মার্লি ম্যাটলিন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মার্লি ম্যাটলিন
MarleeMatlinMay09crop.JPG
২০০৯ সালে ম্যাটলিন
স্থানীয় নামMarlee Matlin
জন্মমার্লি বেথ ম্যাটলিন
(১৯৬৫-০৮-২৪) ২৪ আগস্ট ১৯৬৫ (বয়স ৫৩)
মর্টন গ্রোভ, ইলিনয়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
পেশাঅভিনেত্রী, লেখিকা
কার্যকাল১৯৮৬-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীকেভিন গ্রান্ডাল্‌স্কি (বি. ১৯৯৩)
সন্তান
পিতা-মাতাউইলিয়াম হার্ট (১৯৮৫-৮৬)

মার্লি বেথ ম্যাটলিন (ইংরেজি: Marlee Beth Matlin; জন্ম: ২৪ আগস্ট ১৯৬৫) হলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী, লেখিকা ও সমাজকর্মী। তিনি চিলড্রেন অব আ লেসার গড (১৯৮৬) ছবিতে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর জন্য একাডেমি পুরস্কার অর্জন করেন, এবং এখন পর্যন্ত একমাত্র বধির অভিনয়শিল্পী হিসেবে তিনি এই পুরস্কার লাভ করেন।[১][২] এছাড়া এই কাজের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ নাট্য অভিনেত্রী বিভাগে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার অর্জন করেন। তার অনান্য টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রে কাজের জন্য তিনি দুটি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন এবং চারটি এমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। ১৮ মাস বয়সে অসুস্থতা ও প্রবল জ্বরের জন্য বধির হয়ে[৩] যাওয়া ম্যাটলিন ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অব দ্য ডিফের বিশিষ্ট সদস্য।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ম্যাটলিন ইলিনয়ের মর্টন গ্রোভে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা ডোনাল্ড ম্যাটলিন (১৯৩০-২০১৩) ছিলেন একজন গাড়ি ব্যবসায়ী এবং মাতা লিবি (প্রদত্ত নাম: হ্যামার)।[৪][৫][৬] ১৮ মাস বয়সে অসুস্থতা ও প্রবল জ্বরে আক্রান্ত হয়ে তার ডান কান সম্পূর্ণ এবং বাম কান ৮০ ভাগ বধির হয়ে যায়।[৭] তিনি তার পরিবারের একমাত্র বধির। তিনি ও তার দুই বড় ভাই এরিক ও মার্ক সংস্কারকৃত ইহুদি পরিবারে বেড়ে ওঠেন। তার পরিবার পোলীয় ও রুশ ইহুদি বংশোদ্ভূত।[৫][৮][৯]

ম্যাটলিন বধিরদের জন্য নির্মিত কংগ্রেগেশন বিন শ্যালমে পড়াশোনা করেন এবং হিব্রু ধ্বনি শেখার পর তৌরাতের বাত মিৎজভাহ অংশ শিখতে সমর্থ হন। ম্যাটলিন আর্লিংটন হাইটসের জন হার্সি হাই স্কুলে ও পরে হারপার কলেজে পড়াশোনা করেন।[১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "The 59th Academy Awards Memorable Moments"অস্কারএকাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস। ২৬ আগস্ট ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ২৪ আগস্ট ২০১৮ 
  2. "Oscars: Marlee Matlin on her Best Actress win"এন্টারটেইনমেন্ট উয়িকলি। ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ ২৪ আগস্ট ২০১৮ 
  3. ম্যাটলিন, মার্লি (২০০৯)। I'll Scream Later (ইংরেজি ভাষায়)। Simon and Schuster। পৃষ্ঠা 3। আইএসবিএন 9781439117637 
  4. "Marlee Matlin profile"। ফিল্ম রেফারেন্স। সংগ্রহের তারিখ ২৪ আগস্ট ২০১৮ 
  5. "Marlee Beth Matlin roots"। Rootsweb.com। সংগ্রহের তারিখ ২৪ আগস্ট ২০১৮ 
  6. "Inside Actress Marlee Matlin's Silent World"Good Morning America। ABC। এপ্রিল ১৪, ২০০৯। p. 4। সংগ্রহের তারিখ ২৪ আগস্ট ২০১৮ 
  7. Matlin, Marlee (২০০৯)। I'll Scream Later (ইংরেজি ভাষায়)। Simon and Schuster। পৃষ্ঠা 21–22। আইএসবিএন 9781439117637 
  8. Schleier, Curt, "No challenge goes unmet for Deaf actress Marlee Matlin", Jewish News Weekly, January 19, 2007.
  9. Matlin, Marlee (২০০৯)। I'll Scream Later (ইংরেজি ভাষায়)। Simon and Schuster। আইএসবিএন 9781439117637 
  10. Heidemann, Jason A. "Vital signs" আর্কাইভকৃত অক্টোবর ১৩, ২০০৭ ওয়েব্যাক মেশিনে.. Time Out Chicago, October 4, 2007.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]