মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
মাইটভাঙ্গা
ইউনিয়ন
১৫নং মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ
মাইটভাঙ্গা বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
মাইটভাঙ্গা
মাইটভাঙ্গা
বাংলাদেশে মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২২°২৭′ উত্তর ৯১°২৯.৫′ পূর্ব / ২২.৪৫০° উত্তর ৯১.৪৯১৭° পূর্ব / 22.450; 91.4917স্থানাঙ্ক: ২২°২৭′ উত্তর ৯১°২৯.৫′ পূর্ব / ২২.৪৫০° উত্তর ৯১.৪৯১৭° পূর্ব / 22.450; 91.4917
দেশ  বাংলাদেশ
বিভাগ চট্টগ্রাম বিভাগ
জেলা চট্টগ্রাম জেলা
উপজেলা সন্দ্বীপ উপজেলা উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
সরকার
 • চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজান
আয়তন
 • মোট ১২.১৭ কিমি (৪.৭০ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট ৩৯,০০৮
 • ঘনত্ব ৩২০০/কিমি (৮৩০০/বর্গমাইল)
স্বাক্ষরতার হার
 • মোট ৪৯.৯৪%
সময় অঞ্চল বিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড ৪৩০১ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইট অফিসিয়াল ওয়েবসাইট উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন

মাইটভাঙ্গা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ উপজেলার অন্তর্গত একটি ইউনিয়ন

আয়তন[সম্পাদনা]

মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের আয়তন ৩০০৮ একর[১] (১২.১৭ বর্গ কিলোমিটার)। (২০০৭ সালের তথ্য অনুযায়ী)

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

২০১১ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের লোকসংখ্যা ৩৯,০০৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৮,২৪৪ জন এবং মহিলা ২০,৭৬৪ জন।[২]

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

সন্দ্বীপ উপজেলার দক্ষিণ-পশ্চিমে মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের অবস্থান। উপজেলা সদর থেকে এ ইউনিয়নের দূরত্ব প্রায় ৮ কিলোমিটার। এ ইউনিয়নের দক্ষিণে সারিকাইত ইউনিয়ন, পূর্বে মগধরা ইউনিয়ন, উত্তরে মুছাপুর ইউনিয়ন এবং পশ্চিমে আজিমপুর ইউনিয়নবঙ্গোপসাগর

প্রশাসনিক কাঠামো[সম্পাদনা]

মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন সন্দ্বীপ উপজেলার আওতাধীন ১৫নং ইউনিয়ন পরিষদ। এ ইউনিয়ন জাতীয় সংসদের ২৮০নং নির্বাচনী এলাকা চট্টগ্রাম-৩ এর অংশ। এ ইউনিয়নের প্রশাসনিক কার্যক্রম সন্দ্বীপ থানার আওতাধীন। এটি মাইটভাঙ্গা মৌজা নিয়েই গঠিত।

এ ইউনিয়নের গ্রামগুলো হল:

  • চৌধুরী গ্রাম
  • ফকিরের গ্রাম
  • করিমের গ্রাম
  • সিনেমা হল গ্রাম
  • পেলিশ্যার গ্রাম
  • জোরথালা গ্রাম
  • দায়রা গ্রাম
  • সাহা পাড়া
  • পশ্চিম গ্রাম

[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ব্রিটিশ শাসনামলের আনুমানিক ১৯৪৩ সালে প্রথম মাইটভাঙ্গা ও সারিকাইত এই ২টি গ্রাম নিয়ে মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন গঠিত হয়। ঐ সময়ে ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে গ্রাম প্রেসিডেন্ট বলা হত। ১৯৫০ সালে পাকিস্তান শাসনামলে গ্রাম প্রেসিডেন্ট এর পদকে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদবী ঘোষণা করা হয়। ১৯৫৪ সালে প্রথম গ্রাম প্রেসিডেন্ট হন মৃত খান বাহাদুর খবিরুল হক । তারপর পর্যায়ক্রমে মৃত জনাব মোস্তানছের বিল্লা প্রেসিডেন্ট এর দায়িত্ব পালন করেন। তিনিই মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন। ১৯৭১ এ বাংলাদেশ স্বাধীন হবার পর পরবর্তী সময়ে মাস্টার হাফিজুর রহমান ১৫নং মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৫ সালে প্রশাসনিক কাজের সুবিধার্থে তৎকালীন প্রশাসক মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন থেকে সাতঘরিয়া গ্রামকে পৃথক করে সারিকাইত নামে আলাদা ইউনিয়ন গঠন করা হয়। বর্তমানে ১১টি ছোট বড় গ্রাম মিলিয়েই মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ। তবে ঐ সময়ে গরুর গাড়ি ছিল এ অঞ্চলের একমাত্র যোগাযোগ স্থাপনকারী বাহন।[৩]

শিক্ষা ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের স্বাক্ষরতার হার ৪৯.৯৪%।[১] এ ইউনিয়নে ১টি কলেজ, ১টি ফাজিল মাদ্রাসা, ২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ১২টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান[সম্পাদনা]

কলেজ

[৪]

মাদ্রাসা

[৫]

মাধ্যমিক বিদ্যালয়

[৬]

প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • উত্তর পূর্ব মাইটভাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • উত্তর মাইটভাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • এ কে আজাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • এম এম আবদুল্লাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • দক্ষিণ পূর্ব মাইটভাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • দক্ষিণ মাইটভাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • নুরুল আহাদ তালুকদার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • নুরের হাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • পূর্ব মাইটভাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • মধ্য মাইটভাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • মাইটভাঙ্গা অনাথ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়
  • মাইটভাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

[৭]

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

উপজেলা সদর থেকে মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নে যোগাযোগের প্রধান সড়ক সন্দ্বীপ-মাইটভাঙ্গা সড়ক। যোগাযোগ মাধ্যম টেক্সী, মোটর সাইকেল ও রিক্সা।

ধর্মীয় উপাসনালয়[সম্পাদনা]

মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নে ২৪টি মসজিদ, ২টি ঈদগাহ ও ৭টি মন্দির রয়েছে।

খাল ও নদী[সম্পাদনা]

মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের পশ্চিম পাশে বঙ্গোপসাগর। এছাড়াও ইউনিয়নের অভ্যন্তরে রয়েছে মাইটভাঙ্গা খাল, কারামতিয়া খাল ও মুছাপুর খাল।[৮]

হাট-বাজার[সম্পাদনা]

মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের প্রধান প্রধান হাট/বাজারগুলো হল শিবের হাট, ফকিরের বাজার এবং চৌধুরী বাজার। [৯]

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

  • বর্তমান চেয়ারম্যান: মোহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজান[১০]
চেয়ারম্যানগণের তালিকা
ক্রম নং. চেয়ারম্যানের নাম মেয়াদকাল
০১ তৈয়ব আলী ১৯৮৩-১৯৮৮
০২ মাজেদুল ইসলাম সরকার ১৯৮৮-১৯৯৩
০৩ কফিল উদ্দীন ১৯৯৩-১৯৯৮
০৪ শাহ আলম সরকার ১৯৯৮-২০১০
০৫ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজান ২০১০-বর্তমান

[১১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "সন্দ্বীপ উপজেলা - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org 
  2. "গ্রামভিত্তিক লোকসংখ্যা - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন"maitbhangaup.chittagong.gov.bd 
  3. "মাইটভাঙ্গা ইউনিয়নের ইতিহাস - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন"maitbhangaup.chittagong.gov.bd 
  4. "কলেজ - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন"maitbhangaup.chittagong.gov.bd 
  5. "মাদ্রাসা - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন"maitbhangaup.chittagong.gov.bd 
  6. "মাধ্যমিকবিদ্যালয় - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন"maitbhangaup.chittagong.gov.bd 
  7. http://180.211.137.51:321/DashboardunionN.aspx?div=4&dis=411&thana=41103&union=21
  8. "মাইটভাঙ্গা খাল ও নদী - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন"maitbhangaup.chittagong.gov.bd 
  9. "হাট বাজার - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন"maitbhangaup.chittagong.gov.bd 
  10. "মোহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজান - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন"maitbhangaup.chittagong.gov.bd 
  11. "ইউনিয়ন পরিষদের পূর্বতন চেয়ারম্যানবৃন্দ - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন - মাইটভাঙ্গা ইউনিয়ন"maitbhangaup.chittagong.gov.bd 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]