অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ
Andrew Flintoff.jpg
২০০৬ সালে অ্যাডিলেড ওভালে ফ্লিনটফ
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম (১৯৭৭-১২-০৬) ৬ ডিসেম্বর ১৯৭৭ (বয়স ৩৯)
প্রেস্টন, ল্যাঙ্কাশায়ার, ইংল্যান্ড
ডাকনাম ফ্রেদি
উচ্চতা ৬ ফুট ৪ ইঞ্চি (১.৯৩ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরণ ডানহাতি
বোলিংয়ের ধরণ ডানহাতি ফাস্ট
ভূমিকা অল-রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক (ক্যাপ ৫৯১) ২৩ জুলাই ১৯৯৮ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ টেস্ট ২০ আগস্ট ২০০৯ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ওডিআই অভিষেক (ক্যাপ ১৫৪) ৭ এপ্রিল ১৯৯৯ বনাম পাকিস্তান
শেষ ওডিআই ৩ এপ্রিল ২০০৯ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছর দল
১৯৯৫-২০১০ ল্যাঙ্কাশায়ার
২০০৯ চেন্নাই সুপার কিংস
২০১৪ (একমাত্র টি২০) ল্যাঙ্কাশায়ার
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৭৯ ১৪১ ১৮৩ ২৮২
রানের সংখ্যা ৩,৮৪৫ ৩,৩৯৪ ৯,০২৭ ৬,৬৪১
ব্যাটিং গড় ৩১.৭৭ ৩২.০১ ৩৩.৮০ ২৯.৭৮
১০০/৫০ ৫/২৬ ৩/১৮ ১৫/৫৩ ৬/৩৪
সর্বোচ্চ রান ১৬৭ ১২৩ ১৬৭ ১৪৩
বল করেছে ১৪,৯৫১ ৫,৬২৪ ২২,৭৯৯ ৯,৪১৬
উইকেট ২২৬ ১৬৮ ৩৫০ ২৮৯
বোলিং গড় ৩২.৭৮ ২৪.৩৮ ৩১.৫৯ ২২.৬১
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৫/৫৮ ৫/১৯ ৫/২৪ ৫/১৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫২/– ৪৭/– ১৮৫/– ১০৬/–
উত্স: ক্রিকেটআর্কাইভ, ১৩ মে ২০১৭
পরিসংখ্যান
নাম অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ
ডাকনাম ফ্রেদি
বিবেচনা/গণ্য হেভিওয়েট
উচ্চতা ৬ ফু ৪ ইঞ্চি (১.৯৩ মি)
জাতীয়তা ইংল্যান্ড ইংরেজ
অবস্থান অর্থোডক্স
বক্সিং রেকর্ড
মোট লড়াই
জয়ী
নকআউট দ্বারা জয়ী
পরাজিত হয়েছ্নে

অ্যান্ড্রু ফ্রেদি ফ্লিনটফ, এমবিই (ইংরেজি ভাষায়: Andrew Flintoff; জন্ম: ৬ ডিসেম্বর, ১৯৭৭) ল্যাঙ্কাশায়ারের প্রেস্টন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী ইংল্যান্ডের পেশাদার সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের পক্ষে টেস্ট খেলার পাশাপাশি ল্যাঙ্কাশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবে খেলেছেন। অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগে চেন্নাই সুপার কিংসের পক্ষেও খেলেছেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

৬ ফুট ৪ ইঞ্চির দীর্ঘদেহী ফাস্ট বোলার, ব্যাটসম্যান ও স্লিপ ফিল্ডার অ্যান্ড্রু ফ্লিনটফ ধারাবাহিকভাবে আইসিসি’র শীর্ষ আন্তর্জাতিক অল-রাউন্ডার হিসেবে ওডিআই ও টেস্ট ক্রিকেটে সমভাবে পদচারণা করেছেন। ১৯৯৮ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের পর থেকেই ইংল্যান্ড দলের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ ছিলেন তিনি। পরবর্তীতে দলের সহঃ অধিনায়ক ও অধিনায়কের মর্যাদা লাভ করেন। তবে প্রায়শঃই তিনি আঘাতজনিত কারণে মাঠের বাইরে থাকতেন। ২০০৭-০৯ মৌসুমে ইংল্যান্ডের ৩৬ টেস্টের মধ্যে তিনি মাত্র ১৩ টেস্টে অংশ নিতে বাধ্য হয়েছিলেন।

৪ জুলাই, ২০০৪ তারিখে সফরকারী নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ব্রিস্টল কাউন্টি গ্রাউন্ডে ১০৬ রানের মনোজ্ঞ শতরান করেন। তাস্বত্ত্বেও স্বাগতিক ইংল্যান্ড দল পরাজিত হয়েছিল।

অবসর[সম্পাদনা]

২০০৯ সালের অ্যাশেজ সিরিজের পর ১৫ জুলাই, ২০০৯ তারিখে টেস্ট ক্রিকেট অঙ্গণ থেকে অবসরের ঘোষণা দেন তিনি। ২৪ আগস্ট তারিখে একদিনের আন্তর্জাতিক ও টুয়েন্টি২০ ক্রিকেটে খেলা চালিয়ে যাবার ঘোষণা দিলেও ৭ সেপ্টেম্বর, ২০০৯ তারিখে হাঁটুর অস্ত্রোপচার করতে হয়।[১] ফলে, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১০ তারিখে সকল স্তরের ক্রিকেটে থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিতে বাধ্য হন।[২] ৩০ নভেম্বর, ২০১২ তারিখে ম্যানচেস্টারে পেশাদার বক্সিংয়ে যুক্ত হন ও পয়েন্টের ব্যবধানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রিচার্ড ডসনকে পরাজিত করেন।[৩]

মে, ২০১৪ সালে পাঁচ বছর অবসর জীবন কাটানোর পর ল্যাঙ্কাশায়ারের পক্ষে পুণরায় টুয়েন্টি২০ ক্রিকেটের সাথে যুক্ত হন।

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Bull, Andy (৭ আগস্ট ২০০৯)। "Andrew Flintoff hit by deep vein thrombosis scare"the guardian (UK)। সংগৃহীত ৭ আগস্ট ২০০৯ 
  2. "Andrew Flintoff calls time on cricket career"। BBC Sport। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০০৯। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১০-এ মূল থেকে আর্কাইভ। সংগৃহীত ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১০ 
  3. Gilmour, Rod (৩০ নভেম্বর ২০১২)। "Andrew 'Freddie' Flintoff v Richard Dawson: live"The Daily Telegraph (London)। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

ক্রীড়া অবস্থান
পূর্বসূরী
মাইকেল ভন

অ্যান্ড্রু স্ট্রস
ইংল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক
২০০৬
মাইকেল ভন - সহঃঅধিনায়কের দায়িত্বে থেকে
২০০৬-০৭
মাইকেল ভন - সহঃঅধিনায়কের দায়িত্বে থেকে
উত্তরসূরী
অ্যান্ড্রু স্ট্রস

মাইকেল ভন
পুরস্কার ও স্বীকৃতি
পূর্বসূরী
(বিজয়ী প্রচলন)
কম্পটন-মিলার পদক
২০০৫
উত্তরসূরী
রিকি পন্টিং
পূর্বসূরী
রাহুল দ্রাবিড়
স্যার গারফিল্ড সোবার্স ট্রফি
২০০৫ (যৌথভাবে - জ্যাক ক্যালিস)
উত্তরসূরী
রিকি পন্টিং
পূর্বসূরী
কেলি হোমস
বিবিসি বর্ষসেরা ক্রীড়াব্যক্তিত্ব
২০০৫
উত্তরসূরী
জারা ফিলিপস
পূর্বসূরী
শেন ওয়ার্ন
উইজডেন বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ক্রিকেটার
২০০৬
উত্তরসূরী
মুত্তিয়া মুরালিধরন