মেজবান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মেজবানির জন্য রান্না।

মেজবান (ফারসি:میزبان) বাংলাদেশের বৃহত্তর চট্টগ্রাম এলাকার বহুমাত্রিক ঐতিহ্যবাহী একটি ভোজের অনুষ্ঠান। চট্টগ্রামের ভাষায় একে মেজ্জান বলা হয়। সাধারণত কারো মৃত্যুর পর কুলখানি, চেহলাম, মৃত্যুবার্ষিকী, শিশুর জন্মের পর আকিকা উপলক্ষে, ধর্মীয় ব্যক্তির মৃত্যুবার্ষিকীতে মেজবানের আয়োজন করা হয়। এছাড়া নির্দিষ্ট উপলক্ষ ছাড়া বা কোনো শুভ ঘটনার জন্যও মেজবান করা হয়।

উৎপত্তি[সম্পাদনা]

মেজবান ফারসি শব্দ। এর অর্থ নিমন্ত্রণকর্তা। মেজবানের উৎপত্তির সঠিক সময় নির্ণয় করা যায় না। তবে এই প্রথা সুদীর্ঘকাল ধরে চর্চিত হয়ে আসছে।

রীতি[সম্পাদনা]

বর্তমানের সাথে অতীতের মেজবান অনুষ্ঠানের কিছু পার্থক্য লক্ষ্য করা যায়। পূর্বে মাটিতে চাটাই বিছিয়ে ও মাটির সানকিতে নিমন্ত্রিতদের খাওয়ার ব্যবস্থা করা হত।[১] তবে বর্তমানে টেবিল চেয়ার ও সাধারণভাবে প্রচলিত থালায় খাওয়ার আয়োজন করা হয়।

খাদ্য[সম্পাদনা]

মেজবানে প্রধানত সাদা ভাত, গরুর মাংস, গরুর পায়ের হাড়ের ঝোল (চট্টগ্রামের ভাষায় "নলা কাজি" বলা হয়) ও বুটের ডাল পরিবেশন করা হয়।[২] কিছু ক্ষেত্রে মাছ ও মুরগির মাংসও পরিবেশন করতে দেখা যায়। মেজবানের গরুর মাংসের স্বাদ এর খ্যাতির কারণ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "মেজবান, দৈনিক আজাদী"। ২০১৬-০৩-০৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৫-০৩-১৭ 
  2. মেজবান, বাংলাপিডিয়া

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]