বরফি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

বরফি বা বুরফি হল দুধ ও চিনি ভিত্তিক একপ্রকার মিস্টান্ন, যা দক্ষিণ এশিয়া মহাদেশের স্থানীয় ও বেশ জনপ্রিয় খাবার এবং এক ধরনের মিঠাই। নামটি ফারসি শব্দ বারফ থেকে এসেছে, যার অর্থ বরফ। বরফির বিখ্যাত কয়েকটি বৈচিত্র্যের মধ্যে রয়েছে বেসন বরফি, কাজু বরফি, পেস্তা বরফি ও সিন বরফি অন্তর্ভুক্ত। প্লেইন বারফির প্রধান উপাদানগুলির মধ্যে কনডেন্সড মিল্ক এবং চিনি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। মিশ্রণটি দৃঢ় না হওয়া পর্যন্ত উপাদানগুলি একটি পাত্রে রান্না করা হয়। বরফির স্বাদ প্রায়শই ফল (যেমন আম বা নারকেল) বা বাদাম (যেমন কাজু, পেস্তা বা চিনাবাদাম) এবং মশলা (যেমন এলাচ বা গোলাপজল) দিয়ে বাড়ানো হয়। বরফিগুলো সাধারণত ভের্ক হিসাবে পরিচিত ভোজ্য ধাতব পাতার একটি পাতলা স্তর দিয়ে প্রলেপ দেওয়া হয়। এগুলি সাধারণত স্কোয়ার, হীরা বা গোলাকার আকারে কাটা হয়। মিষ্টিটি সহজেই আনুষ্ঠানিক অনুষ্ঠানে সর্বাধিক আনুষ্ঠানিক ইভেন্টে পরিবেশিত হয়। বিভিন্ন ধরনের বরফি তাদের রঙ এবং জমিনে পরিবর্তিত হয়।

প্রকারভেদ[সম্পাদনা]

১. কেসরি পেধা বা পেরা: জাফরান, চ্যাপ্টা হলুদ গোল ২. কাজু বরফি বা কাজু কাটলি: কাজু, হালকা ট্যান হীরা ৩. পেস্তা বরফি: পেস্তা, বন সবুজ হীরা ৪. চম চম: গোলাপী এবং সাদা, সুশি ভাতের মত ৫. দুধ পেদা: কেওড়া তেল এবং পেস্তা, চ্যাপ্টা গাড় ট্যান গোল ৬. চকোলেট বরফি (ভারতীয় স্টাইলের ব্রাউনিজ) ৭. বাদাম পাক: গোলাপ জল এবং বাদাম, বাদামী হীরা আখরোট বরফি ৮. বরফি ফন বা বারফিফোন: ডুমুর, গোলাপী এবং হলুদ বর্ণের ৯. গাজর বরফি: গাজর, চৌকো এবং কমলা রঙের ১০. নারকেল বরফি: নারকেল, চিনি এবং দুধ, বর্গক্ষেত্র এবং হলুদ বর্ণের ১১. বরফি গাও: চিনাবাদাম, স্কোয়ার এবং বাদামী বর্ণের ১২. বেসন বরফি: ছোলা ময়দার হালকা হলুদ হীরা ১৩. দোধা বরফি: চিনাবাদাম

এই মিষ্টান্নগুলোর স্বাদ বাড়াতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত সাধারণ মশলা হল এলাচ। যখন কোনও বিয়ের অনুষ্ঠানে এই মিষ্টান্ন পরিবেশন করা হয় তখন সাধারণ ভাবে বরফির প্রান্তগুলিতে বারক (এক প্রকার ভোজ্য হলুদ রঙের পাতা) যুক্ত করা হয়। বরফিগুলোর স্বাদ এবং রঙিন বৈসাদৃশ্য সরবরাহ করার জন্য, প্রায়শই পরিবেশন করার আগে এগুলোর উপর বাদামের গুঁড়া ছড়িয়ে দেওয়া হয়।

মিষ্টান্নটি সারা বছর ধরে বাংলাদেশ, পাকিস্তান এবং ভারতে পরিবেশিত হয়। তবে বিশেষত ছুটির মৌসুম, বিবাহ অনুষ্ঠান এবং ধর্মীয় উত্সবগুলিতে বেশি পরিমাণে পরিবেশিত হয়। বরফির প্রায়শই ঈদ এবং দিওয়ালি সময় পরিবেশন করা হয়। বরফির একটি সাধারণ প্রকরণ হল "চকলেট বরফি", সাধারণ চকোলেট ফাজ ব্রাউনিজের সাথে তাদের সাদৃশ্যের কারণে "ভারতীয় স্টাইলের ব্রাউনি" বলা হয়ে থাকে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]