকেট খেলায় এটি একটি অন্যতম সম্পর্কযুক্ত বিষয়, কিন্তু বিরল ঘটনা হিসেবে বিবেচ্য। ১৭ আগস্ট, ২০১৭ তারিখ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত ২,২৭০টি টেস্ট ক্রিকেটে মাত্র ৪৩বার হ্যাট্রিকের ঘটনা ঘটেছে।[১] দশটি টেস্টখেলুড়ে দেশের কমপক্ষে একজন বোলার টেস্ট হ্যাট্রিক লাভের মর্যাদা লাভ করেছেন।[২]

প্রথম টেস্ট হ্যাট্রিকটি করেছেন - অস্ট্রেলীয় পেস বোলার ফ্রেড স্পফোর্থ। তিনি মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ২ জানুয়ারি, ১৮৭৯ তারিখে অনুষ্ঠিত ৩য় টেস্টে ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে এ কীর্তিগাঁথাটি সৃষ্টি করেছিলেন। সাম্প্রতিককালের সর্বশেষ হ্যাট্রিকের ঘটনাটি ঘটে ইংল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার খেলায়। ৩১ জুলাই, ২০১৭ তারিখে ইংরেজ অফ স্পিনার মঈন আলী এ কৃতিত্বের অধিকারী হন।

ইংল্যান্ডের টেস্ট ক্রিকেটার স্টুয়ার্ট ব্রড ২০১১ সালে নটিংহামে ভারতীয় দলের বিপক্ষে তার ১ম হ্যাট্রিক করার পর প্রথম ইংরেজ বোলাররূপে ২য় হ্যাট্রিক করেন। এরফলে তিনি ২য় হ্যাট্রিক লাভকারী চার বোলারের একজন হিসেবে পরিগণিত হলেন।[৩]

তিনজন খেলোয়াড় টেস্ট ক্রিকেট অভিষেকেই হ্যাট্রিক করার বিরল কৃতিত্ব স্থাপন করেন। ১৯৩০ সালে ইংল্যান্ডের মরিস অলম, ১৯৭৬ সালে পিটার পেথেরিক এবং ১৯৯৪ সালে অস্ট্রেলিয়ার ড্যামিয়েন ফ্লেমিং অভিষেক টেস্টে হ্যাট্রিক করেছিলেন।[২] জিওফ গ্রিফিন হ্যাট্রিক করলেও পুরো টেস্ট জীবনে মাত্র আট উইকেট লাভ করেছিলেন।[২] হ্যাট্রিক লাভের পর গ্রিফিন পুণঃপুণঃ থ্রোয়িং করলে আম্পায়ার তাঁকে বল নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন। এরফলে টেস্টে তিনি আর কখনও বোলিং করেননি গ্রিফিন।[৪] একমাত্র বোলাররূপে পিটার সিডল নিজের জন্মদিনে হ্যাট্রিক করেছিলেন।[৫]

বাংলাদেশের অল-রাউন্ডার সোহাগ গাজী নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১৩ অক্টোবর, ২০১৩ তারিখে এ বিরল কৃতিত্বের অন্যতম অংশীদার হন। বাংলাদেশী ক্রিকেট খেলোয়াড়দের মধ্যে অলোক কাপালি’র পর বাংলাদেশের টেস্ট ক্রিকেট ইতিহাসে দ্বিতীয় হ্যাট্রিক লাভ করেন তিনি। এছাড়াও, টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ১ম টেস্ট সোহাগ গাজী হ্যাট্রিকসহ ৬ উইকেটসেঞ্চুরি করে বিশ্বরেকর্ড গড়েন।[৬] তিনি ধারাবাহিকভাবে কোরে অ্যান্ডারসন, বিজে ওয়াটলিং এবং ডগ ব্রেসওয়েলকে আউট করে এ বিরল নজির স্থাপন করেন।

বোলার কর্তৃক একই টেস্ট ম্যাচের দুই ইনিংসে দুইটি হ্যাট্রিক লাভের ঘটনা ঘটেছে মাত্র একবার। অস্ট্রেলীয় লেগ স্পিনার জিমি ম্যাথুজ ২৮ মে, ১৯১২ তারিখে ওল্ড ট্রাফোর্ডে অনুষ্ঠিত ত্রি-দেশীয় প্রতিযোগিতায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এ অসম্ভব কীর্তিগাঁথা রচনা করেছিলেন। উভয় হ্যাট্রিকই পূর্ণ করেন দক্ষিণ আফ্রিকার টমি ওয়ার্ডকে আউট করার মাধ্যমে।

অস্ট্রেলীয় বোলার মার্ভ হিউজ হচ্ছেন একমাত্র বোলার যিনি একটি হ্যাট্রিক সম্পন্ন করতে তিন ওভারের ছোঁয়া লাগিয়েছেন। প্রথম উইকেট পান ওভারের শেষ বলে। পরবর্তী ওভারের প্রথম বলে ব্যাটসম্যানকে আউট করলে প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসের সমাপ্তি ঘটে। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানকে আউট করে তাঁর কাঙ্খিত হ্যাট্রিক পূর্ণ করেন।

১৯৭০ সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিশ্ব একাদশের পক্ষ হয়ে পাঁচ খেলার সিরিজে অংশগ্রহণ করেন দক্ষিণ আফ্রিকান এডি বার্লো। তন্মধ্যে, হেডিংলিতে অনুষ্ঠিত চতুর্থ খেলায় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনি তৎকালীন ১৭তম হ্যাট্রিক করেন। পাঁচ বলে প্রথম তিন উইকেটসহ চারজন ব্যাটসম্যানকে আউট করেন।[৭] শুরুতে এ সিরিজের খেলাগুলোকে টেস্ট ম্যাচ হিসেবে গণ্য করা হলেও পরবর্তীকালে এ মর্যাদা প্রত্যাহার করা হয়েছিল।[৮]

টেস্ট হ্যাট্রিকসমূহ[সম্পাদনা]

টেস্ট ক্রিকেটে হ্যাট্রিকের তালিকা
নং বোলার পক্ষ প্রতিপক্ষ ইনিংস টেস্ট আউট স্থান তারিখ তথ্যসূত্র
স্পফোর্থ, ফ্রেডফ্রেড স্পফোর্থ  অস্ট্রেলিয়া  ইংল্যান্ড ১/১ মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, মেলবোর্ন ২ জানুয়ারি, ১৮৭৯ [৯]
বেটস, বিলিবিলি বেটস  ইংল্যান্ড  অস্ট্রেলিয়া ২/৩ মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, মেলবোর্ন ২০ জানুয়ারি, ১৮৮৩ [১০]
ব্রিগস, জনিজনি ব্রিগস  ইংল্যান্ড  অস্ট্রেলিয়া ২/৩ সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড, সিডনি ২ ফেব্রুয়ারি, ১৮৯২ [১১]
লোহম্যান, জর্জজর্জ লোহম্যান  ইংল্যান্ড  দক্ষিণ আফ্রিকা ১/৩ সেন্ট জর্জেস পার্ক, পোর্ট এলিজাবেথ ১৪ ফেব্রুয়ারি, ১৮৯৬ [১২]
হার্ন, জ্যাকজ্যাক হার্ন  ইংল্যান্ড  অস্ট্রেলিয়া ৩/৫ হেডিংলি, লিডস ৩০ জুন, ১৮৯৯ [১৩]
ট্রাম্বল, হিউহিউ ট্রাম্বল  অস্ট্রেলিয়া  ইংল্যান্ড ২/৫ মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, মেলবোর্ন ৪ জানুয়ারি, ১৯০২ [১৪]
ট্রাম্বল, হিউহিউ ট্রাম্বল  অস্ট্রেলিয়া  ইংল্যান্ড ৫/৫ মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, মেলবোর্ন ৮ মার্চ, ১৯০৪ [১৫]
ম্যাথুজ, জিমিজিমি ম্যাথুজ  অস্ট্রেলিয়া  দক্ষিণ আফ্রিকা ১/৩ ওল্ড ট্রাফোর্ড, ম্যানচেস্টার ২৮ মে, ১৯১২ [১৬]
ম্যাথুজ, জিমিজিমি ম্যাথুজ  অস্ট্রেলিয়া  দক্ষিণ আফ্রিকা ১/৩ ওল্ড ট্রাফোর্ড, ম্যানচেস্টার ২৮ মে, ১৯১২ [১৬]
১০ অলম, মরিসমরিস অলম  ইংল্যান্ড  নিউজিল্যান্ড ১/৪ ল্যাঙ্কাস্টার পার্ক, ক্রাইস্টচার্চ ১০ জানুয়ারি, ১৯৩০ [১৭]
১১ গডার্ড, টমটম গডার্ড  ইংল্যান্ড  দক্ষিণ আফ্রিকা ১/৫ ওল্ড ওয়ান্ডারার্স, জোহেন্সবার্গ ২৬ ডিসেম্বর, ১৯৩৮ [১৮]
১২ লোডার, পিটারপিটার লোডার  ইংল্যান্ড  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪/৫ হেডিংলি, লিডস ২৫ জুলাই, ১৯৫৭ [১৯]
১৩ ক্লাইন, লিন্ডসেলিন্ডসে ক্লাইন  অস্ট্রেলিয়া  দক্ষিণ আফ্রিকা ২/৫ নিউল্যান্ডস, কেপ টাউন ৩ জানুয়ারি, ১৯৫৮ [২০]
১৪ হল, ওয়েসওয়েস হল  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  পাকিস্তান ৩/৩ বাগ-ই-জিন্নাহ, লাহোর ২৯ মার্চ, ১৯৫৯ [২১]
১৫ গ্রিফিন, জিওফজিওফ গ্রিফিন  দক্ষিণ আফ্রিকা  ইংল্যান্ড ২/৫ লর্ড’স, লন্ডন ২৪ জুন, ১৯৬০ [২২]
১৬ গিবস, ল্যান্সল্যান্স গিবস  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  অস্ট্রেলিয়া ৪/৫ অ্যাডিলেড ওভাল, অ্যাডিলেড ৩০ জানুয়ারি, ১৯৬১ [২৩]
১৭ পেথেরিক, পিটারপিটার পেথেরিক  নিউজিল্যান্ড  পাকিস্তান ১/৩ গাদ্দাফি স্টেডিয়াম, লাহোর ৯ অক্টোবর, ১৯৭৬ [২৪]
১৮ ওয়ালশ, কোর্টনিকোর্টনি ওয়ালশ  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  অস্ট্রেলিয়া ১ ও ২ ১/৫ ব্রিসবেন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, ব্রিসবেন ১৮-২০ নভেম্বর, ১৯৮৮ [২৫]
১৯ হিউজ, মার্ভমার্ভ হিউজ  অস্ট্রেলিয়া  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১ ও ২ ২/৫ ওয়াকা, পার্থ ৩-৪ ডিসেম্বর, ১৯৮৮ [২৬]
২০ ফ্লেমিং, ড্যামিয়েনড্যামিয়েন ফ্লেমিং  অস্ট্রেলিয়া  পাকিস্তান ২/৩ রাওয়ালপিন্ডি ক্রিকেট স্টেডিয়াম, রাওয়ালপিন্ডি ৯ অক্টোবর, ১৯৯৪ [২৭]
২১ ওয়ার্ন, শেনশেন ওয়ার্ন  অস্ট্রেলিয়া  ইংল্যান্ড ২/৫ মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, মেলবোর্ন ২৯ ডিসেম্বর, ১৯৯৪ [২৮]
২২ কর্ক, ডমিনিকডমিনিক কর্ক  ইংল্যান্ড  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪/৬ ওল্ড ট্রাফোর্ড, ম্যানচেস্টার ৩০ জুলাই, ১৯৯৫ [২৯]
২৩ গফ, ড্যারেনড্যারেন গফ  ইংল্যান্ড  অস্ট্রেলিয়া ৫/৫ সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড, সিডনি ২ জানুয়ারি, ১৯৯৯ [৩০]
২৪ ওয়াসিম আকরাম  পাকিস্তান  শ্রীলঙ্কা ৩/৪ গাদ্দাফি স্টেডিয়াম, লাহোর ৬ মার্চ, ১৯৯৯ [৩১]
২৫ ওয়াসিম আকরাম  পাকিস্তান  শ্রীলঙ্কা ৪/৪ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম, ঢাকা ১৪ মার্চ, ১৯৯৯ [৩২]
২৬ নুয়ান জয়সা  শ্রীলঙ্কা  জিম্বাবুয়ে ২/৩ হারারে স্পোর্টস ক্লাব, হারারে ২৬ নভেম্বর, ১৯৯৯ [৩৩]
২৭ আব্দুল রাজ্জাক  পাকিস্তান  শ্রীলঙ্কা ২/৩ গালে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম, গালে ২১ জুন, ২০০০ [৩৪]
২৮ ম্যাকগ্রা, গ্লেনগ্লেন ম্যাকগ্রা  অস্ট্রেলিয়া  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২/৫ ওয়াকা, পার্থ ১ ডিসেম্বর, ২০০০ [৩৫]
২৯ হরভজন সিং  ভারত  অস্ট্রেলিয়া ২/৩ ইডেন গার্ডেন্স, কলকাতা ১১ মার্চ, ২০০১ [৩৬]
৩০ মোহাম্মদ সামি  পাকিস্তান  শ্রীলঙ্কা ৩/৩ গাদ্দাফি স্টেডিয়াম, লাহোর ৮ মার্চ, ২০০২ [৩৭]
৩১ লসন, জার্মেইনজার্মেইন লসন  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  অস্ট্রেলিয়া ১ ও ২ ৩/৪ কেনসিংটন ওভাল, ব্রিজটাউন ২-৫ মে, ২০০৩ [৩৮]
৩২ অলোক কাপালি  বাংলাদেশ  পাকিস্তান ২/৩ আরবাব নিয়াজ স্টেডিয়াম, পেশোয়ার ২৯ আগস্ট, ২০০৩ [৩৯]
৩৩ ব্লিগনট, অ্যান্ডিঅ্যান্ডি ব্লিগনট  জিম্বাবুয়ে  বাংলাদেশ ১/২ হারারে স্পোর্টস ক্লাব, হারারে ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০০৪ [৪০]
৩৪ হগার্ড, ম্যাথুম্যাথু হগার্ড  ইংল্যান্ড  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩/৪ কেনসিংটন ওভাল, বার্বাডোস ৩ এপ্রিল, ২০০৪ [৪১]
৩৫ ফ্রাঙ্কলিন, জেমসজেমস ফ্রাঙ্কলিন  নিউজিল্যান্ড  বাংলাদেশ ১/২ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়াম, ঢাকা ২০ অক্টোবর, ২০০৪ [৪২]
৩৬ ইরফান পাঠান  ভারত  পাকিস্তান ৩/৩ জাতীয় স্টেডিয়াম, করাচি ২৯ জানুয়ারি, ২০০৬ [৪৩]
৩৭ সাইডবটম, রায়ানরায়ান সাইডবটম  ইংল্যান্ড  নিউজিল্যান্ড ১/৩ সেডন পার্ক, হ্যামিলটন ৮ মার্চ, ২০০৮ [৪৪]
৩৮ সিডল, পিটারপিটার সিডল  অস্ট্রেলিয়া  ইংল্যান্ড ১/৫ ব্রিসবেন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, ব্রিসবেন ২৫ নভেম্বর, ২০১০ [৪৫]
৩৯ ব্রড, স্টুয়ার্টস্টুয়ার্ট ব্রড  ইংল্যান্ড  ভারত ২/৪ ট্রেন্ট ব্রিজ, নটিংহ্যামশায়ার ৩০ জুলাই, ২০১১ [৪৬]
৪০ সোহাগ গাজী  বাংলাদেশ  নিউজিল্যান্ড ১/২ জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম ১৩ অক্টোবর, ২০১৩ [৪৭]
৪১ স্টুয়ার্ট ব্রড  ইংল্যান্ড  শ্রীলঙ্কা ২/২ হেডিংলি, লিডস ২০ জুন, ২০১৪ [৪৮]
৪২ হেরাথ, রঙ্গনারঙ্গনা হেরাথ  শ্রীলঙ্কা  অস্ট্রেলিয়া ২/৩ গালে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম, গালে ৫ আগস্ট, ২০১৬ [৪৯]
৪৩ আলী, মঈনমঈন আলী  ইংল্যান্ড  দক্ষিণ আফ্রিকা ৩/৪ দি ওভাল, লন্ডন ৩১ জুলাই, ২০১৭ [৫০]

দলীয় পর্যায়ে[সম্পাদনা]

৬ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখ পর্যন্ত ইংল্যান্ডঅস্ট্রেলিয়ার বোলারগণ যৌথভাবে ৪৩টি টেস্ট ক্রিকেটের হ্যাট্রিকের মধ্যে ২৫টি হ্যাট্রিক লাভ করেন। শতাংশের হিসেবে তা দাঁড়ায় ৫৮.১৪%।[২]

দলীয় পর্যায়ে টেস্ট ক্রিকেটে হ্যাট্রিকের তালিকা
দলের নাম হ্যাট্রিক সংখ্যা
 ইংল্যান্ড ১৪
 অস্ট্রেলিয়া ১১
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ
 পাকিস্তান
 নিউজিল্যান্ড
 ভারত
 বাংলাদেশ
 শ্রীলঙ্কা
 দক্ষিণ আফ্রিকা
 জিম্বাবুয়ে

কীর্তিগাঁথা[সম্পাদনা]

চিত্রমালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. McGhie, Tom (২০ জুলাই ২০১১)। "Landmark Test matches through the years as Lord's plays host to the 2,000th when England take on India"Daily Telegraph। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১৩ 
  2. "Record / Test matches / Bowling record / Hat-tricks"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  3. "England v Sri Lanka, 2nd Invetsec Test, Headingley, 1st day, 20 June, 2014, Plunkett and Broad rattle through Sri Lanka"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ জুন ২০১৪ 
  4. Williamson, Martin (১১ আগস্ট ২০১২)। "No-balled out of the game"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  5. McGlashan, Andrew (২৫ নভেম্বর ২০১০)। "Siddle hat-trick gives Australia control"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৩ অক্টোবর ২০১৩ 
  6. "New Zealand tour of Bangladesh, 1st Test". ESPNcricinfo. Retrieved 13 October 2013.
  7. "England v Rest Of The World, 1970 – 4th match"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  8. "July 2000 – The best of the best?"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 
  9. "England tour of Australia, 1878/79 – Only Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  10. "England (IFW Bligh's XI) tour of Australia, 1882/83: The Ashes – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  11. "England (Lord Sheffield's XI) tour of Australia, 1891/92: The Ashes – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  12. "England tour of South Africa, 1895/96 – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  13. "Australia tour of England, 1899: The Ashes – 3rd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  14. "England tour of Australia, 1901/02: The Ashes – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  15. "England (Marylebone Cricket Club) tour of Australia, 1903/04: The Ashes – 5th Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  16. "Triangular Tournament, 1912: Australia v South Africa Test Series −1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  17. "England tour of New Zealand, 1929/30 – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  18. "England tour of South Africa, 1938/39 – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  19. "West Indies tour of England, 1957 – 4th Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  20. "Australia tour of South Africa, 1957/58 – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  21. "West Indies tour of Pakistan, 1958/59 – 3d Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  22. "South Africa tour of England, 1960 – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  23. "West Indies tour of Australia, 1960/61 – 4th Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  24. "New Zealand tour of Pakistan, 1976/77 – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  25. "West Indies tour of Australia, 1988/89: The Frank Worrell Trophy – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  26. "West Indies tour of Australia, 1988/89: The Frank Worrell Trophy – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  27. "Australia tour of Pakistan, 1994/95 – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  28. "England tour of Australia, 1994/95: The Ashes – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  29. "West Indies tour of England, 1995: The Wisden Trophy – 4th Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  30. "England tour of Australia, 1998/99: The Ashes – 5th Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  31. "Asian Championship Test, 1998/99 – 3rd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  32. "Asian Championship Test, 1998/99 – Final"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  33. "Sri Lanka tour of Zimbabwe, 1999/00 – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  34. "Pakistan tour of Sri Lanka, 2000 – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  35. "West Indies tour of Australia, 2000/01 – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  36. "Australia tour of India, 2000/01 – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  37. "Asian Championship Test, 2001/02 – Final"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  38. "Australia tour of West Indies, 2003: The Frank Worrell Trophy – 3rd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  39. "Bangladesh tour of Pakistan, 2003 – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  40. "Bangladesh tour of Zimbabwe, 2003/04 – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  41. "England tour of West Indies, 2003/04: The Wisden Trophy – 3rd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  42. "New Zealand tour of Bangladesh, 2004/05 – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  43. "India tour of Pakistan, 2005/06 – 3rd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  44. "England tour of New Zealand, 2007/08 – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  45. "England tour of Australia, 2010/11: The Ashes – 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  46. "India tour of England, 2011: Pataudi Trophy – 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৩ 
  47. "New Zealand tour of Bangladesh, 1st Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৩ অক্টোবর ২০১৩ 
  48. "Sri Lanka tour of England, 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুন ২০১৪ 
  49. "Australia tour of Sri Lanka, 2nd Test"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০১৬ 
  50. "3rd Test, South Africa tour of England at London, Jul 27-Jul 31"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুলাই ২০১৭ 
  51. "India in England – 2nd Test"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩ জানুয়ারি ২০১২ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]