জসপ্রীত বুমরাহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জসপ্রীত বুমরাহ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামজসপ্রীত জসবীরসিং বুমরাহ
জন্ম (1993-12-06) ৬ ডিসেম্বর ১৯৯৩ (বয়স ২৫)
আহমেদাবাদ, গুজরাত, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২১০)
২৩শে জানুয়ারি ২০১৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই২৩শে জানুয়ারি ২০১৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৫৭)
২৬ জানুয়ারি ২০১৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টি২০আই৯ই ফেব্রুয়ারি ২০১৬ বনাম শ্রীলঙ্কা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১২/১৩-বর্তমানগুজরাট
২০১৩-বর্তমানমুম্বাই ইন্ডিয়ান্স
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি এলএ টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ১৮ ২১ ৪৭
রানের সংখ্যা ৮৯ ১৮ ২৭
ব্যাটিং গড় ২২.২৫ ৪.৫০ ১৩.৫০
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ৩৫৯* ৫* ১৪*
বল করেছে ৬০ ৩৫২১ ১১৪৬ ১০৪৩
উইকেট ৪১ ৫২
বোলিং গড় ২০.০০ ২৫.০১ ১৮.৭৩ ২৪.৫৩
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ২/৪০ ৫/৫২ ৫/২৮ ৩/১০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/– ৫/– ৫/– ৮/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো, ২৩শে জানুয়ারি ২০১৬

জসপ্রীত জসবীরসিং বুমরাহ (গুজরাটি: જસપ્રીત બુમરાહ; জন্ম: ৬ ডিসেম্বর, ১৯৯৩) গুজরাতের আহমেদাবাদে জন্মগ্রহণকারী উদীয়মান ভারতীয় ক্রিকেটার। ভারতীয় ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতে ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিং করে থাকেন। ঘরোয়া ক্রিকেটে গুজরাটমুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের পক্ষে খেলছেন জসপ্রীত বুমরাহ। ঘরোয়া ক্রিকেটে কিছুদিন খেলার পর তিনি জানুয়ারি, ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়া সফরকারী ভারতীয় দলের সদস্য মনোনীত হন। আঘাতপ্রাপ্ত ভুবনেশ্বর কুমারের পরিবর্তে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তাঁর এই অংশগ্রহণের সুযোগ ঘটে।[১]টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক এবং একদিনের আন্তর্জাতিক দুটিতেই তাঁর অভিষেক হয় এই সফরে। ২৩শে জানুয়ারি, ২০১৬ তারিখে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে তিনি প্রথম খেলতে নামেন। তিনি এশিয়ার প্রথম বোলার, যিনি দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ায় এক ক্যালেন্ডার বর্ষে এক ইনিংসে ৫টি উইকেট নিয়েছেন। প্রথম খেলতে নেমে টেস্ট ম্যাচে তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীও হন তিনি।

ঘরোয়া ক্রিকেট[সম্পাদনা]

২০১৩ সালের অক্টোবরে, বুমরাহের প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেট আত্মপ্রকাশ হয় রঞ্জি ট্রফির ২০১৩–১৪ মরশুমে, গুজরাটের হয়ে। তাঁদের বিপক্ষ দল ছিল বিদর্ভ[২] এই খেলায় তিনি ৭ উইকেট নেন। তিনি দলটির সেরা উইকেট শিকারী হিসাবে টুর্নামেন্ট শেষ করেন।

গুজরাতের বুমরাহ ডানহাতি ফাস্ট বোলার এবং তাঁর বোলিং অ্যাকশনটি একটু অস্বাভাবিক। ২০১২ সালে সৈয়দ মুশতাক আলী ট্রফিতে মহারাষ্ট্রের বিপক্ষে তাঁর টি২০ তে অভিষেক ঘটে এবং ম্যান অব দ্য ম্যাচের পারফরম্যান্সের সাথে তিনি তাঁর দলকে শিরোপা জিততে সহায়তা করেছিলেন। ফাইনালে তাঁর ১৪ রানে ৩ উইকেট পাঞ্জাবের বিপক্ষে গুজরাতকে জয় এনে দেয়।[৩]

৪ঠা এপ্রিল, ২০১৩ তারিখে ১৯ বছর বয়সে জসপ্রীতের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ৬ষ্ঠ আসরে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের পক্ষে সফলতম অভিষেক ঘটে। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের বিপক্ষে ৩২ রান দিয়ে ৩ উইকেট লাভ করেন তিনি। এরফলে তিনি দ্বিতীয় বোলার হিসেবে অভিষেকে তিন উইকেট লাভে সক্ষমতা দেখান। ঐ মরসুমে তিনি ১০টি প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশ নেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

জানুয়ারি, ২০১৬ সালে ভারতের টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক দলের সদস্য মনোনীত হন। আঘাতপ্রাপ্ত ভুবনেশ্বর কুমারের পরিবর্তে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তার এই অংশগ্রহণের সুযোগ ঘটে।[১] ২৩ জানুয়ারি, ২০১৬ তারিখে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক হয়। নির্ধারিত ১০ ওভারে ৪০ রান দিয়ে ২ উইকেট পান তিনি।[৪] এরপর তিনি টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে কার্যকরী ৩/২৩ লাভ করেন।

২০১৬ সালের আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের লক্ষ্যে ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ তারিখে ভারত দলের খেলোয়াড়দের তালিকা প্রকাশ করা হয়।[৫] ১৫-সদস্যের দলটিতে তিনিও অন্যতম সদস্য মনোনীত হন।

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ[সম্পাদনা]

বছর দল মূল্য
২০১৪ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ১২০ লক্ষ
২০১৮ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স ৭০০ লক্ষ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Bumrah replaces Shami in T20 squad"ESPNcricinfo। ESPN Sports Media। ১৮ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৬  উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ অবৈধ; আলাদা বিষয়বস্তুর সঙ্গে "Bumrah" নাম একাধিক বার সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে
  2. "Jasprit Bumrah - India"ESPNcricinfoESPN Inc.। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  3. "Gujarat win Syed Mushtaq Ali Trophy"ESPNcricinfo। ৩১ মার্চ ২০১৩। 
  4. Brettig, Daniel। "Bumrah debuts, India send Australia in"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০১৬ 
  5. "Mohammed Shami back for World T20"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]