আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণকারী পরিবারের তালিকা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

অত্র নিবন্ধটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণকারী পরিবারের তালিকাবিশেষ। এ তালিকায় টেস্ট, একদিনের আন্তর্জাতিক কিংবা টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সাথে জড়িত খেলোয়াড়দেরকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে।

পরিচ্ছেদসমূহ

অস্ট্রেলিয়া[সম্পাদনা]

অল্ডারম্যান/এমারসন[সম্পাদনা]

আর্চার[সম্পাদনা]

ব্যানারম্যান[সম্পাদনা]

বেনো[সম্পাদনা]

ব্ল্যাকওয়েল[সম্পাদনা]

ক্যাম্পবেল/পন্টিং[সম্পাদনা]

চ্যাপেল/রিচার্ডসন[সম্পাদনা]

ডার্লিং[সম্পাদনা]

গ্রিগরি[সম্পাদনা]

হার্ভে[সম্পাদনা]

হিলি/স্টার্ক[সম্পাদনা]

হাসি[সম্পাদনা]

লাফলিন[সম্পাদনা]

লি[সম্পাদনা]

লেহম্যান/হোয়াইট[সম্পাদনা]

মার্শ[সম্পাদনা]

শন ও মিচেল মার্শের পিতা হচ্ছেন জিওফ মার্শ।[১]

প্যাটিনসন[সম্পাদনা]

শিভিল/ব্লেড[সম্পাদনা]

এসি শিভিল ও লিলি শিভিল ৬ এপ্রিল, ১৯০৮ তারিখে যমজ ভগ্নি হিসেবে জন্মগ্রহণ করেন।[২] ফার্নি ব্লেড ও রেনে ব্লেড - যমজ ভগ্নিদ্বয় ২০ আগস্ট, ১৯১০ তারিখে জন্মগ্রহণ করেন।

ট্রট[সম্পাদনা]

ট্রাম্বল[সম্পাদনা]

ওয়াহ[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

ইকবাল/খান[সম্পাদনা]

মাহমুদুল্লাহ/রহিম[সম্পাদনা]

কানাডা[সম্পাদনা]

মোল্লা[সম্পাদনা]

ইংল্যান্ড[সম্পাদনা]

বেয়ারস্টো[সম্পাদনা]

ব্রড[সম্পাদনা]

বুচার[সম্পাদনা]

কম্পটন[সম্পাদনা]

কাউড্রে[সম্পাদনা]

ক্রিস কাউড্রে ও গ্রাহাম কাউড্রের পিতা হচ্ছেন কলিন কাউড্রে। ফ্যাবিয়ান কাউড্রে, ক্রিস কাউড্রের সন্তান।[৩]

কারেন[সম্পাদনা]

এডরিচ[সম্পাদনা]

জিলিগান[সম্পাদনা]

গ্রেস[সম্পাদনা]

গ্রেগ[সম্পাদনা]

গান[সম্পাদনা]

হার্ডস্টাফ[সম্পাদনা]

হার্ন[সম্পাদনা]

হলিউক[সম্পাদনা]

হাটন[সম্পাদনা]

জোন্স[সম্পাদনা]

লয়েড[সম্পাদনা]

মান[সম্পাদনা]

পার্কস[সম্পাদনা]

প্যাটিনসন[সম্পাদনা]

প্রাইডক্স/ওয়েস্টব্রুক[সম্পাদনা]

প্রিঙ্গল[সম্পাদনা]

রণজিতসিংজী/দিলীপসিংজী[সম্পাদনা]

রিচার্ডসন[সম্পাদনা]

সাইডবটম[সম্পাদনা]

স্মিথ[সম্পাদনা]

ক্রিস ও রবিন একে-অপরের ভ্রাতা।

মাইক ও নীল একে অপরের পিতা-পুত্র।

স্টুয়ার্ট/বুচার[সম্পাদনা]

স্টাড[সম্পাদনা]

টেট[সম্পাদনা]

টাউনসেন্ড[সম্পাদনা]

ট্রেমলেট[সম্পাদনা]

টিল্ডসলে/ভন[সম্পাদনা]

হোয়াইট/লেহম্যান[সম্পাদনা]

ড্যারেন লেহম্যান সম্পর্কে ক্রেগ হোয়াইটের ভগ্নীপতি হন। ড্যারেন লেহম্যান ক্রেগের বোন আন্দ্রিয়া’র সাথে পরিণয়সূত্রে আবদ্ধ হন।

উইলসন[সম্পাদনা]

হংকং[সম্পাদনা]

আহমেদ[সম্পাদনা]

ভারত[সম্পাদনা]

আলী[সম্পাদনা]

অমরনাথ[সম্পাদনা]

সিং/রামজি[সম্পাদনা]

আপ্তে[সম্পাদনা]

বিনি[সম্পাদনা]

এডুলজি[সম্পাদনা]

গায়কোয়াড়[সম্পাদনা]

গাভাস্কার[সম্পাদনা]

আহমেদ/ইকবাল[সম্পাদনা]

গুপ্তে[সম্পাদনা]

জাদেজা/রণজিতসিংজী/দিলীপসিংজী[সম্পাদনা]

কানিতকর[সম্পাদনা]

কার্তিক/ইত্তিচেরিয়া[সম্পাদনা]

খান/জিলানি[সম্পাদনা]

কিরমানী/আলী[সম্পাদনা]

২০০২ সালে কিরমানীর কন্যাকে সৈয়দ আবিদ আলীর পুত্র বিবাহ করে।[৪] তবে, ২০০৮ সালে মৃত্যুবরণ করে।[৫]

কৃপাল/মিল্খা[সম্পাদনা]

মাঞ্জরেকার[সম্পাদনা]

মানকড়[সম্পাদনা]

নায়ড়ু[সম্পাদনা]

পাণ্ড্য[সম্পাদনা]

পতৌদি[সম্পাদনা]

পাঠান[সম্পাদনা]

রায়[সম্পাদনা]

রাঠোর[সম্পাদনা]

শর্মা[সম্পাদনা]

সিং[সম্পাদনা]

আয়ারল্যান্ড[সম্পাদনা]

জয়েস[সম্পাদনা]

মুনি[সম্পাদনা]

ও’ব্রায়েন[সম্পাদনা]

পয়েন্টার[সম্পাদনা]

কেনিয়া[সম্পাদনা]

ওধিয়াম্বো/ওদয়ো[সম্পাদনা]

ওধিয়াম্বো/ওনিয়াঙ্গো/এনগোচি[সম্পাদনা]

ওবুয়া/ওটিয়েনো[সম্পাদনা]

ওদুম্বে[সম্পাদনা]

সুজি[সম্পাদনা]

টিকোলো[সম্পাদনা]

নামিবিয়া[সম্পাদনা]

বার্জার[সম্পাদনা]

কোৎজ[সম্পাদনা]

নেদারল্যান্ডস[সম্পাদনা]

কুপার[সম্পাদনা]

মল[সম্পাদনা]

জঙ্কম্যান[সম্পাদনা]

নিউজিল্যান্ড[সম্পাদনা]

অ্যান্ডারসন[সম্পাদনা]

অ্যাসলে/ম্যাকমিলান[সম্পাদনা]

ব্রেসওয়েল[সম্পাদনা]

ব্র্যাডবার্ন[সম্পাদনা]

কেয়ার্নস[সম্পাদনা]

ক্রো[সম্পাদনা]

হ্যাডলি[সম্পাদনা]

ব্যারি, ডেল ও রিচার্ড হ্যাডলির পিতা হচ্ছেন ওয়াল্টার হ্যাডলি। ১৯৭৭-৭৮ মৌসুমে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ড মহিলা দলের খেলোয়াড় কারেন রিচার্ড হ্যাডলিকে বিয়ে করেন।[৬]

হ্যারিস[সম্পাদনা]

হার্ট[সম্পাদনা]

হর্ন[সম্পাদনা]

হাওয়ার্থ[সম্পাদনা]

ল্যাথাম[সম্পাদনা]

মার্শাল[সম্পাদনা]

ম্যাককুলাম[সম্পাদনা]

ম্যাকগ্ল্যাশান[সম্পাদনা]

পার্কার[সম্পাদনা]

রেডমন্ড[সম্পাদনা]

রিড[সম্পাদনা]

রাদারফোর্ড[সম্পাদনা]

সিগন্যাল[সম্পাদনা]

স্নেডেন[সম্পাদনা]

ভিভিয়ান[সম্পাদনা]

ওয়েব[সম্পাদনা]

পাকিস্তান[সম্পাদনা]

হক[সম্পাদনা]

আফ্রিদি[সম্পাদনা]

আকমল/কাদির[সম্পাদনা]

বার্কি / খান[সম্পাদনা]

দলপত/কানেরিয়া[সম্পাদনা]

এলাহী[সম্পাদনা]

আহমেদ/মালিক[সম্পাদনা]

ফারহাত[সম্পাদনা]

ইকবাল/মিয়াঁদাদ[সম্পাদনা]

খান[সম্পাদনা]

মোহাম্মদ[সম্পাদনা]

হানিফ, মুশতাক, সাদিক ও ওয়াজির একে-অপরের ভ্রাতা। পঞ্চম ভ্রাতা রইছ মোহাম্মদ একবার পাকিস্তান দলের পক্ষে দ্বাদশ খেলোয়াড়ের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন। তন্মধ্যে, হানিফ, মুশতাক ও সাদিক একযোগে ১৬৯-৭০ মৌসুমে করাচীতে সফরকারী নিউজিল্যান্ড দলের বিপক্ষে খেলেন। শোয়েব মোহাম্মদের পিতা হচ্ছেন হানিফ মোহাম্মদ।[৯]

নজর[সম্পাদনা]

নজর মোহাম্মদের সন্তান হচ্ছেন মুদাসসর নজর।[১০]

রাজা[সম্পাদনা]

স্কটল্যান্ড[সম্পাদনা]

ড্রুমন্ড[সম্পাদনা]

হক/হোসেন[সম্পাদনা]

উভয়েই একে-অপরের কাকাতো ভাই।[১১]

শ্রীলঙ্কা[সম্পাদনা]

ডি অলউইস/সিলভা[সম্পাদনা]

রানাতুঙ্গা[সম্পাদনা]

সামারাবীরা[সম্পাদনা]

ওয়ার্নাপুরা[সম্পাদনা]

ওয়েতিমুনি[সম্পাদনা]

দক্ষিণ আফ্রিকা[সম্পাদনা]

ব্লাঙ্কেনবার্গ/রাইনেভেল্ড[সম্পাদনা]

কালাহান/ক্যাম্প[সম্পাদনা]

কার্স্টেন[সম্পাদনা]

মরকেল[সম্পাদনা]

নোর্স[সম্পাদনা]

পিদি[সম্পাদনা]

পোলক[সম্পাদনা]

ট্যানক্রেড[সম্পাদনা]

ট্যাপস্কট[সম্পাদনা]

ওয়েস্ট ইন্ডিজ[সম্পাদনা]

ব্র্যাভো[সম্পাদনা]

ব্রাউন/ব্রাউন-জন[সম্পাদনা]

ক্যামেরন[সম্পাদনা]

ক্রফ্ট/হান্ট[সম্পাদনা]

কলিন্স/এডওয়ার্ডস[সম্পাদনা]

গিবস/লয়েড[সম্পাদনা]

গ্র্যান্ট[সম্পাদনা]

হেডলি[সম্পাদনা]

হলফোর্ড/সোবার্স[সম্পাদনা]

কালীচরণ/নাগামুতু[সম্পাদনা]

কানহাই/নাগামুতু[সম্পাদনা]

মারে/উইকস[সম্পাদনা]

স্যামুয়েলস[সম্পাদনা]

শিলিংফোর্ড[সম্পাদনা]

গ্রেসন ও আরভিন একে-অপরের কাকাতো ভাই।[১২] অন্যদিকে, শেন উভয়ের সাথে সম্পর্কযুক্ত।[১৩] তিনজনই ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে টেস্ট খেলেন। অন্যদিকে, আরভিন ওডিআইয়েও জড়িত ছিলেন।

স্টলমেয়ার[সম্পাদনা]

জিম্বাবুয়ে[সম্পাদনা]

কারেন[সম্পাদনা]

আরভিন[সম্পাদনা]

ফ্লাওয়ার[সম্পাদনা]

জার্ভিস[সম্পাদনা]

মাসাকাদজা[সম্পাদনা]

রেনি[সম্পাদনা]

স্ট্র্যাং[সম্পাদনা]

মন্তব্য: ফ্লাওয়ার, রেনি ও স্ট্র্যাং - এ তিন জোড়া যমজ ভ্রাতা সেপ্টেম্বর, ১৯৯৭ সালে হারারেতে সফরকারী নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে একযোগে খেলেন।[১৪]

ওয়ালার[সম্পাদনা]

অ্যান্ডি, ম্যালকমের পিতা।[১৫]

হুইটল[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Wu, Andrew (১৬ ডিসেম্বর ২০১৪)। "Shaun Marsh wants end to boom or bust days when he teams up with brother Mitchell" 
  2. Lynch, Stephen (১৩ ফেব্রুয়ারি ২০০৬)। "A catching problem, and the first twins"ESPNcricinfoESPN Inc.। সংগ্রহের তারিখ ২৮ অক্টোবর ২০১৪ 
  3. "Fabian Cowdrey follows father and grandfather into Kent side"BBC Sport। ২ মে ২০১২। 
  4. "Kirmani's daughter weds Abid Ali's son"। Rediff। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  5. "Faaqer Ali"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৬ 
  6. Partnerships - at the crease, and in the church[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  7. Nadeem Khan's profile PCB. Retrieved 16 January 2011
  8. Moin Khan's profile PCB. Retrieved 16 January 2011
  9. Hanif Mohammad cricinfo 25 October 2011
  10. Nazar Mohammad cricinfo Retrieved 25 October 2011
  11. http://www.sundaymail.co.uk/sport/cricket/tm_headline=majid%2D-cousin-omer-can-help-saltires-maul-the-bears--%26method=full%26objectid=19273780%26siteid=64736-name_page.html
  12. Grayson Shillingford espncricinfo profile Retrieved 22 April 2012
  13. Shillingford's grandstand finish 21 April 2012 espncricinfo.com Retrieved 22 April 2012
  14. Cricinfo: Zimbabwe v New Zealand, 1997/98, 1st Test
  15. Andy Waller cricinfo 25 October 2011

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]