রায়পুর উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
রায়পুর
উপজেলা
রায়পুর বাংলাদেশ-এ অবস্থিত
রায়পুর
রায়পুর
বাংলাদেশে রায়পুর উপজেলার অবস্থান
স্থানাঙ্ক: ২৩°০২′০০″উত্তর ৯০°৪৬′৩০″পূর্ব / ২৩.০৩৩৩° উত্তর ৯০.৭৭৫০° পূর্ব / 23.0333; 90.7750স্থানাঙ্ক: ২৩°০২′০০″উত্তর ৯০°৪৬′৩০″পূর্ব / ২৩.০৩৩৩° উত্তর ৯০.৭৭৫০° পূর্ব / 23.0333; 90.7750
দেশ  বাংলাদেশ
বিভাগ চট্টগ্রাম বিভাগ
জেলা লক্ষ্মীপুর জেলা
আয়তন
 • মোট ২০১.৩২ কিমি (৭৭.৭৩ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট ২,৭৫,১৬০[১]
স্বাক্ষরতার হার
 • মোট ৪২.৩%
সময় অঞ্চল বিএসটি (ইউটিসি+৬)
ওয়েবসাইট রায়পুর উপজেলার তথ্য বাতায়ন


রায়পুর উপজেলা বাংলাদেশের লক্ষ্মীপুর জেলার একটি একটি প্রশাসনিক এলাকা।[২]

অবস্থান ও আয়তন[সম্পাদনা]

এই উপজেলাটি চট্টগ্রাম বিভাগের লক্ষ্মীপুর জেলায়। এর উত্তরে ফরিদগঞ্জরামগঞ্জ উপজেলা, দক্ষিণে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা, পূর্বে রামগঞ্জলক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা, পশ্চিমে বরিশালের হিজলাহাইমচর উপজেলা এবং মেঘনা নদী

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ব্রিটিশ রাজত্বকালে স্থানীয় জমিদার রায়বাহাদুর মোহন রায় এর নামানসারে রায়পুর নাম করণ করা হয়। ১৮৭৭ সালে রায়পুর থানায় রুপান্তরিত হয়। পরবর্তীতে ১৯৮৩ সালে রায়পুর উপজেলা হিসেবে ঘোষিত হয়।

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

এখানে ১০ টি ইউনিয়ন রয়েছে;[১] এগুলো হলোঃ

জনসংখ্যা উপাত্ত[সম্পাদনা]

২০০১ সালের আদমশুমারি অনুযায়ী এখানকার লোকসংখ্যা ২,৩৬,৯৬৫ জন; যার মধ্যে পুরুষ ১,১৮,৫৬২ জন এবং মহিলা ১,১৮,৪০৩ জন। এখানে মুসলিম ২,২৮,৩৬১ জন, হিন্দু ৮,৫৬৬, খ্রিস্টান ২৩ এবং অন্যান্য ধর্মাবলম্বি ১৫ জন।[৩]

স্বাস্থ্য[সম্পাদনা]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

শিক্ষার হার ৪২.৩%; পুরুষদের মধ্যে শিক্ষার হার ৪৪.৪% এবং মহিলাদের মধ্যে শিক্ষার হার ৪০.২%। এখানে রয়েছেঃ

  • কলেজ - ৩টি,
  • মাধ্যমিক বিদ্যালয় - ২৬টি,
  • প্রাথমিক বিদ্যালয় - ৮০টি,
  • মাদ্রাসা - ২১টি।

কৃষি[সম্পাদনা]

  • কৃষিভূমির মালিকানা - ভূমিমালিক ৫১.৯২%, ভূমিহীন ৪৮.০৮%।
  • শহরে ৫১.৪৫% এবং গ্রামে ৫২.০৬% পরিবারের কৃষিজমি রয়েছে।
  • প্রধান কৃষি ফসল - ধান, পাট, গম, আখ, সরিষা, আলু, সয়াবিন, ভুট্টা।
  • বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় ফসলাদি - কাউন, জোয়ার, তিল, তিসি, খেসারি, কলাই।
  • প্রধান ফল-ফলাদি - নারিকেল, সুপারি, আম, কাঁঠাল, কলা, আমড়া, লেবু।
  • মৎস্য, গবাদিপশু ও হাঁস-মুরগির খামার - মৎস্য ৮, হাঁস-মুরগি ৭২, হ্যাচারি ৯, দুগ্ধ-খামার ১৪।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

  • জনগোষ্ঠীর আয়ের প্রধান উৎস কৃষি ৪৭.১৬%, অকৃষি শ্রমিক ২.৮৫%, শিল্প ০.৭০% ব্যবসা ১৪.০১%, পরিবহণ ও যোগাযোগ ৪.১৪%, চাকরি ৯.৬৯%, নির্মাণ ২.২৮%, ধর্মীয় সেবা ০.৪৭%, রেন্ট এন্ড রেমিটেন্স ৮.৭১% এবং অন্যান্য ৯.৯৯%।
  • শিল্প ও কলকারখানা টেক্সটাইল মিল ১, রাইস মিল ৬২, ফাওয়ার মিল ২৫, বিস্কুট ফ্যাক্টরি ১৪, আইস ফ্যাক্টরি ৭, বিড়ি ফ্যাক্টরি ২, স’মিল ৩০, অয়েল মিল ৫, ওয়েল্ডিং কারখানা ২৫, অ্যালুমিনিয়ম কারখানা ১, ইটভাটা ৪।
  • কুটিরশিল্প স্বর্ণশিল্প, বাঁশ ও বেতের কাজ।
  • প্রধান রপ্তানিদ্রব্য নারিকেল, সুপারি, সয়াবিন, ভুট্টা।

যোগাযোগ ব্যবস্থা[সম্পাদনা]

  • যোগাযোগ বিশেষত্ব - পাকারাস্তা ৬৪ কিমি, আধা-পাকারাস্তা ৫৯ কিমি, কাঁচারাস্তা ৮২৭ কিমি। বেড়ীবাধ ৯৬.৫ কিমি।
  • বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় সনাতন বাহন - পাল্কি, গরুর গাড়ি।

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

  • মোহাম্মদউল্লাহ - বাংলাদেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ও স্পিকার;
  • হারুনুর রশিদ - রাজনীতিবিদ, বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক।
  • হাফেজ্জী হুজুর - রাজনীতিবিদ,ইসলামি ব্যক্তিত্ব

দর্শনীয় স্থান[সম্পাদনা]

বিবিধ[সম্পাদনা]

  • হাটবাজার ও মেলা - ২৮টি।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন (জুন, ২০১৪)। "এক নজরে রায়পুর"। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। সংগৃহীত : ৫ জুলাই ২০১৫ 
  2. Nazmul Ahsan Raju (২০১২)। "Raipur Upazila"। in Sirajul Islam। Banglapedia: National Encyclopedia of Bangladesh (Second সংস্করণ)। Asiatic Society of Bangladesh 
  3. আদমশুমারি রিপোর্ট ২০০১ - বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


লক্ষ্মীপুর জেলা বাংলাদেশ এর পতাকা
উপজেলা/থানাঃ কমলনগর | রামগঞ্জ | রামগতি | রায়পুর | লক্ষ্মীপুর সদর