ম্যানচেস্টার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ম্যানচেস্টার
Manchester
শহর
সিটি অফ ম্যানচেস্টার
দেশ ইংল্যান্ড
ওয়েবসাইটশহরের সরকারি ওয়েবসাইট

ম্যানচেস্টার ইংল্যান্ডের একটি শহরগ্রেটার ম্যানচেস্টার কাউন্টির একটি মেট্রোপলিটন বোরো। ১৮৫৩ সাল থেকে ম্যানচেস্টার ইংল্যান্ডের শহর হিসেবে মর্যাদা পেয়ে আসছে। এর জনসংখ্যা ৪৪১,২০০ যা জনসংখ্যার দিক দিয়ে গ্রেটার ম্যানচেস্টারের বৃহত্তম শহর।[১] গ্রেটার ম্যানচেস্টারের শহরতলীর কিছু অংশ ম্যানচেস্টারের মধ্যে পড়েছে যার জনসংখ্যা ২,২৪০,২৩০,[২] যা একে যুক্তরাজ্যের তৃতীয় বৃহত্তম শহরতলীর মর্যাদা দিয়েছে।

উত্তর ইংল্যান্ডের সর্ববৃহৎ শহর, ম্যানচেস্টারকে প্রায়শই উত্তর ইংল্যান্ডের রাজধানী বলা হয়ে থাকে।[৩][৪] ম্যানচেস্টার বর্তমানে শিল্পকলা, গণমাধ্যম, উচ্চ শিক্ষা, ও বানিজ্য কেন্দ্র এবং যুক্তরাজ্যের দ্বিতীয় শহর হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।[৫][৬][৭] লন্ডনএডিনবার্গের পর এটি যুক্তরাজ্যের তৃতীয় বৃহত্তম এলাকা যতে বিদেশীরা ঘুরতে আসেন।[৮]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

ম্যানচেস্টার বিশ্বের প্রথম শিল্প নগরী হিসেবে আখ্যায়িত হয়েছে।[৯][১০][১১][১২][১৩] বিশ্বের প্রথম শিল্প বিপ্লব ম্যানচেস্টার শহরে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্বের টেক্সটাইল সামগ্রী নির্মাণ ও সূতা শিল্পের জন্য এটি একটি প্রধান কেন্দ্র।[১৪] ১৯শতকের শুরুতে এর ডাকনাম হয়েছিল কটনোপোলিশ।[১৫] ম্যানচেস্টারের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে সূতার মিলের আধিক্যের কারণেই এই নাম হয়েছে।

সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

ম্যানচেস্টার সিটি সেন্টার বর্তমানে ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান এর আপাত তালিকায় স্থান পেয়েছে, যার প্রধান কারণ মূলত এর কারখানা ও খালের নেটওয়ার্ক, যেটির উন্নয়ন শুরু হয়েছে ১৯শতকের শুরুর দিকে।[১৬]

খেলাধুলা[সম্পাদনা]

ম্যানচেস্টার ক্রীড়া ক্ষেত্রেও বিখ্যাত। প্রিমিয়ার লীগের দুটি প্রধান ফুটবল দল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এবং ম্যানচেস্টার সিটি এই শহরে অবস্থিত। সিটি অফ ম্যানচেস্টার স্টেডিয়াম শহরের গুরুত্বপূর্ণ ফুটবল স্টেডিয়াম। [১৭] ২০০২ সালের কমনওয়েলথ গেমস এখানে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পরিবহণ[সম্পাদনা]

আকাশপথ[সম্পাদনা]

ম্যানচেস্টার বিমানবন্দর শহরের প্রধান ও উত্তর ইংল্যান্ডের বৃহত্তম বিমানবন্দর।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

Hallo liebe leute

ফুটনোট[সম্পাদনা]

  1. Key facts and figures about Manchester, Manchester City Council. URL accessed February 21, 2007.
  2. Key Statistics for urban areas in England and Wales, Census 2001. URL accessed February 21, 2007.
  3. Manchester, www.manchester.ac.uk, Manchester University. URL accessed October 24, 2006.
  4. Northern Soul, www.educationuk.org, March 2003. URL accessed October 24, 2006.
  5. "Manchester 'England's second city'", BBC News, 12 September 2002, retrieved 2 May 2006.
  6. "Manchester 'close to second city'", BBC News, 29 September 2005, retrieved 2 May 2006.
  7. "Manchester tops second city poll", BBC News, 10 February 2007, retrieved 11 February 2007.
  8. Overseas Visitors to the UK - Top Towns Visited 2005 .pdf.
  9. Manchester's Buildings, Manchester UK. URL accessed December 18, 2006.
  10. Kidd, A., (2006), Manchester: A History, Carnegie Publishing Ltd.
  11. Frangopulo, N.J., (1977), Tradition in Action: The Historical Evolution of the Greater Manchester County, EP Publishing, Wakefield.
  12. Manchester United in Celebration of City, European Funding NW. URL accessed December 18, 2006.
  13. National Museum of Science and Industry"Manchester - the first industrial city"। www.sciencemuseum.org.uk। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৫-০৯ 
  14. Cottonopolis, www.Spinningtheweb.org.uk, Manchester City Council. URL accessed October 24, 2006.
  15. Manchester Cottonopolis, Spinning the Web, Manchester City Council. URL accessed December 7, 2006.
  16. Manchester and Salford (Ancoats, Castlefield and Worsley), http://whc.unesco.org (UNESCO). URL accessed October 24, 2006.
  17. Note that Manchester United is in Greater Manchester but not inside Manchester city limits: it is in the borough of Trafford.

স্থানাঙ্ক: ৫৩°২৮′৪৩″ উত্তর ২°১৪′৩৬″ পশ্চিম / ৫৩.৪৭৮৬১° উত্তর ২.২৪৩৩৩° পশ্চিম / 53.47861; -2.24333

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

টেমপ্লেট:UK cities টেমপ্লেট:Manchester টেমপ্লেট:Greater Manchester টেমপ্লেট:NW England