কেভিন কারেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কেভিন কারেন
কেভিন কারেন.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামকেভিন ম্যালকম কারেন
জন্ম(১৯৫৯-০৯-০৭)৭ সেপ্টেম্বর ১৯৫৯
রুসাপে, মনিকাল্যান্ড, রোডেশিয়া ও নিয়াসাল্যান্ড সংঘ
মৃত্যু১০ অক্টোবর ২০১২(2012-10-10) (বয়স ৫৩)
মুতারে, জিম্বাবুয়ে
ডাকনামকেসি
উচ্চতা৬ ফুট ২ ইঞ্চি (১.৮৮ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট মিডিয়াম
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার, কোচ
সম্পর্কপিতা: কেভিন প্যাট্রিক কারেন
কাকাতো ভাই: প্যাট্রিক কারেন
ভ্রাতা: টম কারেন, বেন কারেন ও স্যাম কারেন
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ )
৯ জুন ১৯৮৩ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই৩০ অক্টোবর ১৯৮৭ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৮৫-১৯৯০গ্লুচেস্টারশায়ার
১৯৮৮/৮৯নাটাল
১৯৯১-১৯৯৯নর্দাম্পটনশায়ার
১৯৯৪/৯৫-১৯৯৭/৯৮বোল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১১ ৩২৪ ৪০৭
রানের সংখ্যা ২৮৭ ১৫৭৪০ ৯১৯৪
ব্যাটিং গড় ২৬.০৯ ৩৬.৮৬ ৩০.৩৪
১০০/৫০ ০/২ ২৫/৮৩ ১/৫৩
সর্বোচ্চ রান ৭৩ ১৫৯ ১১৯*
বল করেছে ৫০৬ ৩১৯৯৪ ১৪৩৪৯
উইকেট ৬০৫ ৩৬৪
বোলিং গড় ৪৪.২২ ২৭.৬৫ ২৯.২৫
ইনিংসে ৫ উইকেট ১৫
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৩/৬৫ ৭/৪৭ ৫/১৫
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/- ২০৯/- ১০৫/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১১ অক্টোবর, ২০১২

কেলভিন ম্যালকম কারেন (ইংরেজি: Kevin Curran; জন্ম: ৭ সেপ্টেম্বর, ১৯৫৯ - মৃত্যু: ১০ অক্টোবর, ২০১২) মনিকাল্যান্ডের রুসাপে এলাকায় জন্মগ্রহণকারী জিম্বাবুয়ের প্রথিতযশা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন।[১][২][৩] ১৯৮৩১৯৮৭ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেটে তিনি অংশগ্রহণ করেছিলেন। আগস্ট ২০০৫ থেকে সেপ্টেম্বর ২০০৭ মেয়াদকাল পর্যন্ত জিম্বাবুয়ের কোচের দায়িত্ব পালন করেন। মৃত্যুকালীন সময়ের পূর্ব-পর্যন্ত তিনি জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট একাডেমির প্রধান ছিলেন ‘কেসি’ ডাকনামে পরিচিত কেভিন কারেন

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

রোডেশিয়া এবং নিয়াজাল্যান্ডের রুসাপে এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ক্রিকেট খেলায় তার ভূমিকা ছিল একজন প্রকৃতমানের অল-রাউন্ডার হিসেবে। ডানহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট বোলিং করতেন। পাশাপাশি ডানহাতে মাঝারিস্তরের ব্যাটসম্যান হিসেবে ব্যাটিং করতেন। ১৯৮০-এর দশকে ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে গ্লুচেস্টারশায়ারনর্দাম্পটনশায়ারের পক্ষ নিয়ে নিয়মিতভাবে খেলেছেন। সেখানে তিনি বেশ সফলকাম ছিলেন। পাঁচ মৌসুমে তিনি একহাজার রানেরও বেশি রান অতিক্রম করেছেন। এছাড়াও, দক্ষিণ আফ্রিকার বোল্যান্ড এবং নাটাল দলের পক্ষে খেলেছিলেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে এগারোটি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন কেভিন কারেন। অংশগ্রহণকৃত সবগুলো ওডিআই ক্রিকেট বিশ্বকাপে খেলেছিলেন। ঐ সময়ে জিম্বাবুয়ে দলের টেস্ট খেলার মর্যাদাপ্রাপ্তি ঘটেনি। ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ১৯৮৩ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের তৃতীয় আসরে জিম্বাবুয়ে দলের সদস্যরূপে অংশ নেন। ৯ জুন, ১৯৮৩ তারিখে নটিংহামে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওডিআইয়ে প্রথমবারের মতো খেলতে নামেন। আলী শাহ, গ্র্যান্ট প্যাটারসন, অ্যান্ডি পাইক্রফট, ডেভিড হটন, ডানকান ফ্লেচার, জ্যাক হেরন, ইয়ান বুচার্ট, পিটার রসন, জন ট্রাইকোসভিন্স হগের সাথে একযোগে ওডিআই অভিষেক ঘটে তার।[৪] ৩০ অক্টোবর, ১৯৮৭ তারিখে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সর্বশেষ ওডিআইয়ে অংশ নেন তিনি।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

রোডেশিয়ার পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণকারী কেভিন প্যাট্রিক কারেন তার পিতা ছিলেন। কাকাতো ভাই প্যাট্রিক কারেন রোডেশিয়ার পক্ষে খেলেছেন। ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহিত ছিলেন তিনি। দুই পুত্র টম কারেনস্যাম কারেন পারিবারিক সূত্র ব্রিটিশ নাগরিকত্ব লাভ করায় ইংল্যান্ডের পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করছেন। অপর পুত্র বেন কারেন ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে নর্দাম্পটনশায়ারের পক্ষে খেলছেন।

১০ অক্টোবর, ২০১২ সালে কেভিন কারেন মুতারে এলাকায় নিয়মিত জগিং করা অবস্থায় মাটিতে পড়ে যান। সেখানেই তিনি অল্প সময় পরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Players / Zimbabwe / ODI caps"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৯ 
  2. "Zimbabwe ODI Batting Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৯ 
  3. "Zimbabwe ODI Bowling Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুলাই ২০১৯ 
  4. "prudential world cup, 1983: Scorecard of third ODI, Australia vs Zimababwe"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৪, ২০১৯ 
  5. "Ex-Zimbabwe cricketer Kevin Curran dies"। supersport.com। ১০ অক্টোবর ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-০১-১৭ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]