আলু ভর্তা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আলু ভর্তা
Meshed potato (alu bharta).jpg
বাঙালি শৈলীর আলু ভর্তা
উৎপত্তিস্থল বাংলাদেশ ,  ভারত
প্রধান উপকরণআলু , সরিষার তেল, ঘি , পেঁয়াজ , মরিচ , লবণ

আলু ভর্তা হল সিদ্ধ নরম আলু মরিচ (লংকা), পেঁয়াজতেল মিশিয়ে পিষে তৈরিকৃত একধরনের খাদ্য। যা সাধারনত তরকারী হিসাবে খাওয়া হয়। ১৭৪৭ সালে হান্না গ্লাসসের লেখা দ্যা আর্ট অভ কুকারিতে আলুভর্তা তৈরীর পদ্ধতি বর্ণিত হয়েছে[১]

উপকরণসমূহ[সম্পাদনা]

প্রস্তুত প্রণালী[সম্পাদনা]

প্রথমে একটি আলাদা পাত্রে পরিমাণমত আলু সিদ্ধ করে নিতে হবে। আলাদা একটি বাটিতে সিদ্ধ আলুর খোসা ছাড়িয়ে রেখে দিতে হবে। এবার পেঁয়াজ কুচি, মরিচ কুচি একটি ফ্রাই প্যানে হালকা তেলে একটু ভাজাভাজা করে নিতে হবে। এ পর্যায়ে সিদ্ধ আলুগুলো হাতের সাহায্যে চাপ দিয়ে ভেঙ্গে পিষতে হবে। সাথে ভাজা পেঁয়াজ ও মরিচকুচি এবং সরিষার তেল ভালভাবে মাখতে হবে। সাথে পরিমাণ মত লবণ দিতে হবে। অনেকে আলুর সাথে সিদ্ধ ডিম, সীম, বেগুন ইত্যাদিও ব্যবহার করেন।

এছাড়া অনেকে পোড়া মরিচ ব্যবহার করে; এতে ভর্তায় আলাদা এক প্রকার স্বাদ ও গন্ধ আসে। আবার কাঁচা মরিচ কুচিও ব্যবহার হয়। বৈচিত্র্য ও স্বাদের জন্য অনেক সময় ঘি ব্যবহার করা হয়।

বিভিন্নতা[সম্পাদনা]

আলু ভর্তায় বিভিন্ন উপাদান যোগ করায় এর বিভিন্নতা এসেছে। যেমনঃ

  • আলু ভর্তা
  • ডিম ও আলু ভর্তা[২]
  • শিম ও আলু ভর্তা

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]