লালমাই উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লালমাই
উপজেলা
Lalmai, comilla (2).jpg
দেশ বাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাকুমিল্লা জেলা
আয়তন
 • মোট১৪৭.০৩ কিমি (৫৬.৭৭ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা
 • মোট২,২০,০৩২
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)

লালমাই উপজেলা বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগের কুমিল্লা জেলার একটি প্রশাসনিক এলাকা।[১][২][৩][৪]

নামকরণ[সম্পাদনা]

লালমাই পাহাড়

কুমিল্লা জেলার লালমাই পাহাড়ের নামে এ উপজেলার নামকরণ করা হয়েছে।[২]

অবস্থান ও সীমানা[সম্পাদনা]

কুমিল্লা জেলার দক্ষিণ-মধ্যাংশে লালমাই উপজেলার অবস্থান। এ উপজেলার উত্তরে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা, পূর্বে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা, দক্ষিণে নাঙ্গলকোট উপজেলালাকসাম উপজেলা এবং পশ্চিমে বরুড়া উপজেলা অবস্থিত।

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

লালমাই উপজেলায় বর্তমানে ৯টি ইউনিয়ন রয়েছে। সম্পূর্ণ উপজেলার প্রশাসনিক কার্যক্রম লালমাই থানার আওতাধীন।

ইউনিয়নসমূহ:

অবস্থান ও আয়তন[সম্পাদনা]

এ উপজেলার আয়তন ১৪৭ দশমিক শূন্য ৩ বর্গকিলোমিটার।[১][৩][৪]

জনসংখ্যা উপাত্ত[সম্পাদনা]

এ উপজেলার জনসংখ্যা ২ লাখ ২০ হাজার ৩২ জন।[১][৩][৪]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

২০১৭ সালের ০৯ জানুয়ারি সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাসসংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির (নিকার) বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন (বাগমারা উত্তর, বাগমারা দক্ষিণ, ভুলইন উত্তর, ভুলইন দক্ষিণ, পেরুল উত্তর, পেরুল দক্ষিণ, বেলঘর উত্তর এবং বেলঘর দক্ষিণ) ও লাকসাম উপজেলার একটিসহ (বাকই উত্তর) মোট ০৯টি ইউনিয়ন নিয়ে এ উপজেলা গঠনের সিদ্ধান্ত হয়। এটি প্রতিষ্ঠার দিক থেকে কুমিল্লার ১৭তম এবং বাংলাদেশের ৪৯১তম উপজেলা।[১][৩][৪]

জনপ্রতিনিধি[সম্পাদনা]

সংসদীয় আসন জাতীয় নির্বাচনী এলাকা[৫] সংসদ সদস্য[৬][৭][৮][৯][১০] রাজনৈতিক দল
২৫৮ কুমিল্লা-১০ নাঙ্গলকোট উপজেলা, লালমাই উপজেলা এবং কুমিল্লা সদর দক্ষিণ উপজেলা আ হ ম মোস্তফা কামাল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. জিয়ানগর উপজেলার নাম বদলে ইন্দুরকানি - দৈনিক প্রথম আলো (১০ জানুয়ারি, ২০১৭)
  2. কুমিল্লায় নতুন উপজেলা গঠন, মিষ্টিমুখ - দৈনিক প্রথম আলো (১০ জানুয়ারি, ২০১৭)
  3. দেশের ৪৯১তম উপজেলা ‘লালমাই’ - দৈনিক ইত্তেফাক (১১ জানুয়ারি, ২০১৭)
  4. 'লালমাই' উপজেলা ঘোষণায় আনন্দের বন্যা - দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন (১০ জানুয়ারি, ২০১৭)
  5. "Election Commission Bangladesh - Home page"www.ecs.org.bd 
  6. "বাংলাদেশ গেজেট, অতিরিক্ত, জানুয়ারি ১, ২০১৯" (PDF)ecs.gov.bdবাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। ১ জানুয়ারি ২০১৯। ২ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  7. "সংসদ নির্বাচন ২০১৮ ফলাফল"বিবিসি বাংলা। ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  8. "একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ফলাফল"প্রথম আলো। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  9. "জয় পেলেন যারা"দৈনিক আমাদের সময়। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  10. "আওয়ামী লীগের হ্যাটট্রিক জয়"সমকাল। সংগ্রহের তারিখ ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]