পঙ্কজ রায়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
পঙ্কজ রায়
Pankaj Roy.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
জন্ম (১৯২৮-০৫-৩১)৩১ মে ১৯২৮
ঢাকা, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত (বর্তমানে বাংলাদেশ)
মৃত্যু ৪ ফেব্রুয়ারি ২০০১(২০০১-০২-০৪) (৭২ বছর)
ব্যাটিংয়ের ধরন ডানহাতি
বোলিংয়ের ধরন ডানহাতি মিডিয়াম
সম্পর্ক ভাই: নিমাইলাল রায়
পুত্র: প্রণব রায়
ভাইপো: আম্বর রায়
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৪৩ ১৮৫
রানের সংখ্যা ২৪৪২ ১১৮৬৮
ব্যাটিং গড় ৩২.৫৬ ৪২.৩৮
১০০/৫০ ৫/৯ ৩৩/৫০
সর্বোচ্চ রান ১৭৩ ২০২*
বল করেছে ১০৪ ১১৪৬
উইকেট ২১
বোলিং গড় ৬৬.০০ ৩০.৮৫
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ১/৬ ৫/৫৩
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৬/- ৭৪/-
উৎস: ক্রিকইনফো, ৮ আগস্ট ২০১৭

পঙ্কজ রায় (এই শব্দ সম্পর্কে উচ্চারণ ; জন্ম: ৩১ মে, ১৯২৮ - মৃত্যু: ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০০১) ঢাকায় জন্মগ্রহণকারী তৎকালীন বেঙ্গল প্রেসিডেন্সির প্রথিতযশা ভারতীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। ভারত ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ঘরোয়া ক্রিকেটে বাংলা দলের প্রতিনিধিত্ব করেন তিনি। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিত ছিলেন। ডানহাতি মিডিয়াম বোলার হিসেবেও সুনাম ছিল তাঁর।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

বাংলা ক্রিকেট দলের পক্ষে ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন তিনি। ১৯৪৬-৪৭ মৌসুমে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তাঁর। উদ্বোধনী খেলাতেই তিনি সেঞ্চুরি করার কৃতিত্ব দেখান। প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে সর্বমোট তিনি ৩৩টি শতকের সন্ধান পেয়েছেন। ৪২.৩৮ গড়ে ১১,৮৬৮ রান তুলেছেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৫১ সালে ভারত দলের সদস্যরূপে দিল্লিতে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে অভিষেক ঘটে তাঁর। অভিষেক ইনিংসটিতে মাত্র ১২ রান তুললেও ঐ সিরিজে তিনি দুইটি সেঞ্চুরি করেছিলেন। পরবর্তী গ্রীষ্মে ইংল্যান্ড সফরে যান। কিন্তু ঐ সফরে তাঁর ব্যাটিং নৈপুণ্য আহামরি কিছু ছিল না। ৭ ইনিংসের পাঁচটিতেই শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে আসেন। তন্মধ্যে, ফ্রাঙ্ক টাইসনের প্রথম-শ্রেণীর অভিষেক উইকেট হিসেবে নিজেকে যুক্ত করেন।[১] এছাড়াও, ওল্ড ট্রাফোর্ডে জোড়া শূন্য পান। তবে ভারতের পক্ষে পাঁচটি টেস্ট সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন। ১৭৩ তাঁর ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রান। ১৯৫৯ সালে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের অধিনায়কত্ব করার সুযোগ পান। কিন্তু ঐ টেস্টটিতে তাঁর দল পরাজিত হয়েছিল।

অজর্নসমূহ[সম্পাদনা]

চেন্নাইয়ে সফরকারী নিউজিল্যান্ড দলের বিপক্ষে বিনু মানকড়ের সাথে ৪১৩ রানের জুটি করে বিশ্বরেকর্ড গড়ে ব্যাপক পরিচিতি পান।[২] ১১ জানুয়ারি, ১৯৫৬ তারিখে তাঁদের সংগৃহীত এ রান ৫২ বছর টিকেছিল। তাঁদের মধ্যকার এ রেকর্ডটি পরবর্তীতে ২০০৭-০৮ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকার উদ্বোধনী জুটিতে গ্রেইম স্মিথ (২৩২) ও নিল ম্যাকেঞ্জি (২২৬) ৪১৫ রান তুলে নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়েন।[৩]

তিনি ১৯৭৫ সালে পদ্মশ্রী পদকে ভূষিত হন।[৪] তাঁর ভাতিজা অম্বর রায় ও পুত্র প্রণব রায়ও ভারতের পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

পূর্বসূরী
দত্ত গায়কোয়াড়
ভারত জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক
১৯৫৯(১ টেস্ট)
উত্তরসূরী
দত্ত গায়কোয়াড়