রোয়াংছড়ি উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রোয়াংছড়ি
উপজেলা
রোয়াংছড়ি বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
রোয়াংছড়ি
রোয়াংছড়ি
বাংলাদেশে রোয়াংছড়ি উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২২°৯′৫৩″ উত্তর ৯২°২০′৬″ পূর্ব / ২২.১৬৪৭২° উত্তর ৯২.৩৩৫০০° পূর্ব / 22.16472; 92.33500স্থানাঙ্ক: ২২°৯′৫৩″ উত্তর ৯২°২০′৬″ পূর্ব / ২২.১৬৪৭২° উত্তর ৯২.৩৩৫০০° পূর্ব / 22.16472; 92.33500 উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাবান্দরবান জেলা
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৭৬
সংসদীয় আসন৩০০ পার্বত্য বান্দরবান
সরকার
 • সংসদ সদস্যবীর বাহাদুর উশৈ সিং (বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ)
আয়তন
 • মোট৪৪২.৮৯ কিমি (১৭১.০০ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট২৭,২৬৪
 • জনঘনত্ব৬২/কিমি (১৬০/বর্গমাইল)
সাক্ষরতার হার
 • মোট৩১%
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)
পোস্ট কোড৪৬১০ উইকিউপাত্তে এটি সম্পাদনা করুন
প্রশাসনিক
বিভাগের কোড
২০ ০৩ ৮৯
ওয়েবসাইটপ্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট Edit this at Wikidata

রোয়াংছড়ি বাংলাদেশের বান্দরবান জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা

আয়তন[সম্পাদনা]

রোয়াংছড়ি উপজেলার আয়তন ৪৪২.৮৯ বর্গ কিলোমিটার (১,০৯,৪৪০ একর)। এটি আয়তনের দিক থেকে বান্দরবান জেলার সবচেয়ে ছোট উপজেলা।[১][২]

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

বান্দরবান জেলার সর্ব-উত্তরে ২২°০৩´ থেকে ২২°২০´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯২°১৪´ থেকে ৯২°৩০´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ জুড়ে রোয়াংছড়ি উপজেলার অবস্থান।[২] বান্দরবান জেলা সদর থেকে এ উপজেলার দূরত্ব প্রায় ২০ কিলোমিটার।[৩] এ উপজেলার দক্ষিণে রুমা উপজেলা, পশ্চিমে বান্দরবান সদর উপজেলা, উত্তরে রাঙ্গামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলা এবং পূর্বে রাঙ্গামাটি জেলার বিলাইছড়ি উপজেলা অবস্থিত।

নামকরণ[সম্পাদনা]

রখইং ছড়া যেখানে তারাছা খালে এসে মিশেছে, স্মরণাতীতকাল পূর্বে সেই রখইং ছড়ার মোহনায় মার্মা উপজাতিদের এক জনপদ গড়ে উঠে। রখইং ছড়ার তীরে এই জনপদ গড়ে উঠায় মারমা উপজাতিদের চিরাচরিত রীতি অনুযায়ী স্থানীয় অধিবাসীরা এই জনপদকে ছড়ার নামে রখইং ওয়াহ্ নামে অভিহিত করে। রখইং ওয়াহ্ অর্থ রখইং ছড়ার মোহনা। কালক্রমে ব্যবসা-বাণিজ্যের সূত্র ধরে এখানে পার্শ্ববর্তী চট্টগ্রাম জেলা হতে বাঙালীদের আগমণ ঘটে। ছোট্ট পরিসরে এখানে বাজার গড়ে উঠে। চট্টগ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় আরাকানকে রোয়াং বলা হয়। তাই রখইং ওয়াহ্কে স্থানীয় বাঙালীরা রোয়াংছড়ি নামে অভিহিত করায় তা কালক্রমে প্রচলিত হয়ে উঠে।[৪]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

১৯৭৬ সালে রোয়াংছড়ি থানা প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯৮৩ সালে প্রশাসনিক বিকেন্দ্রীকরণের ফলে রোয়াংছড়ি উপজেলায় রূপান্তরিত হয়।[৩] এ উপজেলায় বর্তমানে ৪টি ইউনিয়ন রয়েছে। সম্পূর্ণ রোয়াংছড়ি উপজেলার প্রশাসনিক কার্যক্রম রোয়াংছড়ি থানার আওতাধীন।

ইউনিয়নসমূহ:[৩]

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী রোয়াংছড়ি উপজেলার মোট জনসংখ্যা ২৭,২৬৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ১৪,২৪৩ জন এবং মহিলা ১৩,০২১ জন। মোট পরিবার ৬,২৯২টি।[১] মোট জনসংখ্যার ৮.৫১% মুসলিম, ০.৯৭% হিন্দু, ৬৮.৯০% বৌদ্ধ, ১৬.৬৪% খ্রিস্টান এবং ৪.৯৮% অন্যান্য ধর্মাবলম্বী।[২] এ উপজেলায় মার্মা, চাকমা, ত্রিপুরা, তঞ্চঙ্গ্যা, মুরং, বম, খেয়াং, খুমী প্রভৃতি উপজাতি নৃ-গোষ্ঠীর বসবাস রয়েছে।[৩]

শিক্ষা ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

২০১১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী রোয়াংছড়ি উপজেলার সাক্ষরতার হার ৩১%।[১] এ উপজেলায় ১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৪টি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৪৪টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে।[৩]

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

রোয়াংছড়ি উপজেলায় যোগাযোগের প্রধান সড়ক হল বান্দরবান-রোয়াংছড়ি সড়ক। প্রধান যোগাযোগ মাধ্যম চাঁদের গাড়ি।

ধর্মীয় উপাসনালয়[সম্পাদনা]

রোয়াংছড়ি উপজেলায় ৪টি মসজিদ, ২টি মন্দির, ২৪টি বিহার এবং ৮টি গীর্জা রয়েছে।[৩]

নদ-নদী[সম্পাদনা]

রোয়াংছড়ি উপজেলার মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে সাঙ্গু নদী। এছাড়া রয়েছে তারাছা খাল।[৩]

হাট-বাজার[সম্পাদনা]

রোয়াংছড়ি উপজেলার প্রধান হাট-বাজার ৫টি, রোয়াংছড়ি বাজার, কচ্ছপতলী বাজার, বাঘমারা বাজার, বেতছড়া বাজার এবং মুরুংগো বাজার।[৫]

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

রোয়াংছড়ি উপজেলার দর্শনীয় স্থানগুলোর মধ্যে রয়েছে:[৬]

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

সংসদীয় আসন
সংসদীয় আসন জাতীয় নির্বাচনী এলাকা[৭] সংসদ সদস্য[৮][৯][১০][১১][১২] রাজনৈতিক দল
৩০০ পার্বত্য বান্দরবান বান্দরবান জেলা বীর বাহাদুর উশৈ সিং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসন
ক্রম নং পদবী নাম
০১ উপজেলা চেয়ারম্যান[১৩] ক্যবামং মার্মা
০২ ভাইস চেয়ারম্যান[১৪] ক্যসাইনু মার্মা
০৩ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান[১৫] মাউসাং মার্মা
০৪ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা[১৬] মোহাম্মদ দিদারুল আলম

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ইউনিয়ন পরিসংখ্যান সংক্রান্ত জাতীয় তথ্য" (PDF)web.archive.org। Wayback Machine। সংগ্রহের তারিখ ২৪ নভেম্বর ২০১৯ 
  2. "রোয়াংছড়ি উপজেলা - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org 
  3. "এক নজরে রোয়াংছড়ি - রোয়াংছড়ি উপজেলা - রোয়াংছড়ি উপজেলা"rowangchhari.bandarban.gov.bd 
  4. "রোয়াংছড়ি উপজেলার পটভূমি - রোয়াংছড়ি উপজেলা - রোয়াংছড়ি উপজেলা"rowangchhari.bandarban.gov.bd 
  5. "হাট বাজার - রোয়াংছড়ি উপজেলা - রোয়াংছড়ি উপজেলা"rowangchhari.bandarban.gov.bd 
  6. "দর্শনীয় স্থান - রোয়াংছড়ি উপজেলা - রোয়াংছড়ি উপজেলা"rowangchhari.bandarban.gov.bd 
  7. "Election Commission Bangladesh - Home page"www.ecs.org.bd 
  8. "বাংলাদেশ গেজেট, অতিরিক্ত, জানুয়ারি ১, ২০১৯" (PDF)ecs.gov.bdবাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। ১ জানুয়ারি ২০১৯। ২ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  9. "সংসদ নির্বাচন ২০১৮ ফলাফল"বিবিসি বাংলা। ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  10. "একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফলাফল"প্রথম আলো। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  11. "জয় পেলেন যারা"দৈনিক আমাদের সময়। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  12. "আওয়ামী লীগের হ্যাটট্রিক জয়"সমকাল। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  13. "শ্রী ক্যবামং মারমা - রোয়াংছড়ি উপজেলা - রোয়াংছড়ি উপজেলা"rowangchhari.bandarban.gov.bd 
  14. "ক্যসাইনু মারমা - রোয়াংছড়ি উপজেলা - রোয়াংছড়ি উপজেলা"rowangchhari.bandarban.gov.bd 
  15. "মাউসাং মারমা - রোয়াংছড়ি উপজেলা - রোয়াংছড়ি উপজেলা"rowangchhari.bandarban.gov.bd 
  16. "জনাব মোঃ দিদারুল আলম - রোয়াংছড়ি উপজেলা - রোয়াংছড়ি উপজেলা"rowangchhari.bandarban.gov.bd 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]