বরুড়া উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
বরুড়া
উপজেলা
বরুড়া বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
বরুড়া
বরুড়া
বাংলাদেশে বরুড়া উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°২২′৪৬″ উত্তর ৯১°৩′৪৩″ পূর্ব / ২৩.৩৭৯৪৪° উত্তর ৯১.০৬১৯৪° পূর্ব / 23.37944; 91.06194স্থানাঙ্ক: ২৩°২২′৪৬″ উত্তর ৯১°৩′৪৩″ পূর্ব / ২৩.৩৭৯৪৪° উত্তর ৯১.০৬১৯৪° পূর্ব / 23.37944; 91.06194 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাকুমিল্লা জেলা
আয়তন
 • মোট২৪২ কিমি (৯৩ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)[১]
 • মোট৪,০৫,৬১১
 • ঘনত্ব১৭০০/কিমি (৪৩০০/বর্গমাইল)
স্বাক্ষরতার হার
 • মোট৫৬%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৩৫৬০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট Edit this at Wikidata

বরুড়া উপজেলা বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা

অবস্থান[সম্পাদনা]

বরুড়া উপজেলা জেলা সদর থেকে ২৬ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এ উপজেলার উত্তরে বুড়িচং উপজেলা, দক্ষিণে লাকসাম, পূর্বে কুমিল্লা সদর এবং পশ্চিমে চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলা।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

বৌদ্ধদের ধর্মীয় খেতাব বড়ুয়া। এছাড়াও এ অঞ্চলে অধিকাংশ স্থানে পান চাষ করা হত যা এখনও বিদ্যমান। যারা পান চাষ করে তাদেরকে বারই বলে এবং চাষকৃত জমিকে (বরজ) আঞ্চলিক ভাষায় বর বলা হয়। ফলে ধর্মীয় প্রভাব এবং সংস্কৃতিক ঐতিহ্য এ দুটি বিষয়কে সমন্বয় করে বরুড়া উপজেলার নামকরণ করা হয়েছে। বরুড়া ১৯৪৮ সালের ২৪ মার্চ থানা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯৮৩ সালের ২৪ মার্চ এটি উপজেলায় উন্নিত হয়।

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

বরুড়া উপজেলায় ১টি পৌরসভা ও ১৫টি ইউনিয়ন বিদ্যমান।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

আয়তন ২৪২ বর্গ কিলোমিটার
জনসংখ্যা ৪,০৫,৬১১ জন
জনসংখ্যার ঘনত্ব ১,৪৩৫ জন
পৌরসভা ১ টি
ইউনিয়ন ১৬ টি
গ্রাম ৩৩৫ টি

শিক্ষা[সম্পাদনা]

শিক্ষা সংক্রান্ত তথ্যাবলী

- বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ০১ টি - ডিগ্রি কলেজ ০৩টি (১টি সরকারি) - উচ্চ মাধ্যমিক কলেজ ০৩টি (১টি মহিলা) - মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৪২ টি (১টি সরকারি বালিকা) - কারিগরি কলেজ ০১ টি - নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ০৩ টি - সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ১৪৯ টি - এনজিও পরিচালিত প্রাঃ বিদ্যালয় ৮৪ টি - বেসরকারি মাদ্রাসা ৩০ টি (কামিল-০১টি)। দাখিল-১৮টি। আলিম-০৪টি। ফাজিল -০৭টি। এবতেদায়ী মাদ্রাসা-১০টি। কওমী মাদ্রাসা-৬০টি। মক্তব-৪০০টি

- শিক্ষার হার ৫৬% পুরুষ- ৬৩% মহিলা- ৪৯%

স্বাস্থ্য[সম্পাদনা]

স্বাস্থ্য বিভাগ হাসপাতালের সংখ্যা ৭ টি।( বেড-১০১ টি) সরকারী ০১ টি। ( বেড- ৩১ টি) বেসরকারী ০৬ টি। ( বেড- ৭০ টি) ক্লিনিক ০৬ টি( বেসরকারী)। . ডাক্তারের সংখ্যা . এম,বি,বি এস - সাব সেণ্টারসহ ১৫ জন । রেজিষ্টার্ড গ্রাম্য ডাক্তার- ৫ জন। গ্রাম ডাক্তার- ২৬৭ জন। হোমিও প্যাথিক ডাক্তার- ৭৮ জন। কবিরাজ- ৪৫ জন। অন্যান্য( ডিপ্লোমা)- ৮ জন। . স্বাস্থ্য কেন্দ্র . উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্র- ১ টি। উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্র- ৫ টি। পরিবার কল্যান কেন্দ্র- ১৫ টি। কমিউনিটি ক্লিনিক- ১৯ টি।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

কুমিল্লা জেলার মধ্যে স্বাভাবিকভাবেই বরুড়া উপজেলায় হরেক রকমের ব্যবসা বাণিজ্য হয়ে থাকে। উপজেলায় বিশ্বের খেতনামা শিল্পপতিদের জন্মস্হান হওয়াই এখানে শিল্পের প্রভাব রয়েছে।এ উপজেলা সদর সহ বিভিন্ন বাজারে বর্তমানে অনেক বৃহৎ শপিং সেন্টার গড়ে উঠেছে, এ সকল শপিং সেন্টারের মাধ্যমে প্রতিনিয়ত এলাকার মানুষের ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারিত হচ্ছে। এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারের মাধ্যমে জনসাধারণের ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারিত হচ্ছে। নিম্নে বরুড়া উপজেলার উল্লেখযোগ্য হাট-বাজার এর নাম দেয়া হলঃ

উল্লেখযোগ্য হাট-বাজার

সরাফতি পদয়ার বাজার বাতাইছড়ি বাজার রামমোহন বাজার খোশবাস বাজার হরিপুর বাজার মহেশপুর বাজার ঝলম বাজার শশইয়া বাজার লগ্নসার বাজার আমড়াতলী বাজার শিলমুড়ী বাজার ভাউকসার বাজার অশ্বদিয়া বাজার শাকপুর নতুন বাজার শাকপুর পুরাতন বাজার ধনিশ্বর বাজার চিলোনিয়া বাজার আড্ডা বাজার পেরপেটি বাজার সোনাইমুড়ী বাজার একবাড়ীয়া বাজার পয়ালগাছা বাজার কাজীর বাজার লক্ষীপুর বাজার সুলতানপুর বাজার

যোগাযোগ[সম্পাদনা]

  • কুমিল্লা শহরের জাঙ্গালিয়া হতে বরুড়া গামী বলাকা বাস প্রতি ৮ মিনিট পর পর বরুড়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়। সকাল ৭ টা হতে সন্ধ্যা ৮ টা অবধি বাস পাওয়া যায়।
  • কুমিল্লা পদুয়ার বাজার বিশ্বরোডের লাকসাম রোড থেকে সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও বাস পাওয়া যায় বরুড়ার উদ্দেশ্যে।

যাতায়াত ভাড়া- ২০১৮ সাল।

- জাঙ্গালিয়া হতে বলাকা বাস ৩০ টাকা। - বিশ্বরোড হতে বলাকা বাস ৩০ টাকা। - বিশ্বরোড হতে সিএনজি অটোরিকশা - ৪০ টাকা।

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

  • নবাব ফয়জুন্নেসা জমিদার বাড়ি - গালিমপুর ইউনিয়নের ভাউকসার;
  • ভাউকসার কেন্দ্রীয় মসজিদ - গালিমপুর ইউনিয়নের ভাউকসার;
  • আনন্দ বৌদ্ধ বিহার - লগ্নসার;
  • রোহিতগিরি তপোবন বৌদ্ধ বিহার - লগ্নসার।
  • কৃষ্ণসাগর দিঘি - বরুড়া আলিয়া মাদ্রাসা
  • উপজেলা পরিষদ - বরুড়া উপজেলা।
  • মুক্তিযুদ্ধা স্মৃতিসৌধ - বটতলী

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • মরহুম আব্দুল হাকিম এম পি, মরহুম এ কে এম আবু তাহের এম পি, নাছিমুল আলম নজরুল এম পি, অধ্যাপক নুরুল ইসলাম এম পি, এডমিরাল আবু তাহের সাবেক নৌবাহিনী প্রধান,বর্তামন কুমিল্লা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, মোঃ এ এইচ শাহারীয়ার শাহিন বহুমুখি প্রতিভার অধিকারী মরহুম এ কে এম আবু তাহের এম পি, জাকারীয়া তাহের সুমন বিশিষ্ট শিল্পপতি এম পি,অাবু সুফিয়ান রাসেল (সাংবাদিক)। মুফতি অালী অাকবর ফারুকী, অধ্যক্ষ, বরুড়া কামিল মাদরাসা। বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও দানবীর হাজী মোঃ শামসুল হক ভূঁঞা, শশইয়া, বরুড়া।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন, ২০১৪)। "এক নজরে বরুড়া"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুন, ২০১৫  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ=, |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বিবিধঃ বিদ্যুতায়িত গ্রামের সংখ্যা ২৬৩ টি, ৭২৫ কিঃমিঃ । সাব-রেজিষ্ট্রি অফিস ০২ টি। ডাক বাংলো ০১ টি। টেলিফোন অফিস ০২ টি। টেলিগ্রাফ অফিস ০১ টি। পোষ্ট অফিসের সংখ্যা ৩২ টি। প্রত্নতাত্তিক নিদর্শণ ০১ টি( জামে মসজিদ)। ক্ষুদ্র কুটির শিল্পের সংখ্যা ৭৭৫ টি। ক্ষুদ্র শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ১৫৫ টি। কুটির শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৭২০ টি। বিদ্যুতায়িত শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ১৪৫ টি। বিদ্যুৎ বিহীন শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ১০ টি। করাত কল ৭৩ টি। চাউল ও আটা কল ১২৬ টি। আইসক্রীম ফ্যাক্টরী ০৭ টি। প্রিন্টিং প্রেস ০৪ টি।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]