শেলি উইন্টার্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শেলি উইন্টার্স
স্থানীয় নামShelley Winters
জন্মশার্লি শ্রিফ্‌ট
(১৯২০-০৮-১৮)১৮ আগস্ট ১৯২০
সেন্ট লুইস, মিজুরি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যু১৪ জানুয়ারি ২০০৬(২০০৬-০১-১৪) (৮৫ বছর)
বেভারলি হিলস, ক্যালিফোর্নিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
জাতীয়তামার্কিন
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল১৯৪৩-২০০৬
দাম্পত্য সঙ্গীম্যাক পল মেয়ার
(বি. ১৯৪২; তালাক. ১৯৪৮)

ভিত্তোরিও গাসমান
(বি. ১৯৫২; তালাক. ১৯৫৪)

অ্যান্থনি ফ্রঁসোয়া
(বি. ১৯৫৭; তালাক. ১৯৬০)

গেরি ডিফোর্ড (বি. ২০০৬)
সন্তান

শেলি উইন্টার্স (ইংরেজি: Shelley Winters; জন্ম: শার্লি শ্রিফ্‌ট, ১৮ আগস্ট ১৯২০ - ১৪ জানুয়ারি ২০০৬) ছিলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী। তার কর্মজীবনের ব্যপ্তি প্রায় পাঁচ দশক। এই সময়ে তিনি অসংখ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন এবং দুটি একাডেমি পুরস্কার, একটি এমি পুরস্কার ও একটি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার অর্জন করেছেন।

তিনি দ্য ডায়েরি অব আন ফ্রাংক (১৯৫৯) ও আ প্যাচ অব ব্লু (১৯৬৫) ছবিতে অভিনয় করে দুইবার শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে অস্কার জয় করেন এবং আ প্লেস ইন দ্য সান (১৯৫১) ও দ্য পসাইডন অ্যাডভেঞ্চার (১৯৭২) ছবিতে অভিনয় করে আরও দুটি অস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। তার অন্যান্য উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হল আ ডাবল লাইফ (১৯৪৭), দ্য নাইট অব দ্য হান্টার (১৯৫৫), ললিটা (১৯৬২), আলফি (১৯৬৬) ও পিটস ড্রাগন (১৯৭৭)।

চলচ্চিত্রের পাশাপাশি তিনি টেলিভিশনেও অভিনয় করেছেন। তিনি সিটকম রোজিঅ্যান-এ দীর্ঘদিন কাজ করেন। এছাড়া তিনি তিনটি আত্মজীবনীমূলক বই রচনা করেছেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

শেলি উইন্টার্স ১৯২০ সালের ১৮ই আগস্ট মিজুরির সেন্ট লুইসে জন্মগ্রহণ করেন। তার জন্মনাম শার্লি শ্রিফ্‌ট। তার পিতা ইয়োনাস শ্রিফ্‌ট ছিলেন পোশাক পরিকল্পনাকারী এবং মাতা রোজ (জন্মনাম: উইন্টার) ছিলেন সঙ্গীতশিল্পী।[১] তার পিতামাতা দুজনেই ইহুদি ছিলেন। তার পিতা অস্ট্রিয়া থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আসেন এবং তার মাতা সেন্ট লুইসে অস্ট্রীয় অভিবাসী পিতামাতা ঘরে জন্মগ্রহণ করেন।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. হারমেৎজ, আলজিন (১৫ জানুয়ারি ২০০৬)। "Shelley Winters, Tough-Talking Oscar Winner in 'Anne Frank' and 'Patch of Blue', Dies"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। সংগ্রহের তারিখ ১৮ আগস্ট ২০১৮ 
  2. "Shelley Winters"জিউয়িশ উইমেন আর্কাইভ। সংগ্রহের তারিখ ১৮ আগস্ট ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]