কুমিল্লা পৌরসভা

স্থানাঙ্ক: ২৩°২৭′ উত্তর ৯১°১২′ পূর্ব / ২৩.৪৫০° উত্তর ৯১.২০০° পূর্ব / 23.450; 91.200
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কুমিল্লা
বিলুপ্ত পৌরসভা
কুমিল্লা আদর্শ পৌরসভা
কুমিল্লা বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
কুমিল্লা
কুমিল্লা
বাংলাদেশে কুমিল্লা পৌরসভার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°২৭′ উত্তর ৯১°১২′ পূর্ব / ২৩.৪৫০° উত্তর ৯১.২০০° পূর্ব / 23.450; 91.200
দেশবাংলাদেশ
বিভাগচট্টগ্রাম বিভাগ
জেলাকুমিল্লা জেলা
উপজেলাকুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা
সময় অঞ্চলবিএসটি (ইউটিসি+৬)

কুমিল্লা পৌরসভা বা কুমিল্লা আদর্শ পৌরসভা বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলার অন্তর্গত একটি সাবেক পৌরসভা

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৭৯০ সালে তৎকালীন ত্রিপুরা জেলা প্রশাসন গঠনের মধ্য দিয়ে আজকের কুমিল্লা পৌর প্রশাসনের ইতিহাস শুরু হয়েছিল। ১৯৪৭ সালের দেশ বিভাগের সময়ে মূল ত্রিপুরা জেলা ভারতের নব গঠিত ত্রিপুরা রাজ্যে অন্তর্ভুক্ত হয় এবং তৎকালীন পাকিস্তানের অন্তর্ভুক্ত কুমিল্লা অংশে নতুন কুমিল্লা জেলা প্রশাসন প্রতিষ্ঠিত হয়। অধুনা ব্রাহ্মণবাড়িয়াচাঁদপুর জেলা তখন কুমিল্লা জেলার অন্তর্ভুক্ত দুটি উপ প্রশাসনের আওতাধীন ছিল।

১৮৯০ দশকে মাঝামাঝি সময়ে প্রতিষ্ঠিত কুমিল্লা পৌরসভা ছিল কুমিল্লা পৌর শহরের প্রথম প্রশাসনিক প্রতিষ্ঠান। এটির নির্বাহী প্রধান নাগরিকদের সরাসরি ভোটে নির্বাচিত হতেন।

সিটি কর্পোরেশন আত্মপ্রকাশের আগে কুমিল্লা পৌর শহর প্রায় ১২৫ বছরের অধিক সময় যাবত পৌরসভার দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়ে আসছিল। এই সময়ে কুমিল্লার রাজনৈতিক ও ব্যবসায়িক গুরুত্ব এবং জনসংখ্যা উভয়ই বৃদ্ধি পেয়েছে। এই অবস্থায় ২০ আগস্ট, ২০০৯ তারিখে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কাছে কুমিল্লা পৌরসভা ও কুমিল্লা সদর দক্ষিণ পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশনে রূপান্তরের জন্য কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে একটি আবেদন পাঠানো হয়।[১]

কুমিল্লা পৌরসভা ১৮টি ওয়ার্ডে বিভক্ত ছিল।[২][৩] ২০১১ সালের ১২ থেকে ১৮ জানুয়ারির মধ্যে কুমিল্লা সহ মোট ২৬২টি পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠা প্রক্রিয়াধীন থাকায় নির্বাচন স্থগিত করা হয়।[৪]

কুমিল্লা জেলা প্রশাসনের আবেদনের ভিত্তিতে ৪ মার্চ, ২০১১ তারিখে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের এক অভ্যন্তরীণ বৈঠকে বিদ্যমান পৌরসভা প্রশাসনগুলোর মাঝে গুরুত্বপূর্ণ চারটিকে সিটি কর্পোরেশনে উত্তীর্ণ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।[৫]

২৩ জুন, ২০১১ তারিখে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের এক আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মধ্য দিয়ে কুমিল্লা পৌরসভা ও কুমিল্লা সদর দক্ষিণ পৌরসভার অস্তিত্ব বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। এই সিদ্ধান্তটি ছিল কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন গঠনের উদ্দেশ্যে চূড়ান্ত সরকারি পদক্ষেপ।[৬]

পরে ১০ জুলাই, ২০১১ তারিখে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে থেকে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন গঠন ও এর কার্যক্রম আরম্ভের ঘোষণা দেয়া হয়।[১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Comilla Now A City Corporation" [কুমিল্লা এখন সিটি কর্পোরেশন]। বাংলাদেশ ফার্স্ট ডট কম। ১১ জুলাই ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০২০ 
  2. "কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলা - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। বাংলাপিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০২০ 
  3. "ইউনিয়ন পরিসংখ্যান সংক্রান্ত জাতীয় তথ্য" (PDF)web.archive.org। Wayback Machine। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০২০ 
  4. "১১ পৌরসভায় নির্বাচন স্থগিত, নতুন সংযোজন ৪টি"banglanews24.com। বাংলা নিউজ ২৪। ৭ ডিসেম্বর ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০২০ 
  5. "Four new city corporation to be set up"। দ্য ডেইলি স্টার। ৪ মার্চ ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০২০ 
  6. "কুমিল্লা সিটি করপোরেশন ঘোষণা: শহরে আনন্দ-উল্লাস"। শীর্ষ নিউজ। ১১ জুলাই ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৯ ডিসেম্বর ২০২০ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]