নিল জনসন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নিল জনসন
ক্রিকেট তথ্য
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা ১৩ ৪৮
রানের সংখ্যা ৫৩২ ১৬৭৯
ব্যাটিং গড় ২৪.১৮ ৩৬.৫০
১০০/৫০ ১/৪ ৪/১১
সর্বোচ্চ রান ১০৭ ১৩২*
বল করেছে ১১৮৬ ১৫০৩
উইকেট ১৫ ৩৫
বোলিং গড় ৩৯.৬০ ৩৪.৮৫
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ৪/৭৭ ৪/৪২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১২/- ১৯/-
উৎস: Cricinfo, ৭ মার্চ ২০১৫

নিল ক্লার্কসন জনসন (জন্ম: ২৪ জানুয়ারি, ১৯৭০) সলিসবারিতে জন্মগ্রহণকারী জিম্বাবুয়ের সাবেক ক্রিকেটার। ১৯৯৮ থেকে ২০০০ মেয়াদে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্ব করেন নিল জনসন। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডার ছিলেন। ডানহাতে ফাস্ট মিডিয়াম বোলিংয়ের পাশাপাশি মাঝারি সারিতে ব্যাটিংয়ে নেমে আক্রমণাত্মক ভঙ্গীমায় খেলতেন। তবে, একদিনের আন্তর্জাতিকে ব্যাটিং উদ্বোধনে নামতেন। দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলেন। বোল্যান্ড, ইস্টার্ন প্রভিন্স, নাটাল, ওয়েস্টার্ন প্রভিন্স, লিচেস্টারশায়ারহ্যাম্পশায়ারের পক্ষে খেলেন।

ক্রিকেট বিশ্বকাপ[সম্পাদনা]

১৯৯৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে জিম্বাবুয়ে দলের সুপার সিক্স পর্যায়ে উত্তরণের জন্য জনসন বিরাট ভূমিকা রাখেন। প্রতিযোগিতায় তিনি ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার পেয়েছেন তিনবার। তন্মধ্যে, সেমি-ফাইনালে অংশগ্রহণকারী দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তার ভূমিকা ছিল প্রশংসনীয়। ব্যাটিং উদ্বোধনে নেমে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৬ রান তোলেন। এরপূর্বে প্রথম বলেই গ্যারি কার্স্টেনকে আউট করেন। জ্যাক ক্যালিসকে শূন্য রানে আউট করাসহ খেলায় তিনি ২৭ রানে ৩ উইকেট দখল করেন। লর্ডসে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ অপরাজিত ১৩২* সহ ৪৩ রানে ২ উইকেট পান। তা স্বত্ত্বেও তার দল পরাজিত হয়েছিল।[১]

অবসর[সম্পাদনা]

২০০০ সালে ইংল্যান্ড সফরের পর জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট ইউনিয়নের সাথে আর্থিক বিষয়ে মতানৈক্য হওয়ায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গন থেকে অবসর নিতে বাধ্য হন। তারপর তিনি দক্ষিণ আফ্রিকা চলে যান। সেখানেই তার শৈশবকাল অতিবাহিত হয়েছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "5th Super: Australia v Zimbabwe at Lord's, Jun 9, 1999 | Cricket Scorecard"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]