অ্যান ব্যানক্রফ্‌ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অ্যান ব্যানক্রফ্‌ট
Anne Bancroft Chrysler Theatre 1964 (cropped).jpg
১৯৬৪ সালে ক্রিসলার থিয়েটারে ব্যানক্রফ্‌ট
স্থানীয় নাম
Anne Bancroft
জন্ম
আনা মারিয়া লুইসা ইতালিয়ানো

(১৯৩১-০৯-১৭)১৭ সেপ্টেম্বর ১৯৩১
মৃত্যু৬ জুন ২০০৫(2005-06-06) (বয়স ৭৩)
ম্যানহাটন, নিউ ইয়র্ক, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
মৃত্যুর কারণগর্ভাশয়ে ক্যান্সার
অন্য নামঅ্যান মার্নো
পেশাঅভিনেত্রী, পরিচালক, চিত্রনাট্যকার, গায়িকা
কার্যকাল১৯৫১-২০০৫
দাম্পত্য সঙ্গীমার্টিন মে (বি. ১৯৫৩; তালাক. ১৯৫৭)
মেল ব্রুক্স (বি. ১৯৬৪)
সন্তানম্যাক্স ব্রুক্স

অ্যান ব্যানক্রফ্‌ট (ইংরেজি: Anne Bancroft) নামে পরিচিত আনা মারিয়া লুইসা ইতালিয়ানো[১] (ইংরেজি: Anna Maria Louisa Italiano; ১৭ই সেপ্টেম্বর ১৯৩১ - ৬ই জুন ২০০৫) ছিলেন একজন মার্কিন অভিনেত্রী, পরিচালক, চিত্রনাট্যকার ও গায়িকা। তিনি পদ্ধতিগত অভিনয় শাখার সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন এবং লি স্ট্রাসবার্গের অধীনে অভিনয়ের পাঠ গ্রহণ করেন।[২] অভিনয় দক্ষতা ও বৈচিত্রতার জন্য সমাদৃত ব্যানক্রফ্‌ট চলচ্চিত্র, মঞ্চ ও টেলিভিশনে অভিনয় করেছেন।[৩] তিনি চলচ্চিত্রে কাজের জন্য একটি একাডেমি পুরস্কার, টেলিভিশনে কাজের জন্য দুটি এমি পুরস্কার এবং মঞ্চে কাজের জন্য দুটি টনি পুরস্কার অর্জন করেন। ফলে তিনি অভিনয়ের ত্রি-মুকুট বিজয়ী অভিনয়শিল্পীদের একজন। এছাড়া তিনি দুটি গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার, তিনটি বাফটা পুরস্কার ও আরও বেশ কিছু পুরস্কার ও মনোনয়ন অর্জন করেন।[৪]

১৯৫২ সালে ডোন্ট বদার টু নক চলচ্চিত্র দিয়ে হলিউডে আগমনের পর তিনি ১৯৫০-এর দশক জুড়ে একাধিক পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করেছেন। ১৯৬২ সালে তিনি দ্য মিরাকল ওয়ার্কার চলচ্চিত্রে কিশোরী হেলেন কেলারের শিক্ষিকা চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীর জন্য একাডেমি পুরস্কার অর্জন করেন। পূর্বে তিনি ব্রডওয়ে মঞ্চে একই নামের মঞ্চনাটকে একই চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন এবং তার কাজের জন্য শ্রেষ্ঠ কেন্দ্রীয় অভিনেত্রী বিভাগে টনি পুরস্কার অর্জন করেন। ১৯৬৫ সালে ব্রডওয়েতে তিনি অ্যাল্ডোস হাক্সলির দ্য ডেভিলস অব লুডান অবলম্বনে জন হুইটিংয়ের নির্দেশিত নাটক দ্য ডেভিলস-এ মধ্যযুগীয় নান চরিত্রে অভিনয় করেন। তিনি দ্য গ্র্যাজুয়েট (১৯৬৭) চলচ্চিত্রের প্রলোভনকারী চরিত্র মিসেস রবিনসন চরিত্র দিয়ে সবচেয়ে বেশি পরিচিতি অর্জন করেন

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Anne Bancroft"দ্য টেলিগ্রাফ। ৯ জুন ২০০৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৮ 
  2. Strasberg, Lee. Strasberg at the Actors Studio: Tape-recorded Sessions, Theatre Communications Group (1965) back cover
  3. A. Willis, John (2005). "Screen World". 55. An impassioned, clever, and gifted actress who has been equally brilliant in both drama and comedy, emerging as one of the most enduring and respected performers of her generation.
  4. ম্যাগিল, ফ্রাংক নর্দার্ন (১৯৮৭)। Magill's Cinema Annual: 1987 (ইংরেজি ভাষায়)। গেল। পৃষ্ঠা ৬০০। আইএসবিএন 9780893564063। সংগ্রহের তারিখ ৬ জুন ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]