জেনিফার লরেন্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জেনিফার লরেন্স
Jennifer Lawrence SDCC 2015 X-Men.jpg
জেনিফার লরেন্স ২০১৪
জন্মজেনিফার শ্রেডার লরেন্স
(১৯৯০-০৮-১৫) ১৫ আগস্ট ১৯৯০ (বয়স ২৮)
লুইসভিল, কেন্টাকি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল২০০৬–বর্তমান

জেনিফার লরেন্স (ইংরেজি: Jennifer Lawrence; জন্ম: ১৫ অগাস্ট, ১৯৯০)[১] একজন মার্কিন অভিনেত্রী। তাঁর প্রথম উল্লেখযোগ্য অভিনয় ছিল দ্য বিং ইংভাল শো নামের একটী সিটকমে। এরপরে তিনি ২০০৮ সালে দ্য বার্নিং প্লেইন এবং ২০১০ সালে উইনটার’স বোন নামের দুইটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এই চলচ্চিত্র দুটিতে অভিনয়ের জন্য তিনি অ্যাকাডেমি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে একাডেমি পুরস্কারের মনোয়ন লাভ করেন। তিনি ছিলেন এই পুরস্কারের মনোয়ন পাওয়া দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ ব্যক্তি।

২২ বছর বয়সে লরেন্স টিফ্যানি ম্যাক্সওয়েলের নির্দেশনায় একটি রোমান্টিক কমেডি চলচ্চিত্র সিলভার লিনিংস প্লেবুক-এ অভিনয় করেন। এই অভিনয়ের জন্যে তিনি দর্শকজনপ্রিয়তা এবং কয়েকটি পুরস্কার লাভ করেন। পুরস্কারের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড ফর বেস্ট অ্যাক্ট্রেস এবং অ্যাওয়ার্ড ফর বেস্ট অ্যাক্ট্রেস। এই পুরস্কার জয়ের মাধ্যমে তিনি অস্কারে দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ সেরা অভিনেত্রীর খেতাব লাভ করেন।[২] ২০১৩ সালে কমেডি ড্রামা অ্যামেরিকান হাসেল-এ অভিনয়ের জন্যে লরেন্স গোল্ডেন গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার, বাফটা অ্যাওয়ার্ড এবং তৃতীয়বারের মত অ্যাকাডেমি পুরস্কার জয় করেন।[৩][৪] ফোর্বসম্যাগাজিনের তৈরী তালিকা অনুযায়ী জেনিফার লরেন্স ২০১৫ সালের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেত্রী।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Jennifer Lawrence Biography"। Biography.com। সংগ্রহের তারিখ জুন ১০, ২০১৪ 
  2. "Jennifer Lawrence, Quvenzhané Wallis make Oscar history as nominations are announced"। Up and Comers। জানুয়ারি ১০, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২২, ২০১৩ 
  3. "'Hunger Games': Jennifer Lawrence reaps praise from critics"Los Angeles Times। মার্চ ২৩, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৪, ২০১২ 
  4. "Action Heroine Movies at the Box Office"। Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৩, ২০১২ 
  5. ফোর্বস ম্যাগাজিন: ২০১৫ সালে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেত্রী জেনিফার লরেন্স

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]