ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড
ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড.jpg
২০১১ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম(১৯২৮-০৩-১৯)১৯ মার্চ ১৯২৮
কেপ টাউন, সাউথ আফ্রিকা ইউনিয়ন
মৃত্যু২৯ জানুয়ারি ২০১৮(2018-01-29) (বয়স ৮৯)
কেপ টাউন, সাউথ আফ্রিকা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনলেগব্রেক গুগলি
সম্পর্কজিমি ব্লাঙ্কেনবার্গ (কাকা); ফিলিপ ভন রাইনেভেল্ড (পুত্র)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক৭ জুন ১৯৫১ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট২৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৫৮ বনাম অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৯ ১০১
রানের সংখ্যা ৭২৪ ৪৮০৩
ব্যাটিং গড় ২৬.৮১ ৩০.২০
১০০/৫০ ০/৩ ৪/২৯
সর্বোচ্চ রান ৮৩ ১৫০
বল করেছে ১৫৫৪ ১৩৩২৯
উইকেট ১৭ ২০৬
বোলিং গড় ৩৯.৪৭ ৩০.২৪
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৪/৬৭ ৮/৪৮
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৪/- ৭১/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ক্লাইভ বারেঞ্জ ভন রাইনেভেল্ড (ইংরেজি: Clive van Ryneveld; জন্ম: ১৯ মার্চ, ১৯২৮ - মৃত্যু: ২৯ জানুয়ারি, ২০১৮) কেপ টাউনে জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা দক্ষিণ আফ্রিকান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৫১ থেকে ১৯৫৮ সময়কালে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে উনিশ টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ হয় তাঁর।[১] দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন। ডানহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি লেগব্রেক গুগলি বোলিং পারদর্শীতা দেখিয়েছেন। এছাড়াও, দক্ষিণ আফ্রিকা দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেন ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড ক্রিকেটের পাশাপাশি রাগবি ইউনিয়নের খেলায়ও অংশগ্রহণ করেছিলেন। ১৯৪৭, ১৯৪৮ ও ১৯৪৯ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলায় অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় আরএফসি’র প্রতিনিধিত্ব করেন। ইংল্যান্ড জাতীয় রাগবি ইউনিয়ন দলের সদস্যরূপে চারবার সেন্টারে খেলার সুযোগ পান। চারটি খেলার সবকটিই ১৯৪৯ সালে অনুষ্ঠিত পঞ্চ-দেশীয় চ্যাম্পিয়নশীপে খেলেছিলেন। ইংল্যান্ডের পক্ষে তিনটি গোল করেন। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ও স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে তিনটি করেন। তবে, দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে কখনো রাগবি ইউনিয়নে অংশ নেননি।

স্পোর্টস২৪ তাঁর সম্পর্কে স্মরণীকা প্রকাশ করে। এতে তাঁকে দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যতম সেরা সর্বক্রীড়ায় পারদর্শী ক্রীড়াব্যক্তিত্বরূপে তুলে ধরা হয়। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্ব করার পাশাপাশি দলের অধিনায়কত্ব করেন। রোডস স্কলার হিসেবে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালে ইংল্যান্ডের পক্ষে রাগবিতে অংশ নেন। এগুলোর পাশাপাশি সমভাবে দক্ষিণ আফ্রিকায় সমাজ গঠনের প্রচেষ্টার সাথেও জড়িত ছিলেন।[২]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড সংক্ষিপ্তকালের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। ১৯৫৭ সালে ইউনাইটেড পার্টির সদস্যরূপে সংসদ সদস্য পদে নির্বাচিত হন। এ দলটি সরকার নিয়ন্ত্রিত ন্যাশনাল পার্টির বর্ণবাদ নীতির বিরুদ্ধে প্রতিপক্ষীয় ছিল।

দুই বছর পর ১৯৫৯ সালে ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড ও অন্য এগারো সংসদ সদস্য ইউনাইটেড পার্টি থেকে বেরিয়ে আসেন। তাঁরা প্রগেসিভ পার্টি গঠন করেন। দলটি বর্ণবাদের বিপক্ষে আরও রুখে দাঁড়ায়। দলটি ঐ সময়ে বেশ সাড়া জাগায়। ১৯৬১ সালের সাধারণ নির্বাচনে হেলেন সাজম্যান বাদে অন্য সকলেই প্রগেসিভ দলের সংসদ সদস্য পদে জয়লাভ করেছিলেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

এরপর ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড আইন পেশায় জড়িয়ে পড়েন। জীবনের শেষের দিনগুলোয় সস্ত্রীক ভেরিটিসহ কেপ টাউনে বসবাস করতে থাকেন। তাঁদের তিন সন্তান - মার্ক, ফিলিপ ও টিসা দক্ষিণ আফ্রিকায় অবস্থান করছেন। তাঁর কাকা জিমি ব্লাঙ্কেনবার্গ দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে ও পুত্র ফিলিপ ভন রাইনেভেল্ড প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

২০১১ সালে ‘টুয়েন্টিয়েথ সেঞ্চুরি অল-রাউন্ডার: রেমিনিসেন্সেস অ্যান্ড রিফ্লেকশন্স অব ক্লাইভ ভন রাইনেভেল্ড’ শীর্ষক গ্রন্থ প্রকাশ করেন।[৩]

৮৯ বছর বয়সে ২৯ জানুয়ারি, ২০১৮ তারিখে কেপ টাউনে নিজ বাসগৃহে তাঁর দেহাবসান ঘটে। মৃত্যুকালে তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার সর্ববয়োজ্যেষ্ঠ অধিনায়ক হিসেবে সম্মাননা পেয়ে আসছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Clive van Ryneveld, former SA captain, dies aged 89"। ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  2. "CSA pays tribute to Clive van Ryneveld" Sport24, 29 January 2018.
  3. "Can bat, can bowl, can start political party" Retrieved 4 March 2013.

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]