কাতালিনা সান্দিনো মোরেনো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কাতালিনা সান্দিনো মোরেনো
Catalina Sandino Moreno
Catalina Moreno.jpg
২০০৮ সালে কান চলচ্চিত্র উৎসবে সান্দিনো মোরেনো
জন্ম (1981-04-19) এপ্রিল ১৯, ১৯৮১ (বয়স ৪১)
বোগোতা, কলম্বিয়া
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন২০০৪-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীডেভিড এলওয়েল (বি. ২০০৬)
সন্তান

কাতালিনা সান্দিনো মোরেনো (জন্ম ১৯ এপ্রিল ১৯৮১)[১] হলেন একজন কলম্বিয় অভিনেত্রী। তিনি মারিয়া ফুল অব গ্রেস চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন এবং শার্লিজ থেরনের সাথে যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে রৌপ্য ভল্লুক অর্জন করেন। তার অভিনীত অন্যান্য উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হল লাভ ইন দ্য টাইম অব কলেরা (২০০৭), চে (২০০৮), দ্য টোয়ালাইট সাগা: ইক্লিপস (২০১০) ও আ মোস্ট ভায়োলেন্ট ইয়ার (২০১৪)।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

সান্দিনো মোরেনো ১৯৮১ সালের ১৯শে এপ্রিল কলম্বিয়ার বোগোতায় এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা ছিলেন একজন পশুচিকিৎসক এবং মাতা একজন প্যাথলজিস্ট।[১] তিনি বোগোতার সেন্ট জর্জ্‌স স্কুলে পড়াশোনা করেন। অভিনেত্রী হওয়ার পূর্বে তিনি বোগোতার পোন্তিফিসিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজ্ঞাপন বিষয়ে অধ্যয়ন করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

বোগোতায় এক নাট্য বিদ্যালয়ে মোরেনোর অভিনয়ের প্রতিভা নজরে আসার পর ২০০৩ সালে তাকে মারিয়া ফুল অব গ্রেস চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য ডাকা হয়। তার প্রাক-বাছাই অভিনয় পরীক্ষা নেওয়া হয় নিউ ইয়র্ক ও কলম্বিয়ায়। এরপর তিনি মূল অডিশনের জন্য চূড়ান্তভাবে মনোনীত হন এবং সেখানে তিনি ৯০০ জন মেয়েকে হারিয়ে প্রধান চরিত্রটিতে অভিনয়ের সুযোগ লাভ করেন। তাকে ফুল বাগানে কাজ করা একজন কলম্বিয় তরুণী ও পরে মাদক ব্যবসায়ের সাথে জড়িয়ে পড়া মারিয়া আলভারেজ চরিত্রে দেখা যায়। চলচ্চিত্রে সান্দিনো মোরেনোর অভিনয় প্রশংসিত হয় এবং বিভিন্ন ওয়েবসাইট ও চলচ্চিত্র সমালোচনার সাইট থেকে ইতিবাচক পর্যালোচনা অর্জন করে। এই কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।[২] এই মনোনয়নের ফলে তিনি অস্কারের মনোনীত প্রথম কলম্বিয়, দ্বিতীয় দক্ষিণ আমেরিকান ও তৃতীয় হিস্পানিক অভিনেত্রী।[৩] এছাড়া তিনি শার্লিজ থেরনের সাথে যৌথভাবে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে রৌপ্য ভল্লুক অর্জন করেন এবং একটি স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

২০০৭ সালে তিনি গাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেজের লাভ ইন দ্য টাইম অব কলেরা উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত একই নামের চলচ্চিত্রে হিলদেব্রান্দা সানচেজ চরিত্রে অভিনয় করেন।[৪] এতে তার সহশিল্পী ছিলেন হাভিয়ের বারদেমফের্নান্ডা মন্টেনেগ্রো। পরের বছর তিনি বেনিসিও দেল তোরোর সাথে স্টিভেন সোডারবার্গের চে (২০০৮) চলচ্চিত্রে এর্নেস্তো "চে" গেভারার দ্বিতীয় স্ত্রী আলেইদা মার্চ দে গেভারা চরিত্রে অভিনয় করেন।[৫] চলচ্চিত্রটি সমালোচকদের নিকট থেকে প্রশংসা লাভ করে।[৬][৭]

২০১০ সালে তিনি স্টেফানি মাইয়ারের রচিত উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত দ্য টোয়ালাইট সাগা: ইক্লিপস চলচ্চিত্রে নারী ভ্যাম্পায়ার মারিয়া চরিত্রে অভিনয় করেন। এছাড়া তিনি রোয়া (২০১৩) এবং অস্কার আইজ্যাকজেসিকা চ্যাস্টেইনের সাথে আ মোস্ট ভায়োলেন্ট ইয়ার (২০১৪) চলচ্চিত্রে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেন।[৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Catalina Sandino Moreno. Biography, news, photos and videos"হ্যালো ম্যাগাজিন (English ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুলাই ২০২০ 
  2. "In Oscar's spotlight -- but who is she?"লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। ১১ ফেব্রুয়ারি ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 
  3. "Oscar Nom Catalina Sandino Moreno to Join Broderick in The Starry Messenger"ব্রডওয়ে (ইংরেজি ভাষায়)। ৩১ জুলাই ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 
  4. ব্রাউন, স্কট (১৪ জুন ২০০৬)। "Sandino Moreno joins 'Love in the Time of Cholera'"এন্টারটেইনমেন্ট উইকলি (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 
  5. "Sandino Moreno joins 'Che' pics"ভ্যারাইটি (ইংরেজি ভাষায়)। ১৯ জুলাই ২০০৭। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 
  6. "Che: Part One (The Argentine) (2009)"রটেন টম্যাটোসফ্যানড্যাঙ্গো মিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 
  7. "Che: Part Two (Guerilla) (2008)"রটেন টম্যাটোসফ্যানড্যাঙ্গো মিডিয়া। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 
  8. স্নাইডার, জেফ (২৭ জানুয়ারি ২০১৪)। "Catalina Sandino Moreno Joins Oscar Isaac, Jessica Chastain in 'A Most Violent Year' (Exclusive)"দ্য র‍্যাপ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]