ফ্রান্সেস ম্যাকডোরম্যান্ড

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফ্রান্সেস ম্যাকডোরম্যান্ড
Frances McDormand 2015 (cropped).jpg
২০১৫ স্ক্রিন পুরস্কারে ম্যাকডোরম্যান্ড
স্থানীয় নামFrances McDormand
জন্মসিনথিয়া অ্যান স্মিথ
(১৯৫৭-০৬-২৩) ২৩ জুন ১৯৫৭ (বয়স ৬১)
গিবসন সিটি, ইলিনয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
বাসস্থাননিউ ইয়র্ক সিটি, নিউ ইয়র্ক, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্র/ছাত্রীইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল১৯৮২–বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীজোয়েল কোয়েন (বি. ১৯৮৪)
সন্তান
পুরস্কারপূর্ণ তালিকা

ফ্রান্সেস লুইস ম্যাকডোরম্যান্ড (ইংরেজি: Frances Louise McDormand; জন্ম: সিনথিয়া অ্যান স্মিথ, ২৩শে জুন, ১৯৫৭) হলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী। তিনি দুইবার একাডেমি পুরস্কার, দুইবার প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার ও একবার টনি পুরস্কারসহ বহু পুরস্কার অর্জন করেছেন। ফলে, তিনি "অভিনয়ের তিন মুকুট" অর্জনকারীদের একজন।

ম্যাকডোরম্যান্ড বেটানি কলেজ ও ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেন। তিনি কোয়েন ভ্রাতৃদ্বয় পরিচালিত বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন, যার মধ্যে রয়েছে ব্লাড সিম্পল (১৯৮৪), রাইজিং আরিজোনা (১৯৮৭), ফার্গো (১৯৯৬), দ্য ম্যান হু ওয়াজন্ট দেয়ার (২০০১), বার্ন আফটার রিডিং (২০০৮), এবং হেইল, সিজার! (২০১৬)। ফার্গো ছবিতে মার্জ গান্ডারসন চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর জন্য একাডেমি পুরস্কারস্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার লাভ করেন। তিনি মিসিসিপি বার্নিং (১৯৮৮), অলমোস্ট ফেমাস (২০০০), এবং নর্থ কান্ট্রি (২০০৫) চলচ্চিত্রের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ২০১৭ সালে তিনি থ্রি বিলবোর্ডস আউটসাইড এবিং, মিসৌরি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তার দ্বিতীয় অস্কার পুরস্কার লাভ করেন[১] এবং গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারবাফটা পুরস্কার লাভ করেন।[২]

১৯৮৪ সালে অ্যাওয়েক অ্যান্ড সিং! নাটক দিয়ে ম্যাকডোরম্যান্ডের ব্রডওয়ে থিয়েটারে অভিনয় শুরু করেন, এবং আ স্ট্রিটকার নেম্‌ড ডিজায়ার নাটকে স্টেলা কোওয়াল্‌স্কি চরিত্রে অভিনয়ের জন্য নাটকে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে টনি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। তিনি ২০০৮ সালে দ্য কান্ট্রি গার্ল নাটক দিয়ে ব্রডওয়েতে ফিরে আসেন এবং নাটকে সেরা অভিনেত্রী বিভাগে ড্রামা ডেস্ক পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ২০১১ সালে তিনি গুড পিপল নাটকে অভিনয়ের জন্য নাটকে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে টনি পুরস্কার লাভ করেন। টেলিভিশনে তিনি এইচবিওর মিনি ধারাবাহিক অলিভ কিটারিজ (২০১৫) এ নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন, এবং এতে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ প্রধান অভিনেত্রী বিভাগে প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার লাভ করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ডেরেক ওয়ালকটের ইন আ ফাইন ক্যাসল নাটকে অভিনয়ের মাধ্যমে ম্যাকডোরম্যান্ড প্রথম পেশাদারী অভিনয় শুরু করেন। এই নাটকটিতে অর্থায়ন করেন ম্যাকআর্থার ফাউন্ডেশন এবং ত্রিনিদাদে মঞ্চস্থ হয়। ১৯৮৪ সালে তিনি ব্লাড সিম্পল দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন। এটি কোয়েন ভ্রাতৃদ্বয়ের প্রথম চলচ্চিত্র। ১৯৮৭ সালে তিনি হলি হান্টারনিকোলাস কেজের সাথে রাইজিং আরিজোনা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এছাড়া তিনি নাট্যধর্মী হিল স্ট্রিট ব্লুজ টেলিভিশন ধারাবাহিকের পঞ্চম মৌসুমে কনি চ্যাপম্যান চরিত্রে অভিনয় করেন। ১৯৮৮ সালে তিনি টেনেসি উইলিয়ামস রচিত আ স্ট্রিটকার নেম্‌ড ডিজায়ার নাটকে স্টেলা কোওয়াল্‌স্কি চরিত্রে অভিনয়ের জন্য নাটকে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে টনি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

১৯৮০-এর দশকে কয়েকটি মঞ্চ ও টেলিভিশন নাটকে কাজের পর ম্যাকডোরম্যান্ড চলচ্চিত্রে তার নাট্যধর্মী কাজের জন্য পরিচিতি ও প্রশংসা অর্জন করেন।[৩] ১৯৮৮ সালে তিনি মিসিসিপি বার্নিং চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ১৯৯৬ সালে ফার্গো চলচ্চিত্রে পুলিশ কর্মকর্তা মার্জ গুন্ডারসন চরিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে তার প্রথম একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।[৪]

২০০০ সালে অলমোস্ট ফেমাস চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কার ও গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। একই বছর ওয়ান্ডার বয়েজ চলচ্চিত্রে তার কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে ব্রডকাস্ট ফিল্ম ক্রিটিকস অ্যাসোসিয়েশন, ফ্লোরিডা ফিল্ম ক্রিটিকস সার্কেল ও লস অ্যাঞ্জেলেস ফিল্ম ক্রিটিকস অ্যাসোসিয়েশন পুরস্কার লাভ করেন।

ম্যাকডোরম্যান্ড থিয়েটার কোম্পানি ওস্টার গ্রুপের সহযোগী সদস্য। ২০০২ সালে তিনি ওস্টার গ্রুপের মঞ্চস্থ করার বিয়োগান্ত নাটক টু ইউ, দ্য বার্ডি-তে ওনোন চরিত্রিতে অভিনয় করেন।[৫] ২০০৫ সালের নর্থ কান্ট্রি চলচ্চিত্রে তার অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে তিনি তার চতুর্থ একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ২০০৬ সালে নিকোল হলফসেনারের ডার্ক কমেডি ফ্রেন্ড্‌স উইথ মানি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট পুরস্কার লাভ করেন।[৬]

মিস পেটিগ্রিউ লিভ্‌স ফর আ ডে চলচ্চিত্রের সেটে ম্যাকডোরম্যান্ড, মে ২০০৭

২০০৮ সালে ম্যাকডোরম্যান্ড বার্নস আফটার রিডিংমিস পেটিগ্রিউ লিভ্‌স ফর আ ডে চলচ্চিত্রে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেন। তিনি পরবর্তীতে মারপিঠধর্মী ট্রান্সফরমার্স: ডার্ক অব দ্য মুন চলচ্চিত্রে মার্কিন সরকারের ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্ট ডিরেক্টরের ভূমিকায় অভিনয় করেন। ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারি থেকে মে মাসে তিনি ডেভিড লিন্ডসে-অ্যাবাইয়ারের নাটক গুড পিপল-এ অভিনয় করেন।[৭][৮] এই কাজের জন্য তিনি নাটকে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে টনি পুরস্কার লাভ করেন।[৯] তিনি মাদাগাস্কার ৩: ইউরোপ্‌স মোস্ট ওয়ান্টেড (২০১২) চলচ্চিত্রে ক্যাপ্টেন চ্যান্টেল দুবোয়া চরিত্রের জন্য কণ্ঠ দেন এবং ফরাসি ভাষার "নন, জ্য ন্য রেগ্রেত রিঅঁ" গানে কণ্ঠ দেন।

তিনি ম্যাট ডেমনের সাথে প্রমিসড ল্যান্ড চলচ্চিত্রে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেন। ছবিটি ২০১২ সালের ২৮ ডিসেম্বর মুক্তি পায়।[১০] ২০১৪ সালের নভেম্বরে এলিজাবেথ স্ট্রোট রচিত ছোটগল্প অবলম্বনে এইচবিওর চার খণ্ডের মিনি ধারাবাহিক অলিভ কিটেরিজ-এ তাকে শ্রেষ্ঠাংশে দেখা যায় এবং তিনি এই ধারাবাহিকের সহকারী প্রযোজক ছিলেন।[১১] তার এই কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ টেলিভিশন অভিনেত্রী বিভাগে প্রাইমটাইম এমি পুরস্কারস্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার লাভ করেন। তার এমি পুরস্কারের মধ্য দিয়ে তিনি ১২তম অভিনেত্রী হিসেবে "অভিনয়ের তিন মুকুট" লাভের গৌরব অর্জন করেন।

ম্যাকডোরম্যান্ড ২০১৭ সালে থ্রি বিলবোর্ডস আউটসাইড এবিং, মিসৌরি চলচ্চিত্রে মেয়ের খুনের ন্যায়বিচার প্রার্থী মিলড্রেড হেয়েস চরিত্রে অভিনয় করেন। এই চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি দ্বিতীয় বারের মত শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর জন্য একাডেমি পুরস্কার লাভ করেন।[১২] ৪ মার্চ ২০১৮ অনুষ্ঠানের পরপরই তার পুরস্কারের প্রতিমূর্তিটি চুরি হয় এবং টেরি ব্রায়ান্ট নামে একজনের কাছে তা পাওয়া যায়।[১৩][১৪] এছাড়া তিনি শ্রেষ্ঠ নাট্য চলচ্চিত্র অভিনেত্রী বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার,[১৫] শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে বাফটা পুরস্কারস্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার লাভ করেন।

চলচ্চিত্র তালিকা[সম্পাদনা]

পুরস্কার ও মনোনয়ন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Lopez, Ricardo (৪ মার্চ ২০১৮)। "Frances McDormand Accepts Best Actress Oscar, Honors Other Female Nominees"ভ্যারাইটি (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  2. "বাফটা গেল যাদের ঝুলিতে"দৈনিক ভোরের কাগজ। ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  3. "Story Medium"  Imagine Fashion. Interview with Frances McDormand (2011).
  4. Cameron Crowe, Frances McDormand interview, Interview Magazine, October 2000.
  5. Ben Brantley (2002). "Theater Review: "Racine's Pale Queen, Struggling With Racket Sports." "New York Times." February 19, 2002.
  6. ""Little Miss Sunshine" pulls up to take the crown at 2007 Film Independent's Spirit Awards"Film Independent Spirit Awards (ইংরেজি ভাষায়)। ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০০৭। ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  7. Jones, Kenneth (২২ মার্চ ২০১১)। "'Good People', Play of Aspiration and Escape, With Frances McDormand and Tate Donovan, Begins on Broadway"প্লেবিল (ইংরেজি ভাষায়)। ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  8. Jones, Kenneth (২২ মার্চ ২০১১)। "Broadway's 'Good People' Gets Final Extension, Shifting Dates of 'Master Class'"প্লেবিল (ইংরেজি ভাষায়)। মে ১, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  9. Jones, Kenneth; Gans, Andrew (২২ মার্চ ২০১১)। "2011 Tony Nominations Announced; 'Book of Mormon' Earns 14 Nominations"প্লেবিল (ইংরেজি ভাষায়)। সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  10. Gerhardt, Tina (৩১ ডিসেম্বর ২০১২)। "Matt Damon Exposes Fracking in Promised Land"The Progressive (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  11. Bruni, Frank (১৫ অক্টোবর ২০১৪)। "Frances McDormand, True to Herself in HBO's 'Olive Kitteridge'"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  12. "Oscars 2018: The Shape of Water and Frances McDormand rule"বিবিসি নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। বিবিসি। ৫ মার্চ ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  13. "Oscars 2018: Man denies stealing Frances McDormand's best actress Oscar"বিবিসি নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। বিবিসি। ৮ মার্চ ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  14. Melas, Chloe (৫ মার্চ ২০১৮)। "Frances McDormand's Oscar stolen (and returned)"সিএনএন (ইংরেজি ভাষায়)। Turner Broadcasting System, Inc.। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 
  15. Grobar, Matt (৭ জানুয়ারি ২০১৮)। "'Three Billboards' Star Frances McDormand Expresses Gratitude For Tectonic Shift In Entertainment Industry"ডেডলাইন (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৯ মার্চ ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]