গ্রেইম পোলক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
গ্রেইম পোলক
Graeme Pollock.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম রবার্ট গ্রেইম পোলক
জন্ম (১৯৪৪-০২-২৭) ২৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৪ (বয়স ৭৩)
ডারবান, নাটাল প্রদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকা
ডাকনাম লিটল ডগ
উচ্চতা ৬ ফুট ২ ইঞ্চি (১.৮৮ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরন বামহাতি
বোলিংয়ের ধরন লেগ ব্রেক
ভূমিকা ব্যাটসম্যান
সম্পর্ক এএম পোলক (বাবা), আর হাউডেন (কাকা), পিএম পোলক (ভাই),
আর নিকলসন, সিআর নিকলসন (কাকাতো ভাই),
এজি পোলক, জিএ পোলক (পুত্র),
এসএম পোলক (ভাইপো)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২১৮)
৬ ডিসেম্বর ১৯৬৩ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট ৫ মার্চ ১৯৭০ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছর দল
১৯৬০/৬১-১৯৭৭/৭৮ ইস্টার্ন প্রভিন্স
১৯৭৮/৭৯-১৯৮৬/৮৭ ট্রান্সভাল
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ২৩ ২৬২ ১১৯
রানের সংখ্যা ২২৫৬ ২০৯৪০ ৪৭৮৮
ব্যাটিং গড় ৬০.৯৭ ৫৪.৬৭ ৫১.৪৮
১০০/৫০ ৭/১১ ৬৪/৯৯ ১৩/২৫
সর্বোচ্চ রান ২৭৪ ২৭৪ ২২২*
বল করেছে ৪১৪ ৩৭৪৩ ৫৩
উইকেট ৪৩
বোলিং গড় ৫১.০০ ৪৭.৯৫
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ২/৫০ ৩/৪৬ ০/৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৭/০ ২৪৮/০ ৪৫/০
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ১৫ অক্টোবর ২০১৫

রবার্ট গ্রেইম পোলক (জন্ম: ২৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৪৪) হচ্ছেন নাটাল প্রদেশের ডারবানে জন্মগ্রহণকারী একজন সাবেক দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। গ্রেইম পোলক দক্ষিণ আফ্রিকার সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার হিসেবে পরিচিত।[১][২] এছাড়াও তিনি টেস্ট ক্রিকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছেন।[২][৩][৪] ঘরোয়া ক্রিকেটে ট্রান্সভালইস্টার্ন প্রভিন্সের পক্ষে খেলেছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯৪৪ সালে ডারবানের এক জনপ্রিয় ক্রিকেট স্কটিশ পরিবারে পোলকের জন্ম।[৩][৫][৬] তাঁর দাদা মন্ত্রী ছিলেন। বাবা অ্যান্ড্রু প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অরেঞ্জ ফ্রি স্টেট দলের ক্রিকেটার ছিলেন। এছাড়াও অ্যান্ড্রু পোর্ট এলিজাবেথ হেরাল্ডের সম্পাদক হিসেবে কাজ করেন।[৬][৭] কৈশোরে পোলকের ডাকনাম ছিল লিটল ডগ।[৮]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গন থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার বহিষ্কারাদেশ থাকায় তাঁকে মাত্র ২৬ বছর বয়সেই খেলোয়াড়ী জীবন শেষ করতে হয়। তিনি ২৩টি টেস্ট খেলায় অংশ নিয়েছেন যার সবকটিই ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে।[২] এ সময়েই তিনি অনেকগুলো রেকর্ড ভঙ্গ করেন। ৬০.৯৭ গড়ে তাঁর টেস্ট গড় ছিল যা স্যার ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যানের পর দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে।[৯]

১৯ বছর বয়সে ১৯৬৩-৬৪ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া সফরে যাবার জন্য মনোনীত হন।[৩] সফরের শুরুতেই ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে যথাক্রমে ১ ও ০ রান সংগ্রহ করেন। দু'বারই তিনি গ্রাহাম ম্যাকেঞ্জির শিকারে পরিণত হন।[১০] পরের খেলাতেই পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া সম্মিলিত একাদশের বিপক্ষে অপরাজিত ১২৭ রান তোলেন।[১১]

ব্রিসবেনের গাব্বায় বৃষ্টিবিঘ্নিত টেস্টে তাঁর অভিষেক ঘটে। খেলায় তিনি ২৫ রান সংগ্রহ করে ম্যাকেঞ্জির হাতে আউট হন। এ খেলাতেই অস্ট্রেলীয় বোলার ইয়ান ম্যাকিফের নো-বলের কারণে খেলোয়াড়ী জীবনের সমাপ্তি ঘটে।[১২][১৩] মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত দ্বিতীয় টেস্টে ১৬ ও ২ রান সংগ্রহ করেন। খেলায় তাঁর দল ৮ উইকেটের বিরাট ব্যবধানে পরাজিত হয়।[১৪]

সম্মাননা[সম্পাদনা]

পূর্ণাঙ্গ টেস্ট খেলোয়াড়ী জীবন শেষে ব্যাটিং গড়
অস্ট্রেলিয়া ডোনাল্ড ব্র্যাডম্যান
৯৯.৯৪
দক্ষিণ আফ্রিকা গ্রেইম পোলক
৬০.৯৭
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড জর্জ হ্যাডলি
৬০.৮৩
ইংল্যান্ড হার্বার্ট সাটক্লিফ
৬০.৭৩
ইংল্যান্ড এডি পেন্টার
৫৯.২৩
ইংল্যান্ড কেন ব্যারিংটন
৫৮.৬৭
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড এভারটন উইকস
৫৮.৬১
ইংল্যান্ড ওয়ালি হ্যামন্ড
৫৮.৪৫
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড গারফিল্ড সোবার্স
৫৭.৭৮
ইংল্যান্ড জ্যাক হবস
৫৬.৯৪
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ড ক্লাইড ওয়ালকট
৫৬.৬৮
ইংল্যান্ড লেন হাটন
৫৬.৬৭

উৎস: ক্রিকইনফো
যোগ্যতা: পূর্ণাঙ্গ খেলোয়াড়ী জীবনে কমপক্ষে ২০ ইনিংস।

পোলক অগণিত পুরস্কার ও সম্মাননা লাভ করেছেন। তন্মধ্যে ১৯৯৯ সালে ২০শ শতকের সেরা দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার হিসেবে মনোনীত হন।[১] ১৯৬৬ সালে উইজডেন কর্তৃপক্ষ তাঁকে বর্ষসেরা ক্রিকেটার হিসেবে মনোনীত করে।[৩] ২০০৭ সালে উইজডেন কর্তৃপক্ষ ১৯৬৭ থেকে ১৯৬৯ সালে ক্রিকেটে তাঁর ভূমিকার জন্য বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ক্রিকেটার ঘোষণা করে। ১৯৭৭ ও ১৯৮৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট কর্তৃপক্ষ বিশেষ বার্ষিকীতে তাঁর অবদানের কথা তুলে ধরে। ব্র্যাডম্যান পোলককে স্যার গারফিল্ড সোবার্সের সাথে তুলনা করেন যাকে তাঁর দেখা সেরা বামহাতি ব্যাটসম্যান।[৩] ২০০৯ সালে তাঁকে আইসিসি ক্রিকেট হল অব ফেমে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।[১৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Chesterfield, Trevor (৩ জানুয়ারি ২০০০)। "Pollock named South Africa's Player of the Century"। CricInfo। সংগৃহীত ৪ নভেম্বর ২০০৮ 
  2. Williamson, Martin। "Different era, same brilliance... Pt 2"। CricInfo। সংগৃহীত ৪ নভেম্বর ২০০৮ 
  3. "Player Profile: Graeme Pollock"। CricInfo। সংগৃহীত ৪ নভেম্বর ২০০৮ 
  4. Houwing, Robert। "An artist in the super league of left-handers"। সংগৃহীত ৬ জুন ২০১০ 
  5. "The real deal"। CricInfo। ১৬ জুলাই ২০০৩। সংগৃহীত ৪ নভেম্বর ২০০৮ 
  6. Roebuck, pp. 48–50.
  7. "Andrew Pollock"Player profiles। Cricinfo। সংগৃহীত ৬ নভেম্বর ২০০৮ 
  8. Hayter (1970), pp. 52–65
  9. Test match batting averages (over 20 innings), Cricinfo. Retrieved on 4 November 2008.
  10. "Western Australia v South Africans: South Africa in Australia 1963/64"। CricketArchive। সংগৃহীত ৭ নভেম্বর ২০০৮ 
  11. "Western Australia Combined XI v South Africans: South Africa in Australia 1963/64"। CricketArchive। সংগৃহীত ৭ নভেম্বর ২০০৮ 
  12. "A 'genius' of a batsman, 1988 Graeme Pollock – a retrospective"। John Wisden। ১৯৮৮। সংগৃহীত ৬ নভেম্বর ২০০৮ 
  13. "Australia v South Africa: South Africa in Australia 1963/64 (1st Test)"। CricketArchive। সংগৃহীত ৭ নভেম্বর ২০০৮ 
  14. "Australia v South Africa: South Africa in Australia 1963/64 (2nd Test)"। CricketArchive। সংগৃহীত ৭ নভেম্বর ২০০৮ 
  15. "Graeme Pollock"CricinfoESPN। সংগৃহীত ২৭ অক্টোবর ২০১০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

মুদ্রিত

ওয়েবসাইট

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]