একদিনের আন্তর্জাতিক অভিষেকে শতরানের তালিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ডেসমন্ড হেইন্স
ওডিআই অভিষেকে যে-কোন ব্যাটসম্যানের তুলনায় ডেসমন্ড হেইন্স (বামে) সর্বোচ্চ রান সংগ্রহ করেন

ক্রিকেট খেলায় একজন খেলোয়াড় কর্তৃক একদিনের আন্তর্জাতিকের একটি ইনিংসে ব্যাটিং করে সেঞ্চুরি (১০০ রান বা তার বেশি রান) করা তার ব্যাটিং প্রতিভার উল্লেখযোগ্য ঘটনা।[১][২] মার্চ, ২০১৯ সাল পর্যন্ত ৯টি পৃথক আন্তর্জাতিক দলের ১৫জন খেলোয়াড় এ অর্জনের সাথে নিজেদেরকে জড়িয়ে রেখেছেন। দশটি পূর্ণাঙ্গ সদস্যভূক্ত দলের মধ্যে আটটি দেশের খেলোয়াড় ওডিআই অভিষেকে সেঞ্চুরি পেয়েছেন। বাংলাদেশশ্রীলঙ্কার কোন খেলোয়াড় এ অর্জনের সাথে নিজেদেরকে সম্পৃক্ত করতে পারেননি।[৩]

ইংল্যান্ডের ডেনিস অ্যামিস ওডিআই অভিষেকে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে সেঞ্চুরি পেয়েছেন। ১৯৭২ সালে প্রুডেন্সিয়াল ট্রফির প্রথম খেলায় সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১৩৪ বলে ১০৩ রান তুলেন।[ক] তাঁর ব্যক্তিগত রানকে পরবর্তীতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ডেসমন্ড হেইন্স ১৯৭৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১৪৮ রানে অতিক্রম করেন।[৩] ২০১৯ সাল পর্যন্ত তাঁর এ ব্যক্তিগত সংগ্রহটি অভিষেক ওডিআইয়ে সর্বোচ্চ হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে।

১৯৯২ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জিম্বাবুয়ের অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার তাঁর প্রথম ওডিআইয়ে অভিষেক ঘটিয়ে অপরাজিত ১১৫ রান তুলেন। তার এ সেঞ্চুরিটি অদ্যাবধি বিশ্বকাপে অভিষিক্ত যে-কোন খেলোয়াড়ের একমাত্র ঘটনা।[৫]

সেপ্টেম্বর, ১৯৯৫ সালে পাকিস্তানের সেলিম এলাহী সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে মাত্র ১৮ বছর বয়সে সেঞ্চুরি করেন। কিন্তু তখনো তার প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটেনি।[৬][৭][৮] ১৯৭২ থেকে ১৯৯৫ সালের মধ্যে মাত্র চারজন খেলোয়াড় তাদের ওডিআই অভিষেকে সেঞ্চুরি করতে পেরেছেন। কিন্তু ২০০৯ সালের পর থেকে এগারোজন খেলোয়াড় এ অর্জনের সাথে নিজেকে জড়িয়ে রেখেছেন।[৩]

সাম্প্রতিককালে দক্ষিণ আফ্রিকার রিজা হেনড্রিক্স অভিষেকে সেঞ্চুরি করেছেন। ৫ আগস্ট, ২০১৮ তারিখে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিনি ৮৮ বলে ১০২ রান তুলেন।[৯] হেইন্স ও মার্ক চ্যাপম্যান বাদে বাদ-বাকী সকলের স্ট্রাইক রেট ১০০-এর নীচে ছিল। সেঞ্চুরিকারী ক্রিকেটারদের মধ্যে বারোজন তাদের দলের জয়ে অবদান রাখেন। মাত্র তিনজন দলের জয় থেকে বঞ্চিত হন।[খ][৩]

নির্দেশিকা[সম্পাদনা]

শতকের ছকের জন্য নির্দেশনা
প্রতীক অর্থ
রান রান সংগ্রহ
* ব্যাটসম্যান অপরাজিত ছিলেন
double-dagger ম্যান অব দ্য ম্যাচ পুরস্কারে ব্যাটসম্যানের সংগৃহীত রান
এস/আর স্ট্রাইক রেট (১০০ বলের বিপরীতে রান)
ইনিংস সেঞ্চুরি করা ইনিংস নম্বর
ফলাফল হয়নি খেলায় ফলাফল আসেনি

শতকসমূহ[সম্পাদনা]

ওডিআই অভিষেকে সেঞ্চুরির তালিকা[১১]
নং খেলোয়াড় রান এস/আর ইনিংস পক্ষ বিপক্ষ স্থান তারিখ ফলাফল
ডেনিস অ্যামিস dagger ১০৩ ৭৬.৮৬  ইংল্যান্ড  অস্ট্রেলিয়া ওল্ড ট্রাফোর্ড, ম্যানচেস্টার, ইংল্যান্ড 01972-08-24২৪ আগস্ট ১৯৭২ জয়[১২]
ডেসমন্ড হেইন্স dagger ১৪৮ ১০৮.৮২  ওয়েস্ট ইন্ডিজ  অস্ট্রেলিয়া অ্যান্টিগুয়া রিক্রিয়েশন গ্রাউন্ড, সেন্ট জোন্স, অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুদা 01978-02-22২২ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৮ জয়[১৩]
অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার dagger ১১৫* ৭৫.৬৫  জিম্বাবুয়ে  শ্রীলঙ্কা পুকেকুরা পার্ক, নিউ প্লাইমাউথ, নিউজিল্যান্ড 01992-02-23২৩ ফেব্রুয়ারি ১৯৯২ পরাজয়[১৪]
সেলিম এলাহী dagger ১০২* ৭৬.৬৯  পাকিস্তান  শ্রীলঙ্কা জিন্নাহ স্টেডিয়াম, গুজরানওয়ালা, পাকিস্তান 01995-09-29২৯ সেপ্টেম্বর ১৯৯৫ জয়[১৫]
মার্টিন গাপটিল ১২২* ৯০.৩৭  নিউজিল্যান্ড  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ইডেন পার্ক, অকল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড 02009-01-10১০ জানুয়ারি ২০০৯ ফলাফল হয়নি[১৬]
কলিন ইনগ্রাম dagger ১২৪ ৯৮.৪১  দক্ষিণ আফ্রিকা  জিম্বাবুয়ে চেভরোলেট পার্ক, ব্লুমফন্তেইন, দক্ষিণ আফ্রিকা 02010-10-15১৫ অক্টোবর ২০১০ জয়[১৭]
রব নিকোল dagger ১০৮* ৮২.৪৪  নিউজিল্যান্ড  জিম্বাবুয়ে হারারে স্পোর্টস ক্লাব, হারারে, জিম্বাবুয়ে 02011-10-20২০ অক্টোবর ২০১১ জয়[১৮]
ফিলিপ হিউজ dagger ১১২ ৮৬.৮২  অস্ট্রেলিয়া  শ্রীলঙ্কা মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড, মেলবোর্ন, অস্ট্রেলিয়া 02013-01-11১১ জানুয়ারি ২০১৩ জয়[১৯]
মাইকেল লাম্ব ১০৬ ৯০.৫৯  ইংল্যান্ড  ওয়েস্ট ইন্ডিজ স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস স্টেডিয়াম, নর্থ সাউন্ড, অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুদা 02014-02-28২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ পরাজয়[২০]
১০ মার্ক চ্যাপম্যান dagger ১২৪* ১০৬.৮৯  হংকং  সংযুক্ত আরব আমিরাত আইসিসি একাডেমি গ্রাউন্ড, দুবাই, সংযুক্ত আরব আমিরাত 02015-11-16১৬ নভেম্বর ২০১৫ জয়[২১]
১১ লোকেশ রাহুল dagger ১০০* ৮৬.৯৫  ভারত  জিম্বাবুয়ে হারারে স্পোর্টস ক্লাব, হারারে, জিম্বাবুয়ে 02016-06-11১১ জুন ২০১৬ জয়[২২]
১২ তেম্বা বাভুমা dagger ১১৩ ৯১.৮৬  দক্ষিণ আফ্রিকা  আয়ারল্যান্ড উইলমোর পার্ক, বেনোনি, দক্ষিণ আফ্রিকা 02016-09-25২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ জয়[২৩]
১৩ ইমাম-উল-হক dagger ১০০ ৮০.০০  পাকিস্তান  শ্রীলঙ্কা শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়াম, আবুধাবি, সংযুক্ত আরব আমিরাত 02017-10-18১৮ অক্টোবর ২০১৭ জয়[২৪]
১৪ রিজা হেনড্রিক্স dagger ১০২ ১১৪.৬০  দক্ষিণ আফ্রিকা  শ্রীলঙ্কা পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ক্যান্ডি, শ্রীলঙ্কা 02018-08-05৫ আগস্ট ২০১৮ জয়[২৫]
১৫ আবিদ আলী ১১২ ৯৪.১১  পাকিস্তান  অস্ট্রেলিয়া দুবাই ক্রিকেট স্টেডিয়াম, দুবাই, সংযুক্ত আরব আমিরাত 02019-03-29২৯ মার্চ ২০১৯ পরাজয়[২৬]

পাদটীকা[সম্পাদনা]

  1. ওডিআই ইতিহাসের দ্বিতীয় খেলায় অ্যামিস প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে এ পদ্ধতির ক্রিকেটে সেঞ্চুরি করার গৌরব অর্জন করেন।[৪]
  2. নিউজিল্যান্ডের মার্টিন গাপটিলের সেঞ্চুরিটি বৃষ্টির কারণে ফলাফল আনতে পারেনি[১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Barnett, Rob (২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪)। "Lumb ton in vain"England and Wales Cricket Board। ২৪ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  2. Lang, Jack (২৫ নভেম্বর ২০১৪)। "Recap: Australian batsman Phil Hughes rushed to hospital after being hit on head by bouncer"Daily Mirror। সংগ্রহের তারিখ ৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  3. Menon, Mohandas (২ ডিসেম্বর ২০১৪)। "Hughes – a tribute in numbers"Wisden India Almanack। ২ আগস্ট ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ এপ্রিল ২০১৭ 
  4. Pal 2015, পৃ. 8।
  5. Pal 2015, পৃ. 88।
  6. Lynch, Steven (২৫ মার্চ ২০১৪)। "Twenty for two, and Baz's T20 record"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুলাই ২০১৫ 
  7. "Records / One-Day Internationals / Batting records / Youngest player to score a hundred"ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুলাই ২০১৫ 
  8. "First One-Day International: Pakistan v Sri Lanka"Wisden Cricketers' Almanack। reprinted by ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুলাই ২০১৫ 
  9. "Stats: Reeza Hendricks scores a 89-ball 102 on his ODI debut"Crictracker। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০১৮ 
  10. Cameron, Don। "Fourth ODI: New Zealand v West Indies 2008–09"Wisden Cricketers' Almanack। reprinted by ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জুলাই ২০১৫ 
  11. "Records / One-Day Internationals / Batting records / Hundred on debut"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুন ২০১৬ 
  12. "Australia tour of England and Scotland, 1st ODI: England v Australia at Manchester, Aug 24, 1972"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৫ 
  13. "Australia tour of West Indies, 1st ODI: West Indies v Australia at St John's, Feb 22, 1978"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৫ 
  14. "Benson & Hedges World Cup, 3rd Match: Sri Lanka v Zimbabwe at New Plymouth, Feb 23, 1992"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৫ 
  15. "Sri Lanka tour of Pakistan, 1st ODI: Pakistan v Sri Lanka at Gujranwala, Sep 29, 1995"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৫ 
  16. "West Indies tour of New Zealand, 4th ODI: New Zealand v West Indies at Auckland, Jan 10, 2009"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৫ 
  17. "Zimbabwe tour of South Africa, 1st ODI: South Africa v Zimbabwe at Bloemfontein, Oct 15, 2010"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৫ 
  18. "New Zealand tour of Zimbabwe, 1st ODI: Zimbabwe v New Zealand at Harare, Oct 20, 2011"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৫ 
  19. "Sri Lanka tour of Australia, 1st ODI: Australia v Sri Lanka at Melbourne, Jan 11, 2013"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৫ 
  20. "England tour of West Indies, 1st ODI: West Indies v England at North Sound, Feb 28, 2014"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০১৫ 
  21. "ICC World Cricket League Championship, 13th Match: United Arab Emirates v Hong Kong at Dubai (CA), Nov 16, 2015"ESPNcricinfo। ১৬ নভেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৬ নভেম্বর ২০১৫ 
  22. "India tour of Zimbabwe, 1st ODI: Zimbabwe v India at Harare, Jun 11, 2016"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১১ জুন ২০১৬ 
  23. "Bavuma ton sets up crushing 206-run win"ESPNcricinfo। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  24. "3rd ODI (D/N), Sri Lanka tour of United Arab Emirates and Pakistan at Abu Dhabi, Oct 18 2017"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৮ অক্টোবর ২০১৭ 
  25. "3rd ODI, South Africa Tour of Sri Lanka at Kandy, Aug 5 2018"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৫ আগস্ট ২০১৮ 
  26. "4th ODI (D/N), Australia tour of United Arab Emirates at Dubai, Mar 29 2019"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৯ মার্চ ২০১৯ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

গ্রন্থপঞ্জী[সম্পাদনা]