শেন ওয়ার্ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শেন ওয়ার্ন
Shane Warne 2011.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামশেন কেইথ ওয়ার্ন
জন্ম (1969-09-13) ১৩ সেপ্টেম্বর ১৯৬৯ (বয়স ৫২)
ভিক্টোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া
ডাকনামওয়ার্নে, কিং অব স্পিন, শেক অব টুইক
উচ্চতা১.৮৩ মিটার (৬ ফুট ০ ইঞ্চি)
ব্যাটিংয়ের ধরনডান হাতি
বোলিংয়ের ধরনডান হাতি লেগ ব্রেক
ভূমিকালেগ স্পিন বোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৩৫০)
২ জানুয়ারি ১৯৯২ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট২ জানুয়ারি ২০০৭ বনাম ইংল্যান্ড
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১১০)
২৪ মার্চ ১৯৯৩ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ ওডিআই১০ জানুয়ারি ২০০৫ বনাম এশিয়া একাদশ
ওডিআই শার্ট নং২৩
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯০/৯১–২০০৬/০৭ভিক্টোরিয়া (জার্সি নং ২৩)
২০০০–২০০৭হ্যাম্পশায়ার (জার্সি নং ২৩)
২০০৮–২০১১রাজস্থান রয়্যালস (জার্সি নং ২৩)
২০১১/১২–২০১৩মেলবোর্ন স্টার্স (জার্সি নং ২৩)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১৪৫ ১৯৪ ৩০১ ৩১১
রানের সংখ্যা ৩,১৫৪ ১,০১৮ ৬,৯১৯ ১,৮৭৯
ব্যাটিং গড় ১৭.৩২ ১৩.০৫ ১৯.৪৩ ১১.৮১
১০০/৫০ ০/১২ ০/১ ২/২৬ ০/১
সর্বোচ্চ রান ৯৯ ৫৫ ১০৭* ৫৫
বল করেছে ৪০,৭০৪ ১০,৬৪২ ৭৪,৮৩০ ১৬,৪১৯
উইকেট ৭০৮ ২৯৩ ১,৩১৯ ৪৭৩
বোলিং গড় ২৫.৪১ ২৫.৭৩ ২৬.১১ ২৪.৬১
ইনিংসে ৫ উইকেট ৩৭ ৬৯
ম্যাচে ১০ উইকেট ১০ - ১২ -
সেরা বোলিং ৮/৭১ ৫/৩৩ ৮/৭১ ৬/৪২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১২৫/– ৮০/– ২৬৪/– ১২৬/–
উৎস: ক্রিকইনফো, ৪ জানুয়ারি ২০১৬

শেন কেইথ ওয়ার্ন (জন্ম: সেপ্টেম্বর ১৩, ১৯৬৯) ভিক্টোরিয়ার ফার্নট্রি গুল্লি এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত ও সাবেক অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার। তাকে ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বকালের অন্যতম সেরা বোলার বিবেচনা করে থাকে। [১] ওয়ার্ন ১৯৯৪ সালে উইজডেন ক্রিকেটার্স অ্যালম্যানাক-এ বর্ষসেরা উইজডেন ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছিলেন। [২]

ওয়ার্ন একজন জেনুইন লেগ স্পিনার ছিলেন, সাথে লোয়ার অর্ডারে কার্যকরী ব্যাটিং করতেন। ২০০০-২০০৭ ক্রিকেট বিশ্বে অস্ট্রেলিয়ার আধিপত্যের অন্যতম কারিগর ছিলেন তিনি।

২০১৩ সালে, ওয়ার্নকে আইসিসি ক্রিকেট হল অফ ফেমে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল। [৩]

টেস্ট ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার অভিষেক ১৯৯২ সালের ২রা জানুয়ারি, ভারতের বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে। [৪] অভিষেকে সেভাবে আলো ছড়াতে পারেননি। ১ ইনিংসে বল করে ১৫০ রান দিয়ে ফিরিয়েছিলেন শুধু ২০৬ রান করা ‪‎রবি শাস্ত্রী‬ কে। শুরুটা ভাল না হলেও পরে তিনি অসাধারণ পারফরমেন্স করতে থাকেন| ১৪৫ টি টেস্ট ম্যাচের ২৭৩ টি ইনিংসে তিনি ৭০৮টি উইকেট নিয়েছেন। ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছেন ৩৭ বার,আর ১০ উইকেট নিয়েছেন ১০ বার। তাছাড়া লোয়ার অর্ডারে ১৯৯ ইনিংসে ব্যাট করে করেছেন ১২ টি হাফ সেঞ্চুরি, টেস্ট ক্রিকেটে তিনি ৩০০০ এর বেশি রান করেন। তার ইনিংসে সেরা বোলিং ফিগার ৮/৭১। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিনি টেস্ট ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ ৯৯ রান করেন। ২০০৭ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিনি শেষ টেস্ট ম্যাচ খেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন। ৩ ডিসেম্বর,২০০৭ সালে ‪‎মুরালিধরন‬ তাকে টপকাবার আগ পর্যন্ত তিনিই ছিলেন টেস্ট ইতিহাসের সরবোচ্চ উইকেট শিকারি।

ওয়ানডে ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

ওয়ানডেতেও তার পারফরমেন্স খুবই ভাল ছিল, অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২৯৩ টি উইকেট নেন তিনি। তার অসাধারণ পারফরমেন্সর জন্যই অস্ট্রেলিয়া ১৯৯৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ জিতে, যেখানে তিনি সেমিফাইনাল ও ফাইনালের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। ১৯৯৬ বিশ্বকাপের রানার্সআপ দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।

বিতর্ক[সম্পাদনা]

২০০৩ সালের বিশ্বকাপের আগে তার ক্রিকেট খেলার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়। বিশ্বকাপের আগে তার ডোপ টেস্টে ফল পজিটিভ আসে, ২০০৪ সালে তিনি ক্রিকেটে ফিরেন, অস্ট্রেলিয়ার আর ওয়ানডে না খেললেও টেস্ট খেলে যান।

টি২০ ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের পরে ওয়ার্ন আইপিএল ও বিগ ব্যাসে টি ২০ লীগ খেলতে থাকেন,তার নেতৃত্বেই রাজস্থান রয়েলস প্রথম আইপিএল চ্যাম্পিয়ন হয়, যেখানে তার অধিনায়কত্বের প্রশংসিত হয়েছিল। বিগ ব্যাশে তিনি মেলবোর্ন স্টার্সের অধিনায়ক ছিলেন। ২০১৩ সালে তিনি বিগ ব্যাশ খেলে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেন।

বল অব দ্য সেঞ্চুরি[সম্পাদনা]

১৯৯৩ সালে মাইক গ্যাটিংকে আউট করা বলটিকে গত শতাব্দীর সেরা বল বলা হয়।

সম্মাননা[সম্পাদনা]

২০০০ সালে শতাব্দীর সেরা অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট বোর্ড দলেও তাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।[৫]

সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড এ অবসর[সম্পাদনা]

২০০৭ সালে এই মাঠে ওয়ার্ন ক্রিকেট জীবনে অবসর নেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. 'The finest legspinner the world has ever seen'Cricinfo Australia, 20 December 2006
  2. "Cricketer of the Year 1994 Shane Warne"ESPNcricinfo। ১৯৯৪। 
  3. PTI (১৩ জুলাই ২০০৯)। "Shane Warne gets ICC Hall of Fame honour"। India Today। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুলাই ২০১৯ 
  4. "The Demon strikes three times"ESPN Cricinfo। ২ জানুয়ারি ২০০৬। সংগ্রহের তারিখ ২৭ এপ্রিল ২০১৮ 
  5. "Panel selects cricket team of the century"Australian Broadcasting Corporation। ২০০০-০১-১৮। সংগ্রহের তারিখ ২০০৭-০৬-০৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]