টেস্ট ক্রিকেট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মাঝে হালকা রঙের অংশটি ক্রিকেট পীচ, কালো রঙের ট্রাউজার পরিহিত মানুষ দুজন আম্পায়ার, সাদা রঙের পোশাক পরিহিত মানুষগুলো খেলোয়াড়

টেস্ট ক্রিকেট (ইংরেজি: Test Cricket) ক্রিকেট খেলার দীর্ঘতর সংস্করণ যা টেস্ট ক্রিকেট বা টেস্ট ম্যাচ হিসেবে পরিচিত। এছাড়া ক্রিকেট বোদ্ধাদের কাছে আসল ক্রিকেট বলে পরিচিত। সাধারণত একে কোন একটি দলের ক্রিকেট খেলার সক্ষমতা যাচাইয়ের প্রধান মানদণ্ড হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। পূর্বে ৬-দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হতো। পরবর্তীতে তা পাঁচদিনে নিয়ে আসা হয় ও মাঝখানে একদিন বিশ্রাম রাখা হয়। বর্তমানে বিশ্রাম রাখা হয় না।

প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃত টেস্ট ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয় ১৮৭৭ সালের ১৫ মার্চ যাতে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।

নিয়মের ইতিহাস[সম্পাদনা]

টেস্ট ম্যাচে‌ নানা পরিবর্তন হয়েছে। তিন দিন থেকে ছ’দিন। কখনও অনির্দিষ্ট কালের জন্য। শেষ অনির্দিষ্ট কালের জন্য ম্যাচ হয়েছিল ১৯৩৮-৩৯এ। সে বার ডারবানে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের ম্যাচ শেষ পর্যন্ত থেমেছিল ১০দিন পর ইংল্যান্ডের জাহাজ ধরার জন্য।[১]

গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ[সম্পাদনা]

  1. দি অ্যাশেজ
  2. ফ্রাঙ্ক ওরেল ট্রফি
  3. উইজডেন ট্রফি
  4. বর্ডার-গাভাস্কার ট্রফি
  5. ব্যাসিল ডি’অলিভেইরা ট্রফি
  6. পতৌদি ট্রফি

টেস্ট সেঞ্চুরি[সম্পাদনা]

টেস্ট ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো সেঞ্চুরির সৌভাগ্য অর্জন করেন অস্ট্রেলিয়ার ডানহাতি ব্যাটসম্যান চার্লস ব্যানারম্যান। ১৫-১৯ মার্চ, ১৮৭৭ সালে মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত অস্ট্রেলিয়া বনাম ইংল্যান্ডের মধ্যকার বিশ্বের ১ম টেস্টে ১৬৫ রান করে অবসর নিয়েছিলেন তিনি।[২] ১৮৮০ সালে কেনিংটন ওভালে প্রথমবারের মতো শতরানের জুটি গড়েন ইংল্যান্ডের ডব্লিউ. জি. গ্রেস - এ. পি. লুকাস। ৬-৮ সেপ্টেম্বর, ১৮৮০ সালে তারা এ শতরানের জুটিটি গড়েন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম ও একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে এক ইনিংসে ৪০০ রান করেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের ব্যাটিং বিস্ময় ব্রায়ান লারা। ভারতের সাবেক ব্যাটসম্যান শচীন তেন্ডুলকর ৫১টি সেঞ্চুরি করে বিশ্বরেকর্ডের অধিকার অর্জন করেছেন।

টেস্ট র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপ
র‌্যাঙ্ক দলের নাম খেলার সংখ্যা পয়েন্ট রেটিং
 ভারত ২৯ ৩৬৩৪ ১২৫
 দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৫ ৩৭১২ ১০৬
 অস্ট্রেলিয়া ৩৩ ৩৪৯৯ ১০৬
 নিউজিল্যান্ড ২৩ ২৩৫৪ ১০২
 ইংল্যান্ড ৩৯ ৩৭৭৮ ৯৭
 শ্রীলঙ্কা ৩৮ ৩৬৬২ ৯৭
 পাকিস্তান ২১ ১৮৫৩ ৮৮
 ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২৯ ২২৩৫ ৭৭
 বাংলাদেশ ১৯ ১২৬৮ ৬৭
১০  জিম্বাবুয়ে ১২
সূত্র: আইসিসি র‌্যাঙ্কিং, ইএসপিএন, ৩০ জুলাই, ২০১৮

আফগানিস্তান এবং আয়ারল্যান্ড ২২ জুন ২০১৭ টেস্ট পরিবারে অন্তর্ভুক্ত হলেও এখনও কোন টেস্ট খেলায় অংশগ্রহণ না করায় র‌্যাঙ্কিং এ প্রদর্শিত হয়নি।


বর্তমান টেস্ট ক্রিকেটার[সম্পাদনা]

ব্যাটসম্যান
আইসিসি শীর্ষ ১০ টেস্ট ব্যাটসম্যান
অবস্থান পরিবর্তন খেলোয়াড়ের নাম দলের নাম রেটিং
অপরিবর্তিত স্টিভ স্মিথ  অস্ট্রেলিয়া ৯০৬
বৃদ্ধি জো রুট  ইংল্যান্ড ৮৭৮
বৃদ্ধি হাশিম আমলা  দক্ষিণ আফ্রিকা ৮৪৭
বৃদ্ধি ইউনুস খান  পাকিস্তান ৮৪৫
বৃদ্ধি কেন উইলিয়ামসন  নিউজিল্যান্ড ৮৪১
বৃদ্ধি অজিঙ্কা রাহানে  ভারত ৮২৫
হ্রাস এবি ডি ভিলিয়ার্স  দক্ষিণ আফ্রিকা ৮০২
বৃদ্ধি এ্যাডাম ভোজেস  অস্ট্রেলিয়া ৮০২
বৃদ্ধি ডেভিড ওয়ার্নার  অস্ট্রেলিয়া ৭৭২
১০ বৃদ্ধি অ্যালাস্টেয়ার কুক  ইংল্যান্ড ৭৭০
তথ্যসূত্র: আইসিসি র‌্যাঙ্কিংস, ১৩ অক্টোবর, ২০১৬
বোলার
আইসিসি শীর্ষ ১০ টেস্ট বোলার
অবস্থান পরিবর্তন খেলোয়াড়ের নাম দলের নাম রেটিং
অপরিবর্তিত ডেল স্টেইন  দক্ষিণ আফ্রিকা ৯০৫
বৃদ্ধি স্টুয়ার্ট ব্রড  ইংল্যান্ড ৮৩৫
বৃদ্ধি ট্রেন্ট বোল্ট  নিউজিল্যান্ড ৮১৪
বৃদ্ধি ইয়াসির শাহ  পাকিস্তান ৮১০
হ্রাস জেমস অ্যান্ডারসন  ইংল্যান্ড ৮০৭
হ্রাস মিচেল জনসন  অস্ট্রেলিয়া ৭৭৩
অপরিবর্তিত ভার্নন ফিল্যান্ডার  দক্ষিণ আফ্রিকা ৭৭০
বৃদ্ধি রবিচন্দ্রন অশ্বিন  ভারত ৭৬০
হ্রাস রঙ্গনা হেরাথ  শ্রীলঙ্কা ৭১৬
১০ হ্রাস টিম সাউদি  নিউজিল্যান্ড ৭১৩
তথ্যসূত্র: আইসিসি র‌্যাঙ্কিংস, ৯ অক্টোবর, ২০১৫
অল-রাউন্ডার
আইসিসি শীর্ষ ১০ টেস্ট অল-রাউন্ডার
অবস্থান পরিবর্তন খেলোয়াড়ের নাম দলের নাম রেটিং
অপরিবর্তিত সাকিব আল হাসান  বাংলাদেশ ৩৮৪
বৃদ্ধি রবিচন্দ্রন অশ্বিন  ভারত ৩৪৭
হ্রাস ভার্নন ফিল্যান্ডার  দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৩৭
বৃদ্ধি স্টুয়ার্ট ব্রড  ইংল্যান্ড ২৯৪
হ্রাস মিচেল জনসন  অস্ট্রেলিয়া ২৬৩
বৃদ্ধি মোহাম্মদ হাফিজ  পাকিস্তান ২৪১
বৃদ্ধি মইন আলী  ইংল্যান্ড ২৩৬
বৃদ্ধি অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস  শ্রীলঙ্কা ২১৪
অপরিবর্তিত ডেল স্টেইন  দক্ষিণ আফ্রিকা ২১৩
১০ বৃদ্ধি মিচেল স্টার্ক  অস্ট্রেলিয়া ২১১
তথ্যসূত্র: আইসিসি র‌্যাঙ্কিংস, ৯ অক্টোবর, ২০১৫


গ্যালারি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]