পেশাওয়ার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পেশাওয়ার

  • پېښور
  • پشور
  • پشاور

পুরুশাপুরা (पुरूषपुर)
জেলা শহর
Clockwise from top: Islamia College, Cunningham clock tower, Sunehri Mosque, Bala Hissar Fortress, Bab-e-Khyber, Mahabat Khan Mosque
ডাকনাম: ফুলের শহর
পেশাওয়ার খাইবার পাখতুনখোয়া-এ অবস্থিত
পেশাওয়ার
পেশাওয়ার
পেশাওয়ার পাকিস্তান-এ অবস্থিত
পেশাওয়ার
পেশাওয়ার
পেশাওয়ার এশিয়া-এ অবস্থিত
পেশাওয়ার
পেশাওয়ার
Location within Pakistan
স্থানাঙ্ক: ৩৪°০১′ উত্তর ৭১°৩৫′ পূর্ব / ৩৪.০১৭° উত্তর ৭১.৫৮৩° পূর্ব / 34.017; 71.583স্থানাঙ্ক: ৩৪°০১′ উত্তর ৭১°৩৫′ পূর্ব / ৩৪.০১৭° উত্তর ৭১.৫৮৩° পূর্ব / 34.017; 71.583
দেশপাকিস্তান
প্রদেশখাইবার পাখতুনখোয়া
জেলাপেশাওয়ার জেলা
ইউনিয়ন কাউন্সিল৯২
সরকার
 • ধরনমেট্রোপলিটন শহর
 • মেয়রআরবাব আসিম
 • ডেপুটি মেয়রসৈয়দ কাসিম আলি শাহ
 • ডেপুটি কমিশনারসাকিব রেজা আসলাম[১]
 • সহকারী কমিশনার পেশাওয়ারমুহাম্মদ মুগহিস সানাউল্লাহ[২]
আয়তন
 • জেলা শহর১২৫৭ কিমি (৪৮৫ বর্গমাইল)
উচ্চতা৩৩১ মিটার (১০৮৬ ফুট)
সর্বোচ্চ উচ্চতা৪৫০ মিটার (১৪৮০ ফুট)
জনসংখ্যা (২০১৭)[৩]
 • জেলা শহর১৯,৭০,০৪২
 • ক্রম১ম, খাইবার পাখতুনখোয়া
৬ষ্ঠ, পাকিস্তান
 • জনঘনত্ব১৬০০/কিমি (৪১০০/বর্গমাইল)
 • মহানগর৪২,৬৯,০৭৯
 পেশাওয়ার মহানগর কর্পোরেশন: ১,৮৯৩,৩৬১
পেশাওয়ার বিশ্ববিদ্যালয় টাউন কাউন্সিল: ৫,৯৪০
পেশাওয়ার সেনানিবাস: ৭০,৭৪১
সময় অঞ্চলPKT (ইউটিসি+৫)
এলাকা কোড092
ভাষাসমূহপশতু, হিন্দকো, উর্দু
HDI০.৫৫ (২০১২-২০১৩ এর তথ্য) বৃদ্ধি[৪]
HDI ক্যাটাগরিমিডিয়াম
ওয়েবসাইটCity District Government of Peshawar

পেশাওয়ার (এই শব্দ সম্পর্কেউচ্চারণ ; পশতু: پېښور) পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের রাজধানী।[৫] আফগানিস্তান- পাকিস্তান সীমান্তের নিকটবর্তী ঐতিহাসিক খাইবার পাসের পূর্ব প্রান্তের নিকটবর্তী পেশোয়ারের প্রশস্ত উপত্যকায় শহরটি অবস্থিত। পেশাওয়ারের রেকর্ড করা ইতিহাসটি খ্রিস্টপূর্ব ৫৩৯-এর পূর্ববর্তী, এটি পাকিস্তানের প্রাচীনতম শহর এবং দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম প্রাচীনতম শহর হিসাবে পরিচিত। প্রাচীন ভারতীয় উপমহাদেশে শহরটি পুরুশাপুরা নামে পরিচিত ছিল এবং কুশন সাম্রাজ্যের রাজধানী হিসাবে কাজ করত; এটি কনিষ্ক স্তূপের আবাসস্থল ছিল। পেশাওয়ারে মুসলিম সাম্রাজ্যের আগমনের আগে হোয়াইট হুনদের দ্বারা বরখাস্ত করা হয়েছিল। ১৭৫৭ সাল থেকে আফগানিস্তান দুররানি সাম্রাজ্যের শীতকালীন রাজধানী হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত মুঘল আমলে এই শহরটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্য কেন্দ্র ছিল, ১৮৪৫ সালে শিখ সাম্রাজ্যের দ্বারা শহরটি দখল না করা পর্যন্ত চলে, ১৮৪৯ সালে ব্রিটিশরা শিখদের অনুসরণ করে। ২০১৪ সালের আদমশুমারি অনুসারে পেশাওয়ার শহরের জনসংখ্যা হল ১,৯৭০,০৪২, এটি খাইবার পাখতুনখোয়ার বৃহত্তম এবং পাকিস্তানের ষষ্ঠ বৃহত্তম শহর হিসাবে গড়ে উঠেছে। যদিও পেশাওয়ার জেলার জনসংখ্যা ৪,২৯৯,০৭৯ জন।

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

১৯৯৮ সালে পেশাওয়ার জেলার জনসংখ্যা ছিল ২,০২৬,৮৫১ জন।[৬] শহরের বার্ষিক জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার প্রতি বছর ৩.২৯% অনুমান করা হয়, এবং পেশোয়ার জেলার ২০১৬ সালের জনসংখ্যা অনুমান করা হয় ৩,৪০৫,৪১৪। ২০১৭ সালের আদমশুমারি অনুসারে জনসংখ্যা ১,৯৭০,০৪২ জন, যা একে পাকিস্তানের ষষ্ঠ বৃহত্তম শহরে পরিণত করেছে।

পেশাওয়ারের মানুষের প্রাথমিক মাতৃভাষাগুলি হল পশতু ভাষা এবং হিন্দকো ভাষা,[৭] যদিও শহরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিতে ইংরেজি ভাষা ব্যবহৃত হয়, এবং উর্দু ভাষা পুরো শহর জুড়েই বোঝা যায়।[৮]

পেশাওয়ার জেলা অপ্রতিরোধ্যভাবে পশতু ভাষীদের দখলে, যদিও হিন্দকোভাষী সংখ্যালঘু পেশাওয়ারের পুরানো শহরটিতে কেন্দ্রীভূত, পেশাওয়ারের হিন্দকো বক্তারা তাদের বক্তৃতায় পশতু এবং উর্দুর উপাদানগুলিকে ক্রমবর্ধমান করে তোলে।[৯]

পেশাওয়ার অতিমাত্রায় মুসলমান সংখ্যাগরিষ্ঠ শহর, যেখানে ১৯৯৮ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী ৯৮.৫% মুসলামন জনসংখ্যা রয়েছে।[১০] প্রায় ২০,০০০ অনুগামী নিয়ে খ্রিস্টান দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় গোষ্ঠী গঠন করেছে, যখন পেশাওয়ারে আহমদিয়া মুসলিম সম্প্রদায়ের ৭,০০০ এর বেশি সদস্য বাস করে।[১০] হিন্দু এবং শিখ ধর্মের মানুষও শহরে পাওয়া যায় - যদিও শহরের বেশিরভাগ হিন্দু এবং শিখ সম্প্রদায় ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ ভারত বিভাগের পরে ভারতে চলে গিয়েছিল।

প্রশাসন ও রাজনীতি[সম্পাদনা]

পেশাওয়ার ঐতিহাসিকভাবে এই অঞ্চলের রাজনৈতিক কেন্দ্র হিসাবে কাজ করেছে এবং বর্তমানে এটি খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের রাজধানী শহর। শহর ও প্রদেশটি ঐতিহাসিকভাবে ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির দুর্গ হিসাবে বিবেচিত হয় - এটি একটি ধর্মনিরপেক্ষ বামপন্থী এবং মধ্যপন্থী-জাতীয়তাবাদী দল।[১১][১২] পাকিস্তান পিপলস পার্টিও তার সমাজতান্ত্রিক এজেন্ডার কারণে এই প্রদেশে যথেষ্ট সমর্থন পেয়েছিল।[১১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Peshawar gets new deputy commissioner"Dawn (ইংরেজি ভাষায়)। Dawn Media Group। ১ মার্চ ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১ জুন ২০১৭ 
  2. "District admin observes 'World No Tobacco Day'"Pakistan Today। সংগ্রহের তারিখ ১ জুন ২০১৭ 
  3. "POPULATION AND HOUSEHOLD DETAIL FROM BLOCK TO DISTRICT LEVEL: KHYBER PAKHTUNKHWA (PESHAWAR DISTRICT)" (PDF)Pakistan Bureau of Statistics। ২০১৮-০১-০৩। ২০১৮-০৬-১২ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-২৩ 
  4. "SOCIAL DEVELOPMENT IN PAKISTAN ANNUAL REVIEW 2014–15" (PDF)। SOCIAL POLICY AND DEVELOPMENT CENTRE। ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৬ মার্চ ২০১৭ 
  5. "NWFP Introduction"। Government of Khyber-Pakhtunkhwa। ৩০ অক্টোবর ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১২ ডিসেম্বর ২০০৭ 
  6. "Peshawar District Demographics"। Govt of KPK। সংগ্রহের তারিখ ৪ এপ্রিল ২০১৭ 
  7. Shackle, Christopher (১৯৮০)। "Hindko in Kohat and Peshawar"Bulletin of the School of Oriental and African Studies43 (3): 496–97। doi:10.1017/S0041977X00137401আইএসএসএন 0041-977X 
  8. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Mills নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  9. Bashir, Elena; Hock, Hans Henrich (২৪ মে ২০১৬)। The Languages and Linguistics of South Asia: A Comprehensive Guide। Walter de Gruyter GmbH & Co KG। আইএসবিএন 9783110423303। সংগ্রহের তারিখ ৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  10. Peshawar District: Socio-political Profile। Pattan Development Organization। ২০০৬। 
  11. Sheikh, Yasir (৫ নভেম্বর ২০১২)। "Areas of political influence in Pakistan: right-wing vs left-wing"rugpundits.com। Karachi, Sindh: Rug Pandits, Yasir। ৩০ মে ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৫ 
  12. Sheikh, Yasir (৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "Political spectrum of Khyber Pakhtunkhwa (KP) – Part I: ANP, PPP & MMA"rugpundits.com। Islamabad: Rug Pandits, Yasir Sheikh। ৩০ মে ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মে ২০১৫ 

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

  • Ahmad, Aisha and Boase, Roger. 2003. "Pashtun Tales from the Pakistan-Afghan Frontier: From the Pakistan-Afghan Frontier." Saqi Books (1 March 2003). আইএসবিএন ০-৮৬৩৫৬-৪৩৮-০.
  • Beal, Samuel. 1884. "Si-Yu-Ki: Buddhist Records of the Western World, by Hiuen Tsiang." 2 vols. Trans. by Samuel Beal. London. Reprint: Delhi. Oriental Books Reprint Corporation. 1969.
  • Beal, Samuel. 1911. "The Life of Hiuen-Tsiang by the Shaman Hwui Li, with an Introduction containing an account of the Works of I-Tsing". Trans. by Samuel Beal. London. 1911. Reprint: Munshiram Manoharlal, New Delhi. 1973.
  • Dani, Ahmad Hasan. 1985. "Peshawar: Historic city of the Frontier" Sang-e-Meel Publications (1995). আইএসবিএন ৯৬৯-৩৫-০৫৫৪-৯.
  • Dobbins, K. Walton. 1971. "The Stūpa and Vihāra of Kanishka I". The Asiatic Society of Bengal Monograph Series, Vol. XVIII. Calcutta.
  • Elphinstone, Mountstuart. 1815. "An account of the Kingdom of Caubul and its dependencies in Persia, Tartary, and India,: comprising a view of the Afghaun nation." Akadem. Druck- u. Verlagsanst (1969).
  • Foucher, M. A. 1901. "Notes sur la geographie ancienne du Gandhâra (commentaire à un chaptaire de Hiuen-Tsang)." BEFEO No. 4, Oct. 1901, pp. 322–369.
  • Hargreaves, H. (1910–11): "Excavations at Shāh-jī-kī Dhērī"; Archaeological Survey of India, 1910–11, pp. 25–32.
  • Hill, John E. 2003. "Annotated Translation of the Chapter on the Western Regions according to the Hou Hanshu." 2nd Draft Edition.
  • Hill, John E. 2004. "The Peoples of the West from the Weilue" 魏略 by Yu Huan 魚豢: A Third Century Chinese Account Composed between 239 and 265 CE. Draft annotated English translation.
  • Hopkirk, Peter. 1984. "The Great Game: The Struggle for Empire in Central Asia." Kodansha Globe; Reprint edition. আইএসবিএন ১-৫৬৮৩৬-০২২-৩.
  • Moorcroft, William and Trebeck, George. 1841. "Travels in the Himalayan Provinces of Hindustan and the Panjab; in Ladakh and Kashmir, in Peshawar, Kabul, Kunduz, and Bokhara... from 1819 to 1825", Vol. II. Reprint: New Delhi, Sagar Publications, 1971.
  • Reeves, Richard. 1985. "Passage to Peshawar: Pakistan: Between the Hindu Kush and the Arabian Sea." Holiday House September 1985. আইএসবিএন ০-৬৭১-৬০৫৩৯-৯.
  • Imran, Imran Rashid. 2006. "Baghaat-i-Peshawar." Sarhad Conservation Network. July 2006.
  • Imran, Imran Rashid. 2012. "Peshawar - Faseel-e-Shehr aur Darwazay." Sarhad Conservation Network. March 2012.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


  1. "Pakistan: Largest cities and towns and statistics of their population"। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০২-১০