ওয়ালি গ্রাউট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ওয়ালি গ্রাউট
ওয়ালি গ্রাউট.png
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামআর্থার থিওডর ওয়ালেস গ্রাউট
জন্ম(১৯২৭-০৩-৩০)৩০ মার্চ ১৯২৭
ম্যাককে, কুইন্সল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া
মৃত্যু৯ নভেম্বর ১৯৬৮(1968-11-09) (বয়স ৪১)
ব্রিসবেন, অস্ট্রেলিয়া
ডাকনামদ্য ভয়েস; গ্রিজ[১]
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাউইকেট-রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২০৬)
২৩ ডিসেম্বর ১৯৫৭ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ টেস্ট১৬ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৬ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৪৬–১৯৬৬কুইন্সল্যান্ড বুলস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৫১ ১৮৩
রানের সংখ্যা ৮৯০ ৫,১৬৮
ব্যাটিং গড় ১৫.০৮ ২২.৫৬
১০০/৫০ ০/৩ ৪/২৫ ০/০
সর্বোচ্চ রান ৭৪ ১১৯
বল করেছে ১৪০
উইকেট
বোলিং গড় ৩৮.৩৩
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ১/২২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৬৩/২৪ ৪৭৩/১১৪ ০/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৬

আর্থার থিওডর ওয়ালেস (ওয়ালি) গ্রাউট (ইংরেজি: Wally Grout; জন্ম: ২০ মার্চ, ১৯২৭ - মৃত্যু: ৯ নভেম্বর, ১৯৬৮) কুইন্সল্যান্ডের ম্যাককে এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা ছিলেন। ১৯৫৭ থেকে ১৯৬৬ মেয়াদে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষণের দায়িত্বে ছিলেন। পাশাপাশি ডানহাতে ব্যাটিংয়ে পারদর্শীতা দেখিয়েছেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে কুইন্সল্যান্ড বুলসের প্রতিনিধিত্ব করেন ‘দ্য ভয়েস’ ডাকনামে পরিচিত ওয়ালি গ্রাউট

ঘরোয়া ক্রিকেট[সম্পাদনা]

অনেক বছর কুইন্সল্যান্ড রাজ্য দলে খেলে ডন টলনের সহকারীর ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন। নিয়মিত উইকেট-রক্ষক হিসেবে দলে পাকাপোক্ত করতে ব্যর্থ হন। ১৯৬০ সালে ব্রিসবেনে অনুষ্ঠিত শেফিল্ড শিল্ডের খেলায় পশ্চিম অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এক ইনিংসে ৮ ক্যাচ নেন।[২] এরফলে এটি বিশ্বরেকর্ডে পরিণত হয়।[৩]

টেস্ট ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ৫১ টেস্টে অংশ নিয়েছেন। ওয়ান্ডেরার্স স্টেডিয়ামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তাঁর টেস্ট অভিষেক ঘটে। ঐ টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে উইকেটের পিছনে অবস্থান করে ছয় ব্যাটসম্যানকে আউটে সহায়তা করে রেকর্ড গড়েন।[৪][৫] যে সকল সিরিজে তিনি অংশ নিয়েছেন, কোন সিরিজেই অস্ট্রেলিয়া কখনো হারেনি।[৬]

সম্মাননা[সম্পাদনা]

খেলোয়াড়ী জীবন শেষ করার মাত্র তিন বছর পর হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তাঁর আকস্মিক দেহাবসান ঘটে।[৭]

২৭ জানুয়ারি, ২০১৬ তারিখে জেফ থমসনের সাথে তাঁকেও অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট হল অব ফেমে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।[৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Grout W, p. 39
  2. "Queensland v Western Australia Sheffield Shield 1959/60, Brisbane Cricket Ground, Woolloongabba, Brisbane on 12th, 13th, 15th, 16th February 1960"cricketarchive। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০০৮ 
  3. Grout W, p. 63
  4. List of Test cricket innings with 6 or more dismissals by a wicketkeeper
  5. Grout W, p. 37
  6. Cricinfo Player Profile
  7. "Wally Grout"cricinfo.com। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ডিসেম্বর ২০০৮ 
  8. "Jeff Thomson, Wally Grout make cricket's Hall of Fame"ABC News (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৬-০১-২৭ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

গ্রন্থপঞ্জী[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]